ভেতরে ভেতরে নির্বাচনের প্রস্তুতি নারায়ণগঞ্জ বিএনপির

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:১৩ পিএম, ১৬ এপ্রিল ২০১৮ সোমবার



ভেতরে ভেতরে নির্বাচনের প্রস্তুতি নারায়ণগঞ্জ বিএনপির

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার কারামুক্ত অবস্থা ছাড়া নির্বাচনে না যাওয়ার হুঙ্কার বিএনপির। এর আগে ২০১৪ সালে ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের আগে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবিতে তাদের আন্দোলনে ব্যাপক জ্বালাও-পোড়াও হয়। অনেকটা ‘গো’ ধরে সে নির্বাচন বয়কটও করে ফেলে দলটি। যার ফলে এরপর থেকে তারা হারিয়েছে প্রধান বিরোধী দলের তকমা, সংসদের বাইরে থেকে হারিয়েছে কথা বলার সাংবিধানিক প্লাটফর্মও। এতে জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে অনেকটা কোণঠাসা অবস্থা বিএনপির। দলের নেতাকর্মীদের সমন্বয়হীনতা আর বিচ্ছিন্নতায় দৃশ্যমান অস্তিত্ব সংকটে তারা।

বিএনপি নেতাদের প্রকাশ্য এমন কথা-বার্তা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনে নির্বাচনে না যাওয়ার হুঙ্কার হলেও ভেতরে ভেতরে ঠিকই নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছে বিএনপির হাইকমান্ড। সেই আলোকে নারায়ণগঞ্জেও জেলা ও মহানগর বিএনপিতেও চলছে প্রস্তুতি। এছাড়া এবার নারায়ণগঞ্জে বিএনপির জেলা ও মহানগর কমিটিও গঠন করা হয়েছে সেই আলোকেই। যদিও কৌশলগত কারণে কেন্দ্রীয় বিএনপির সঙ্গে নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর বিএনপির নেতারা একই সূরে কথা বলছেন তবে তারা ভেতরে ভেতরে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন। কেন্দ্রীয় বিএনপি যেমন নির্বাচনে কাদের প্রার্থী করা হবে, কোন এলাকায় জেতার জন্য কি ধরনের তৎপরতা, প্রার্থী প্রয়োজন সেসব নিয়ে আলোচনা করছেন তেমনি নারায়ণগঞ্জেও বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীরা তাদের আদলে নির্বাচনী এলাকা সাজানোয় তৎপর রয়েছেন। তারা ইতিমধ্যে বাড়িয়েছের নেতাকর্মীদের মধ্যে যোগাযোগ, সাংগঠনিক তৎপরতা।

এ বিষয়ে নাম প্রকাশ না করার শর্তে কয়েকজন বিএনপি নেতা বলেন, আমরা নির্বাচনমুখী একটি দল। নির্বাচনের মাধ্যমেই ক্ষমতার পরিবর্তন চাই। সে কারণে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছে।

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপির ভেতরে দুই ধরনের প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। সরাসরি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান যদি নির্বাচনে অংশ নিতে পারে তাহলে এক ধরনের ফরম্যাটে হবে নির্বাচনে মনোনয়ন। যদিও দলের ভেতরেই একটি গ্রুপ মনে করছেন মামলা সংক্রান্ত কারণে আগামী এ দুইজন নির্বাচনে অযোগ্য থাকলে বিগত সংসদ নির্বাচনের মত জাতীয় পার্টির মত বিএনপির একটি অংশ সমঝোতায় ভোটে যাবে। তখন ভোটের ফরম্যাট হবে ভিন্ন।

গত বছরের ১৩ ফেব্রুয়ারী সাবেক এমপি আবুল কালামকে সভাপতি ও এটিএম কামালকে সেক্রেটারী করে মহানগর বিএনপির ২৩সদস্য এবং জেলা বিএনপির বিলুপ্ত কমিটির সেক্রেটারী কাজী মনিরুজ্জামানকে সভাপতি ও মামুন মাহমুদকে সেক্রেটারী করে ২৬ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়। তখন কেন্দ্রীয় নেতারাও জানিয়েছিলেন এ কমিটি হলো নির্বাচন কেন্দ্রীক কমিটি। সে কারণেই মহানগরের কমিটিতে সিদ্ধিরগঞ্জ থানাকে রাখা হয়নি। সিদ্ধিরগঞ্জকে রাখা হয়েছে জেলা কমিটিতে।

বিএনপির একাধিক সূত্র জানান, মহানগর ও জেলা বিএনপির কমিটি গঠন করা হলেও এর পেছনেও রয়েছে ঘটনা। এ কমিটি নির্বাচনকেন্দ্রীক হলেও আদৌ সেটা হচ্ছে না। এজন্য দুটি ফর্মূলা রয়েছে।

খালেদা জিয়া ও তারেক রহমান নির্বাচনে অংশ নিলে নারায়ণগঞ্জের ৫টি আসনে হবে মনোনয়নের ভিন্ন চিত্র। সে ক্ষেত্রে নারায়ণগঞ্জ-১ তথা রূপগঞ্জ আসনে বিএনপির মনোনয়ন জুটতে পারে দলের কেন্দ্রীয় ও জেলা কমিটির সদস মোস্তাফিজুর রহমান ভূইয়া দিপুর কিংবা বিএনপি চেয়ারপারনের উপদেষ্টা তৈমূর আলম খন্দকারের কপালে। নারায়ণগঞ্জ-২ তথা আড়াইহাজার আসনে পেতে পারেন দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক নজরুল ইসলাম আজাদের। নারায়ণগঞ্জ-৩ তথা সোনারগাঁও আসনে মনোনয়ন পেতে পারেন জেলা বিএনপির সদস্য আজহারুল ইসলাম মান্নান। নারায়ণগঞ্জ-৪ (ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ) আসনে সাবেক এমপি গিয়াসউদ্দিন ও নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনে মহানগর বিএনপির সহ সভাপতি সাখাওয়াতক হোসেন খানের।

খালেদা জিয়া ও তারেক রহমান নির্বাচনে অযোগ্য থাকলেও একটি অংশ নিবে ভোটে। এজন্য বিএনপির একটি গ্রুপ ইতোমধ্যে কাজ শুরু করেছে। সে হিসেবেই এখন থেকেই প্রস্তুতিও চলছে। দলের একাধিক সূত্র জানান, নারায়ণগঞ্জকে বিশেষ গুরুত্ব দিয়েই এগুচ্ছে বিএনপির দলটি। নির্বাচনে বিএনপিও চাচ্ছে সরকারের সঙ্গে সমঝোতা করে আসন ভাগাভাগি করতে। তখন এ জেলা হতে অন্তত দুটি আসন চাইবে বিএনপি। ফর্মূলা-২ অনুযায়ী নারায়ণগঞ্জ-১ আসনে বিএনপির মনোনয়ন জুটতে পারে কাজী মনিরুজ্জামানের। নারায়ণগঞ্জ-২ আসনে সাবেক এমপি ও ওয়ান এলেভেনের পর সংস্কারবাদী নেতা আতাউর রহমান খান আঙ্গুর মনোনয়ন পেতে পারেন তখন। নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনে সাবেক এমপি রেজাউল করীম, নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনে শাহআলম ও নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনে আবুল কালাম পেতে পারেন মনোনয়ন।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও