১০ আষাঢ় ১৪২৫, রবিবার ২৪ জুন ২০১৮ , ১০:৫৫ অপরাহ্ণ

শুরু হচ্ছে ভোটের রাজনীতি


স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৮:৪২ পিএম, ২৪ মে ২০১৮ বৃহস্পতিবার | আপডেট: ০৪:৪৭ পিএম, ২৬ মে ২০১৮ শনিবার


শুরু হচ্ছে ভোটের রাজনীতি

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে চলতি রোজা হচ্ছে শেষ রোজা। কারণ এ বছরের শেষে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোট হওয়ার কথা। আর নির্বাচনের আগে সাধারণত রোজা ও শেষে ঈদকে কেন্দ্র করে খুব ব্যস্ত হয়ে উঠেন রাজনীতিকেরা। বিগত বছরগুলোতে এ ব্যস্ততা ছিল চোখে পড়ার মত। এ অবস্থায় এবারের রোজাও বেশ বড় একটি উপলক্ষ হয়ে উঠছে রাজনীতিকদের জন্য। কারণ রোজার মধ্যে নানাবিদ কর্মকান্ড করে মূলত আলোচনা ও মানুষের কাছে যাওয়ার একটি প্রাণান্তর চেষ্টা করা হয়।

বেশ কয়েকজন রাজনীতিক জানান, তারা এবার রোজার মধ্যে বেশ কিছু ইফতার পার্টি করে নেতাকর্মীদের কারো কাছে টেনে নেওয়ার কাজটি করবেন। সেই সঙ্গে অসহায়দের মধ্যে ঈদের আগে ঈদ সামগ্রী বিতরণ, যাকাত প্রদানের কাজটিও সারবেন। কারণ আগামী ভোটের আগে এটা একটি বড় কাজ। আর এ ঈদ ও রোজা হচ্ছে রাজনীতির জায়গা থেকে নিজেকে মেলে ধরার একটি উপযুক্ত সময়।

একজন মনোনয়ন প্রত্যাশী জানান, তিনি এ রোজার মধ্যে অন্তত ২০টি ইফতার পার্টি করবেন বিভিন্ন এলাকাতে। ইফতার পার্টির আড়ালে মূলত অনুগামী নেতাকর্মীদের একত্রিত করার প্রয়াসটুকু করা হবে।

রাজনীতিক সংশ্লিষ্টদের মতে আগামী ১০ রোজার পর থেকেই মহাব্যস্ত হয়ে উঠবেন বর্তমানে জেলার সংসদীয় আসনের এমপি, মনোনয়ন প্রত্যাশী থেকে শুরু করে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা।

নারায়ণগঞ্জ-১ তথা রূপগঞ্জ আসনে বিএনপির নেতাদের মধ্যে জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি ও চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা তৈমূর আলম খন্দকার, জেলা কমিটির সভাপতি কাজী মনিরুজ্জামান ও কেন্দ্রীয় সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান ভূইয়া দিপু। তাদের মধ্যে তরুণদের প্রথম পছন্দের দিপু ভূইয়া। এ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের মধ্যে বর্তমান এমপি গোলাম দস্তগীর গাজী, বাংলাদেশ সেক্টর কমান্ডার ফোরামের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বাংলার প্রথম সেনাপ্রধান ও সাবেক এমপি মেজর জেনারেল (অব.) কেএম সফিউল্লাহ (বীর উত্তম), নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও রূপগঞ্জের সন্তান আব্দুল হাই, রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহজাহান ভুঁইয়া, আওয়ামী লীগ নেতা মেজর মশিউর বাবুল, কায়েতপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম এবারের রোজা ও ঈদে নানা কর্মসূচী নিয়ে আসছেন।

নারায়ণগঞ্জ-২ তথা আড়াইহাজার আসনে বর্তমান এমপি নজরুল ইসলাম বাবু, কেন্দ্রীয় যুবলীগের তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইকবাল পারভেজ আসছেন অনেক প্রোগ্রাম নিয়ে। তাদের মধ্যে পারভেজ সংসদীয় আসনের বেশ কয়েকটি এলাকাতে ইফতার পার্টি করতে যাচ্ছেন। বিএনপির প্রার্থীদের মধ্যে যদি সরকার দলের বাধা না আসে তাহলে বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক নজরুল ইসলাম আজাদ বেশ কয়েকটি ইফতার পার্টি করবেন।

নারায়ণগঞ্জ-৩ তথা সোনারগাঁও আসনে বর্তমানে জাতীয় পার্টির এমপি লিয়াকত হোসেন খোকা, আওয়ামী লীগের সাবেক এমপি আবদুল্লাহ আল কায়সার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সেক্রেটারী মাহফুজুর রহমান কালাম ইফতার পার্টি সহ অনুদান প্রদানের বিভিন্ন কর্মসূচী নিয়ে আসছেন। একই ধরনের কাজ করতে যাচ্ছেন এ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী উপজেলা বিএনপির সেক্রেটারী আজহারুল ইসলাম মান্নান।

নারায়ণগঞ্জ-৪ (ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ) আসনের বর্তমান এমপি শামীম ওসমানও নিজ আসনের সবগুলো ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগি সংগঠনের ইফতার অনুষ্ঠানে যোগ দিতে পারেন। এছাড়া অসহায়দের মধ্যেও বস্ত্র বিতরণ করা হতে পারে তাঁর উদ্যোগে। গতবারের মতই সরব থাকতে চাচ্ছেন এ আসনে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে জেলা বিএনপির সহ সভাপতি শাহআলম ও কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য গিয়াসউদ্দিন।

নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনে বর্তমান এমপি সেলিম ওসমান প্রত্যেক বছর কয়েক হাজার মানুষকে বস্ত্র ও ঈদ সামগ্রী বিতরণ করেন। এবারও তিনি সেটা করতে যাচ্ছেন। সেই সঙ্গে এ আসনে জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সুফিয়ান, মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জিএম আরাফাতও ইফতার পার্টি কয়েকটি আয়োজন করে নেতাকর্মীদের চাঙ্গা রাখতে চাচ্ছেন। এ আসনে বিএনপির প্রার্থী মহানগর বিএনপির সহ সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন খানও ইফতার পার্টির উদ্যোগ নিয়েছেন। কারাগারে থাকলেও মহানগর যুবদলের আহবায়ক ১৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাকছুদুল আলম খন্দকার খোরশেদের পক্ষেও চলবে নানা আয়োজন।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

রাজনীতি -এর সর্বশেষ