রনিকে ফিরিয়ে দিতে চোখের জলে পরিবারের আকুতি (ভিডিও)

সিটি করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:২০ পিএম, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮ রবিবার



রনিকে ফিরিয়ে দিতে চোখের জলে পরিবারের আকুতি (ভিডিও)

নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মশিউর রহমান রনিকে ফিরে দেওয়ার আকুতি জানিয়েছে তার স্বজনেরা। তারা বলেন, অপরাধী হলে আদালতে সোপর্দ করুন না হয় আমাদের সন্তান আমাদেরকে ফিরিয়ে দিন।

১৬ সেপ্টেম্বর রোববার বিকেলে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের হানিফ খান মিলনায়তনে পরিবারের পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলনে এ আহবান জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহ সভাপতি অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন, নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সহ সভাপতি আবুল কালাম আজাদ বিশ্বাস, নিখোঁজ রনির খালা রাশেদা আক্তার কান্না, রনির খালা জাহানারা বেগম, মামাতো ভাই জাহাঙ্গীর আলম প্রধান, মামাতো বোন ডলি আক্তার, বড় ভাই শেখ মো. আবু সাঈদ রুবেল, ছোট ভাই মহিবুর রহমান রানা, ভাবী সানজিদা ইসলাম।

লিখিত বক্তব্য পাঠ করে রনির ছোট ভাই মহিবুর রহমান রানা জানান, তাঁর ছোট ভাই মো. মশিউর রহমান রনি (৩০) গত ১৫ সেপ্টেম্বর সকাল ১০টায় পারিবারিক কাজে ঢাকা যায়। আর রাত পর্যন্ত ফিরে আসেনি। তবে রাত সাড়ে ১০টায় অজ্ঞাত এক ব্যক্তি ঢাকা থেকে টেলিফোনে জানায় যে এমাত্র একটি কালো মাইক্রোবাসে করে কয়েকজন সাদা পোষাকধারী নিজেদের ডিবি পুলিশ পরিচয়ে আমার ভাই মশিউর রহমান রনিকে মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যায়। এর পর থেকে নিখোঁজ রয়েছে রনি।

তিনি জানান, বাবা, মা ও বোন হজ পালনের জন্য সৌদি আরব রয়েছে। তাই স্বজনদের নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন। এছাড়াও বিকেল ৩ টায় পুলিশ সুপারে কাছে লিখিত অভিযোগ দিতে গেলে তাদের দেখা করার সুযোগ দেয়া হয়নি। শুধু তাই নয় নিখোঁজের বিষয়ে ফতুল্লা থানায় অভিযোগ দিতে গেলে সেখানেও অভিযোগ গ্রহণ করেনি।

তিনি বলেন, নিখোঁজ হওয়ার পর থেকেই আমরা রনির খোঁজে প্রথমে ফতুল্লা থানায় পরবর্তীতে ঢাকার মিন্টু রোডের ডিবি কার্যালয়ে যাই। কিন্তু সেখানে কেউ আটক নেই বলে জানান।

মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহ সভাপতি অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খান বলেন, মশিউর রহমান রনি বিরোধী দলের রাজনীতি করে এজন্য হয়তো পুলিশ গ্রেফতার করতে পারে। এ জন্য যদি তাকে গ্রেফতার করা হয় তাহলে আদালতে সোপর্দ করা হোক। এছাড়া কোন অপরাধ ছাড়া তাকে আটক করা হয় তাহলে তাকে তার পরিবারের কাছে ফেরত অক্ষত অবস্থায় ফেরত দেওয়া হোক।

শামীম ওসমানের বিরুদ্ধে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়ার বিষয়ে নিখোঁজ হয়েছে কিনা জানতে চাইলে সাখাওয়াত হোসেন খান জানান, কোন কারণে গ্রেফতার হয়েছে এটা আমরা সুনির্দিষ্ট ভাবে বলতে পারছি না। আমরা কারো বিরুদ্ধে অভিযোগ দিতে চাই না। আর এটা খোঁজে বের করার দায়িত্ব পুলিশের। বাংলাদেশের একজন নাগরিক হিসেবে রনিকে উদ্ধারে পুলিশ যে তদারকি করা প্রয়োজন এখনও পর্যন্ত কিছুই করছে না। আমরা চাই রনিকে পরিবার কাছে ফেরত দেওয়া হোক। আর তার বিরুদ্ধে অভিযোগ থাকলে আদালতে সোপর্দ করা হোক।

রনির বিভিন্ন মামলার আইনজীবী আবুল কালাম আজাদ বিশ্বাস বলেন, সম্প্রতি সময়ে রনির বিরুদ্ধে সদর থানা ও ফতুল্লা থানায় দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এছাড়াও ১১টি মামলা রয়েছে। যার মধ্যে কয়েকটি জামিনে আছে আর কয়েকটিতে জামিন নেয়নি।

তিনি আরো বলেন, প্রত্যেকটি মামলায় পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করেছে। অভিযোগ করা হয়েছে, সরকার বিরোধী ষড়যন্ত্র ও পুলিশের কাজে বাধা দেওয়া। এতেই বুঝা যায় সব মামলা রাজনৈতিক। আর সবগুলো মামলায়ও একই অভিযোগ।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও