৮ আশ্বিন ১৪২৫, রবিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮ , ৯:০৪ অপরাহ্ণ

শামীম ওসমান ও বাবু জোট বাধছেন!


স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৯:৪৫ পিএম, ১০ মার্চ ২০১৮ শনিবার


শামীম ওসমান ও বাবু জোট বাধছেন!

নারায়ণগঞ্জের রাজনীতিতে এক সময়ে প্রভাবশালী এমপি শামীম ওসমানের বিরোধী নেতা হিসেবেই পরিচিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের এমপি নজরুল ইসলাম বাবু। দুই বছর আগে বন্দর শ্যামল কান্তি ভক্তের ঘটনার পরে একটি টেলিভিশনের টক শো অনুষ্ঠানে ওই ঘটনায় জড়িত এমপি সেলিম ওসমানের পরোক্ষ সমালোচনা করেন বাবু। পরে অবশ্য সংবাদ সম্মেলনে সেলিম ওসমানও এ ব্যাপারে বক্তব্য রাখেন।

তাছাড়া নারায়ণগঞ্জের আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে এক সময়ে সিটি করপোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভীর ঘনিষ্টজন হিসেবেই পরিচিত ছিলেন বাবু। সবশেষ নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের কমিটিতে এমপি বাবু পন্থীদের আধিক্য কম থাকায় এ নিয়ে দেখা দেয় নানা প্রশ্ন। যদিও কমিটিতে আইভী অনুগামীদের প্রাধান্য রয়েছে এমন গুঞ্জনও আছে।

এদিকে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে নারায়ণগঞ্জের আলোচিত সমালোচিত প্রভাবশালী দুজন এমপির মধ্যে মামা ভাগ্নের সম্পর্ক আবারো জোট বাধতে শুরু করেছে। একজন আরেকজনকে মামা ভাগনে সম্বোধন করেই ডাকেন। তবে এ মামা ভাগনের সম্পর্কে ইতিপূর্বে দেখা গেছে সাপে নেউলে সম্পর্কও।

জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার নারায়ণগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে নারায়ণগঞ্জের ওসমান পরিবারের ব্যাপক প্রশংসা করেছেন নারায়ণগঞ্জ-২ (আড়াইহাজার) আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু। কিন্তু আড়াইহাজার থেকে টানা দুই বার নজরুল ইসলাম বাবু এমপি হলেও ওই এলাকার কোন কর্মসূচিতেই শামীম ওসমানকে দাওয়াত করা হতো না। এমনকি বিগত সময়ের একটি অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আড়াইহাজার আসলেও সেখানে শামীম ওসমানের জন্য নির্ধারিত চেয়ার রাখা হয়নি বলে অভিযোগ করেছিলেন নেতাকর্মীরা। সোনারগাঁও পৌরসভা নির্বাচনে মামা ভাগনে রীতিমত যুদ্ধে নেমেছিলেন। সেই নজরুল ইসলাম বাবু এখন গুণকীর্তন করছেন ওসমান পরিবারের। সেদিন তিনি বলে গেছেন ওসমান পরিবার ছাড়া নারায়ণগঞ্জের আওয়ামীলীগ অর্থহীন।

অন্যদিকে জানাগেছে, নারায়ণগঞ্জ-৪ (ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ) আসনে আওয়ামীলীগের বর্তমান এমপি একেএম শামীম ওসমান। তিনি এ আসনে অপ্রতিদ্বন্দ্বিহীন। যদিও এ আসনের নেতা কেন্দ্রীয় শ্রমিকলীগ নেতা কাউসার আহমেদ পলাশ নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ড. সেলিনা হায়াৎ আইভীর সঙ্গে যোগ দিয়েছেন। একটি অনুষ্ঠানে পলাশ ঘোষণাও দিয়েছেন তিনি মেয়র আইভী পাশে থাকবেন।

নেতাকর্মীদের দাবি আড়াইহাজারে নজরুল ইসলাম বাবুকে ঠেকাতে কাজ করছেন জেলা কমিটির নেতা অ্যাডভোকেট ইকবাল পারভেজকে। ইতোমধ্যে ইকবাল পারভেজ জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। আড়াইহাজারে বেশ আলোচনায় চলে আসছে ইকবাল পারভেজ। জেলা আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে আড়াইহাজার থেকে যারা পদ পেয়েছেন তাদের সকলের সঙ্গেই এমপি বাবুর দূরত্ব রয়েছে। ইতোমধ্যে উপজেলা আওয়ামীলীগের সেক্রেটারি আবদুর রশিদ ভূইয়া বাবুর বলয় ত্যাগ করে ইকবালের সঙ্গে যোগদান করেছেন।

এদিকে নারায়ণগঞ্জে বিগত দিনের মত বিএনপির অরাজকতা ও নাশকতা ঠেকাতে হলে প্রভাবশালী দুইজন এমপি শামীম ওসমান ও নজরুল ইসলাম বাবুর বিকল্প নেতৃত্ব গড়ে উঠেনি মনে করছেন এখানকার তৃণমূল নেতাকর্মীরা। তাদের মতে, নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের কমিটিতে পদায়নের ক্ষেত্রে এ দুই নেতাকে কিছুটা খাটো করা হলেও ভবিষ্যতে বিএনপি ও জামায়াতের নাশকতা ঠেকাতে তাঁদেরকেই বেশী প্রয়োজন পড়বে।

আওয়ামী লীগের তৃণমূল পর্যায়ের অনেক নেতাকর্মী জানান, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারী নির্বাচনের পর থেকে দেশে অরাজকতা ও নাশকতা করে বিএনপি ও জামায়াত। ওই সময়ে শামীম ওসমানের নির্দেশে প্রতিটি পাড়া মহল্লায় প্রতিদিন চলছে নাশকতা বিরোধী সভা। এতে করে নেতাকর্মীরা ছিল বেশ চাঙ্গা। ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরাও বিভিন্ন স্পটে মোতায়েন থাকতো। ফলে কয়েকটি স্থানে চোরাগোপ্তা হামলা হলেও শহর ছিল অনেকটাই শান্ত। অপরদিকে আড়াইহাজারেও নাশকতা ছিল অনেক কম। সেখানেও বাবুর পক্ষে ছিল জোরালো অবস্থান।

তবে আন্দোলনের অনেক নেতাদেরকেই জেলা আওয়ামী লীগের কমিটিতে স্থান দেওয়া হয়নি যা নিয়ে তৈরি হয়েছে নানা প্রশ্নের। কিন্তু আগামীতে বিএনপি যে আন্দোলনের কথা বলছে সেটা ঠেকাতে হলে শামীম ওসমান ও বাবুকেই প্রয়োজন বেশী হবে এমনটাই মনে করা হচ্ছে।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

রাজনীতি -এর সর্বশেষ