১ শ্রাবণ ১৪২৫, মঙ্গলবার ১৭ জুলাই ২০১৮ , ১১:৫৬ পূর্বাহ্ণ

‘মাত্র তো গর্জন কামড় দিলে টিকবেন না’


স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৮:২৮ পিএম, ৬ এপ্রিল ২০১৮ শুক্রবার | আপডেট: ০৮:২২ পিএম, ৮ এপ্রিল ২০১৮ রবিবার


‘মাত্র তো গর্জন কামড় দিলে টিকবেন না’

বাংলাদেশ হেফাজত ইসলামের আমীর আল্লামা আহমদ শফি ও নারায়ণগঞ্জ জেলা আমীর মাওলানা আব্দুল আউয়ালের বিরুদ্ধে সুন্নী জামাতের নেতাদের বক্তব্যের প্রতিবাদে সমাবেশ থেকে কঠোর হুশিয়ারী দেওয়া হয়েছে। তারা বলেছেন, ভবিষ্যতে আবারও এ ধরনের বক্তব্য ও উস্কানি দিলে তৌহিদী জনতা আর ঘরে বসে থাকবে না। নারায়ণগঞ্জ তো অচল করে দেওয়া হবে সঙ্গে জানান দেওয়া হবে হকের শক্তি।

শুক্রবার ৬ এপ্রিল দুপুরে জুমআর নামাজের পর ডিআইটি জামে মসজিদের সামনে থেকে জেলা জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম ও নারায়ণগঞ্জ মহানগর ইসলামী আন্দোলন পৃথক ব্যানারে একত্রে মিছিল ও সমাবেশ করে।

হেফাজত ও জমিয়ত নেতা মাওলানা ফেরদাউসুর রহমান বলেন, নারায়ণগঞ্জের তৌহিদী জনতা এখনো চুপ করে আছে। আমরা শুধু গর্জন দিয়েছি। যখন কামড় দিব তখন কেউ রক্ষা পাবেন না। সুতরাং সাপের লেজে পা দিবেন না। আগুন নিয়ে খেলবেন না। নারায়ণগঞ্জের তৌহিদী জনতা মাত্র ১ঘণ্টার সময় পেলে অচল করে দিবে যা ইতোপূর্বে দেখেছেন। নারায়ণগঞ্জ তখন টিকবে না।

উপস্থিতি ছিলেন মাওলানা আব্দুল কাদির, মাসুম বিল্লাহ, হারুনুর রশিদ, কামালউদ্দিন দায়েমি, আনিস আনসারী, দেলোয়ার হোসাইন প্রমুখ।

বক্তারা আরো বলেন, ‘আমরা যদি প্রোগ্রাম দিয়ে রাস্তায় নামি তাহলে নারায়ণগঞ্জ শহর অচল হয়ে যাবে। এক শ্রেণির ওলামা নামের কলঙ্ক যারা হয়রানী ওলামাদের নামে নানা কুরুচিপূর্ণ কথা বলছে। একজন প্রকৃত মুসলাম হলে সে কিছুতেই অন্য মুসলমানকে গালি দিতে পারেনা। আপনারা প্রকৃত মুসলমান না। আপনারা ইহুদি, খ্রিষ্টানের এজেন্ট হয়ে মুসলামানদের মধ্যে ঐক্য নষ্ট করতে চাইছেন। মুসলমানদের মধ্যে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করছে। এদিকে এক ভন্ড আছে বাহাদুর শাহ। আর অন্যদিকে আছে এনায়েত উল্লাহ আব্বাসী যে রেলওয়ের ১৮২ শতাংশ জায়গা দখল ভোগ দখল করছে। আরেক ভন্ড রয়েছে বন্দরের তামিম বিল্লাহ। এসব ভন্ডদের অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবি জানাচ্ছি।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

রাজনীতি -এর সর্বশেষ