২ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫, শুক্রবার ১৬ নভেম্বর ২০১৮ , ১২:১৪ অপরাহ্ণ

rabbhaban

ইভিএম নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া ক্ষমতাসীনদের শরিকেরা


স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৯:৫৪ পিএম, ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮ শনিবার


বা থেকে অাবুল জাহের, অাকরাম অালী শাহীন ও হিমাংশু সাহা।

বা থেকে অাবুল জাহের, অাকরাম অালী শাহীন ও হিমাংশু সাহা।

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহারে মিশ্র অবস্থানে দাঁড়িয়েছে সরকারি দলের শরিক দলগুলো। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের গুরুত্বপূর্ণ শরিকরা বলছেন, ইভিএমের মাধ্যমে ভোট গ্রহণ মানুষের মাঝে বিতর্ক তৈরী করতে পারে। একই সাথে সরকারের শরিক ও সংসদের প্রধান বিরোধীদল জাতীয় পার্টির নেতা কর্মীরাও এ নিয়ে একমত হতে পারছেন না। ফলে ইভিএম নিয়ে খুব শ্রীঘ্রই বড় ধরনের মত পার্থক্যের মুখোমুখি হতে যাচ্ছে নির্বাচন কমিশন।

মহাজোটের অন্যতম শরীক দল জাতীয় পার্টির নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটির জেলা সভাপতি আবুল জাহের নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ইভিএম সম্পর্কে আগে জনগণকে বোঝাতে হবে। যদি না বোঝানো হয় তাহলে কেউই প্রথমে এর ব্যবহার সম্পর্কে কিছুই বুঝবে না। তবে বিএনপির ভোট চুরির অভিযোগ ও শঙ্কা উড়িয়ে দিয়ে বলেন, ইভিএমে যদি ভোট চুরি হয় তাহলে সিলেটে তো তারাই জয়লাভ করলো। সেখানে অনেক কেন্দ্রে ইভিএম এ ভোটিং হয়েছে। সুতরাং বলা যায় জাতীয় পার্টি ইভিএম এ আস্থা রাখছে।

তবে একই প্রসঙ্গে কিছুটা ভিন্ন সুরে বললেন জাতীয় পার্টির মহানগর সভাপতি আকরাম আলী শাহীন। ইভিএম ব্যবহার প্রসঙ্গে তিনি নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, আমাদের চেয়ারম্যান সাহেব (হুসাইন মুহাম্মদ এরশাদ) তার বক্তব্যে বলেছেন ইভিএম নিয়ে আরো পরীক্ষা নিরীক্ষার প্রয়োজন রয়েছে। পরীক্ষার ফলাফল যদি সন্তোষ জনক হয় তাহলে আমরা চূড়ান্ত মতামত প্রকাশ করবো।

ইভিএমের বিতর্কের ব্যাপারে তিনি বলেন, দেশ ইতিমধ্যে অনেক এগিয়েছে। ডিজিটাল যুগে যদি ডিজিটাল গ্রহণে অস্বীকার করি তাহলে পুরো যুগকেই অস্বীকার করা হয়। আমাদের বক্তব্য হচ্ছে যদি ইভিএমে সমস্যা থাকে সেগুলো চিহ্নিত করা হোক। তারপর সেগুলো শুধরে নিয়ে বিকল্প ব্যবস্থা গ্রহণ করুক। তবে আমরা এখনো ইভিএম এর পক্ষেও নই বিপক্ষেও নই।

জোটের অপর শরিক দল বাংলাদেশ ওয়ার্কাস পার্টির নারায়ণগঞ্জ জেলার সাধারণ সম্পাদক হিমাংশু সাহা নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, বাংলাদেশে বর্তমানে ১০০ শতাংশ ইভিএম এর মাধ্যমে ভোট গ্রহনের বাস্তবতা নেই বলেই আমরা মনেকরি। তবে সরকার ১০০ আসনে যে ইভিএম প্রকল্প হাতে নিয়েছে তা আমরা সমর্থন করছি।

তবে ইভিএম নিয়ে যে বিতর্ক হবে তা স্বীকার করে তিনি বলেন, ইভিএম নতুন এই দেশে, কিছুটা শঙ্কা তো থাকেই। তবে বাস্তবতা হচ্ছে যেহেতু ইভিএম এখনো প্রক্রিয়াধীন তাই আমরা পজেটিভলি গ্রহণ করছি। আমাদের দেশে প্রথমেই নতুন কিছু গ্রহনে জটিলতা লক্ষ করা যায়। আমরা এর ফলাফল দেখতে চাই, দেখা যাক আউটপুট কি আসে।

তবে নির্বাচন নিয়ে বিতর্ক এড়াতে লেভেল পে¬ইং ফিল্ড সমান করার উপদেশ দেন। তিনি বলেন, আমাদের দেশে এখনো ব্যালট চুরি, ভোট কেন্দ্র দখল, হামলা এগুলো হচ্ছে। অস্বীকার করার উপায় নেই, তবে এগুলো ঠেকাতে জোরালো ভূমিকা নিতে হবে সরকারকে। আমাদের ফলাফল না মেনে নেয়ার সংস্কৃতি অনেক দিন ধরেই চলে আসছে সেগুলোও সংস্কার করা প্রয়োজন।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

রাজনীতি -এর সর্বশেষ