৫ কার্তিক ১৪২৫, রবিবার ২১ অক্টোবর ২০১৮ , ৮:৪৯ পূর্বাহ্ণ

UMo

স্বপ্নভঙ্গ হচ্ছে নারায়ণগঞ্জের তিনটি আসনের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের!


স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৮:০৮ পিএম, ৪ জুন ২০১৮ সোমবার


স্বপ্নভঙ্গ হচ্ছে নারায়ণগঞ্জের তিনটি আসনের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের!

আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সারাদেশেই তোড়জোড় প্রস্তুতি চলছে। তারই ধারাবাহিকতায় নারায়ণগঞ্জেও প্রস্তুতি চলছে। ইতোমধ্যে নারায়ণগঞ্জের ৩ টি আসনের প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়েছে বলে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদও প্রকাশিত হয়েছে। ফলে স্বপ্ন ভঙ্গ হয়েছে ওই তিন আসনের মনোনয়নপ্রত্যাশী প্রার্থীদের।

বিভিন্ন গণমাধ্যম ও দলীয় সূত্রে জানা যায়, আগামী একাদশ জাতায় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে নারায়ণগঞ্জের তিনটি আসনে প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়েছে। এই তিনটি আসন হলো নারায়ণগঞ্জ-১, নারায়ণগঞ্জ-২ ও নারায়ণগঞ্জ-৪। এর মধ্যে নারায়ণগঞ্জ-১ আসনে গোলাম দস্তগীর গাজী, নারায়ণগঞ্জ-২ আসনে নজরুল ইসলাম বাবু ও নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনে শামীম ওসমানের নাম প্রাথমিকভাবে চূড়ান্ত করা হয়েছে। যার ফলে এই তিনটি আসনে যারা মনোনয়ন স্বপ্নে বিভোর ছিলেন তাদের কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে।

নারায়ণগঞ্জ-১ (রূপগঞ্জ) আসনে মনোনয়নপ্রত্যাশী প্রার্থী তালিকায় ছিলেন বর্তমান এমপি গাজী গ্রুপের চেয়ারম্যান গাজী গোলাম দস্তগীর (বীরপ্রতীক), সাবেক সেনাপ্রধান ও সাবেক এমপি কে এম সফিউল্লাহ, রূপগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান ভূঁইয়া এবং কায়েতপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও রংধনু গ্রুপের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রফিক। এদের মধ্যে শক্তিশালী অবস্থানে ছিলেন কায়েতপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রফিক। গোলাম দস্তগীর গাজী লোকজনদের বিতর্কিত কর্মকান্ডের সুযোগ নিয়ে রফিক সংসদীয় এলাকার সকল নেতাকর্মীকে তার দলে ভিড়িয়েছিলেন। এমনকি নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতিসহ কয়েকজন প্রভাবশালী এমপিকেও নিজের করায়ত্ব করে নিয়েছিলেন। কিন্তু সকল জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে মনোনয়নের পাল্লা গোলাম দস্তগীর গাজীর দিকেই ঝুঁকতে শুরু করছে।

এদিকে নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের মনোনয়নপ্রত্যাশী প্রার্থীদের তালিকায় ছিলেন ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান এমপি নজরুল ইসলাম বাবু ও জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইকবাল পারভেজ। মনোনয়ন ইস্যূতে এই দুই জনের মধ্যে প্রায় সময় প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে দ্বন্দ্ব লেগেই থাকে। এমপি বাবুর বিরুদ্ধে রয়েছে একক প্রভাব বিস্তারের অভিযোগ। এছাড়াও বিরোধী দল বিএনপিকেও তিনি ঠাঁই দেননি। উপজেলা পরিষদ, পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের প্রার্থীদের জয় ছিনিয়ে এনেছিলেন তিনি। এদিকে ইকবাল পারভেজের বিরুদ্ধে রয়েছে অনিয়ম ও দুর্নীতি করে প্রায় শত কোটি টাকার মালিক বনে যাওয়ার অভিযোগ। ইতোমধ্যে তার বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) প্রায় অর্ধশতাধিক অভিযোগ জমা পড়েছে।

দুদক সূত্র জানায়, ২ কোটি ৬২ লাখ ৫০ হাজার ৬০২ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে ইকবাল পারভেজ চৌধুরীকে গ্রেফতার করেন দুদক উপ-পরিচালক নাসির উদ্দিন। তার বিরুদ্ধে রাজধানীর ওয়ারী থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। এছাড়াও রাজধানীর বিভিন্ন থানায় প্রায় ডজনখানেক মামলা রয়েছে তার নামে।

সর্বশেষ গত ১৬ মে নারায়ণগঞ্জ জেলা আওময়ামীলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সাথে প্রধানন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ করে এলাকায় প্রচার করা হয় ইকবাল পারভেজের কর্মকান্ডে দলীয় প্রধান তার প্রতি সন্তুষ্ট হয়েছেন। তবে এ ব্যাপারে দ্বিমত পোষণ করেছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হাই। তাদের বক্তব্য হচ্ছে ইকবাল পারভেজের সাথে মনোনয়ন কিংবা অন্য কোন বিষয়ে কথা বলার সময় হয়নি প্রধানমন্ত্রীর। নজরুল ইসলাম বাবুর মনোনয়ন নিশ্চিতের খররে ভাঁজ পড়েছে ইকবাল পারভেজের কপালে।

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের তালিকায় আছেন বর্তমান সাংসদ ও আওয়ামীলীগের প্রভাবশালী এমপি শামীম ওসমান, কেন্দ্রীয় শ্রমিকলীগের শ্রম ও কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক কাউসার আহমেদ পলাশ ও কামাল মৃধা। এদের মধ্যে কামাল মৃধা নেতাকর্মীদের কাছে ডামি প্রার্থী হিসেবে পরিচিত। সংসদীয় এলাকায় তার কোন অবস্থান নেই। বিভিন্ন ইস্যূ নিয়ে আলোচনায় আসতে চাইলেও জনগণ তার ডাকে সাড়া দেয়নি। এদিকে কাউসার আহমেদ পলাশের বিরুদ্ধে রয়েছে ব্যাপক চাঁদাবাজির অভিযোগ। তার অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে অনেক গার্মেন্টস মালিক নারায়ণগঞ্জ ছাড়া হয়েছেন। সাম্প্রতিক সময়ে সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলা ও চামড়া তুলে ফেলার হুমকি দিয়ে ব্যাপক সমলোচনার মুখোমুখি হন তিনি।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

রাজনীতি -এর সর্বশেষ