৪ আষাঢ় ১৪২৫, সোমবার ১৮ জুন ২০১৮ , ৩:২৪ অপরাহ্ণ

‘মানুষ হত্যা করেছেন মাফ করেছি, আলী সাহেব রাজনীতি করবে না’


সিটি করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৮:৩১ পিএম, ৮ মার্চ ২০১৮ বৃহস্পতিবার | আপডেট: ০৯:৩৯ পিএম, ১০ মার্চ ২০১৮ শনিবার


‘মানুষ হত্যা করেছেন মাফ করেছি, আলী সাহেব রাজনীতি করবে না’

নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের এমপি সেলিম ওসমান বলেছেন, আমাদের ভয় দেখাবেন না। শামীম ওসমানের সঙ্গে থাকা লোকজনদের পাখির মত গুলি করে মেরেছেন। চাষাঢ়া আওয়ামী লীগ অফিসে বোমা হামলা করে শামীম ওসমানকে মারতে চেয়েছেন। সেদিন ২২জনের মৃত্যু হয়েছে। চন্দন শীল, রতন দাস পা হারিয়েছেন। তাও কিছু বলি বলি নাই। মাফ করে দিয়েছি। তাই আসুন নারায়ণগঞ্জ নিয়ে কাজ করি। সব ভেদাভেদ ভুলি।

বৃহস্পতিবার ৮ মার্চ দুপুরে নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় খেয়াঘাট সংলগ্ন মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স উদ্বোধনের আগে মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে অনুষ্ঠিত সমাবেশে সেলিম ওসমান এসব কথা বলেন।

নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক রাব্বী মিয়ার সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি শামীম ওসমান, নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের এমপি নজরুল ইসলাম বাবু, সংরক্ষিত নারী সংসদ সদস্য হোসনে আরা বাবলী, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল হাই, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ আলী প্রমুখ।

ওই সভায় উপস্থিত শিল্পপতি ও বিএনপির এক সময়ের কিং মেকার খ্যাত মোহাম্মদ আলীকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘আমি মোহাম্মদ আলীকে একটা দায়িত্ব দিয়েছি। সেটা হলো তিনি মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য কাজ করবেন। দিনরাত পরিশ্রম করবেন। রাজনীতি আর করবেন না মোহাম্মদ আলী। তিনি এবার মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য নিবেদিত হয়ে কাজ করবেন। আমি এমপি থাকি না থাকি মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য কাজ করে যাবো।

তিনি বলেন, যে যত কথাই বলুন না কেন, যত বারই ঘাড় ধরে বের করে দিতে চান না কেন, নারায়ণগঞ্জ ছেড়ে আমরা যাবো না, যাবো না, যাবো না। বার বার আসবো নারায়ণগঞ্জের মানুষের কাছে। বার বার আসবো। আর এ মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে কাজ করবো।

সেলিম ওসমান আরো বলেন, বহুদিন পর আমি মুক্তিযোদ্ধাদের প্রাণ ভরে হাসতে দেখেছি। নির্বাচনের পর আমি বলে ছিলাম আমাকে সহযোগীতা করেন আমি মুচকি হাসির ব্যবস্থা করবো। আপনারা জানেন কোন একটি রাজনৈতিক দল আমাদের মুখ থেকে জয় বাংলা স্লোগান করে নিয়ে ছিল। রাজাকারের গাড়িতে পতাকা উঠিয়ে দেওয়া হয়েছিল। আমাদের আছে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা। উনি থাকলে আমাদের সব পাওনা আমরা পাবো। আমার এক ভাই বলছে আমরা পুষ্টিহীনতায় ভুগছি। এটা অসম্ভব। আজকে ৮৫ বছরের মুক্তিযোদ্ধাও চাষাঢ়া থেকে র‌্যালি করে এখানে এসেছেন। আমাদের দেখতে হবে আজকের রাজনীতি একটি মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষে একটি বিপক্ষে। আমরা জেলার সকল মুক্তিযোদ্ধা একত্রে হয়েছে। উপজেলা চেয়ারম্যান আমন্ত্রন জানিয়ে ছিলাম। আমার জানতে আপনি কেন আসলেন না? যারা জনপ্রতিনিধি রয়েছে আমাদের সবার জানতে হবে প্রশ্ন রইলো আমার মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে কে আর বিপক্ষে কে? শুধু সেলিম ওসমান আর মোহাম্মদ আলী সব কিছু করবে না। আজকে যা কিছু হয়েছে তার সমস্ত কৃতিত্ব আমার সামনে বসা সকল মুক্তিযোদ্ধার। আমাদের ডাকে তারা বার বার সাড়া দিয়েছেন। নারায়ণগঞ্জে ব্যবসায়ী সংগঠন এবং মুক্তিযোদ্ধারা একত্রে কাজ করে সেটি আজকেও প্রমানিত হয়েছে। আমাদের শরীর বৃদ্ধ হয়েছে মন না। আমাদের ভবিষ্যত প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে জানাতে হবে।

তিনি আরো বলেন, আজকে আমাদের যে সম্মান দেখানো হয়েছে তাতে মরতে আমাদের আপত্তি নাই। আমরা হাত পাততে জানি না। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আহবান এবং নির্দেশে আমরা যুদ্ধ করে বাংলাদেশের পতাকা এনে দিয়েছি। সুতরাং আমরা স্বাধীনতার পক্ষে শক্তি। স্বাধীনতার পক্ষের শক্তি দেশ চালাচ্ছে বলে আজকে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। আর এ এগিয়ে যাওয়ার পেছনে আমাদের আবারো যুদ্ধ করতে হবে। আগামীর সরকার শেখ হাসিনার সরকারই হবে ইনশাল্লাহ। উনি আবারো ক্ষমতায় আসলে বাংলাদেশ ২৫ বছর এগিয়ে যাবে। আর ক্ষমতায় না আসলে ১৫ বছর পিছিয়ে যাবে। আমরা রাজনীতি করি না আমরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শে চলি। আমি জানি না আমি কোন দলের সদস্য। আমি যতটুকু কাজ করি একজন মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে বঙ্গবন্ধুর সৈনিক হিসেবে। আজকের পর থেকে মুক্তিযোদ্ধাদের আর কারো কাছে কিছু চাইবে না। শুধু একটা জিনিস আল্লাহর কাছে চাইবে আরো ৫টি বছর শেখ হাসিনার সরকার চাই।
সেলিম ওসমান আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারায়ণগঞ্জকে অনেক বেশি পছন্দ করেন। এই নারায়ণগঞ্জ থেকে জন্ম হয়েছে একুশে পদক প্রাপ্ত খান সাহেব ওসমান আলী, স্বাধীনতা পদক প্রাপ্ত শামসুজ্জোহা। আমাদেরকে যতই ঘাড় ধরে বের করে দেন না কেন আমরা নারায়ণগঞ্জ ছেড়ে যাবো না যাবো না যাবো না। বার বার আসবো নারায়ণগঞ্জের মানুষের কাছে। আর মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে কাজ করবো। আমরা মুক্তিযোদ্ধারা প্রাচ্যের ডান্ডি বানানোর দায়িত্ব নিবো।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

রাজনীতি -এর সর্বশেষ