৬ কার্তিক ১৪২৫, রবিবার ২১ অক্টোবর ২০১৮ , ৯:৪৬ অপরাহ্ণ

UMo

চূড়ান্ত তালিকায় ৩ এমপি, নাখোশ অন্যরা


স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৮:৪১ পিএম, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮ বুধবার


চূড়ান্ত তালিকায় ৩ এমপি, নাখোশ অন্যরা

জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে দলের সার্বিক প্রস্তুতির কাজ গুছিয়ে এনেছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামীলীগ। ইতোমধ্যে নির্বাচনে ১৭৪ আসনের জন্য দলের সম্ভাব্য প্রার্থীও চূড়ান্ত করা হয়েছে এমন খবর আসছে বিভিন্ন গণমাধ্যমে। আওয়ামী লীগের নীতি নির্ধারনী পর্যায় থেকে ওইসব আসনে সম্ভব্য দলীয় প্রার্থীদের নির্বাচনী মাঠ গোছানোর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

অপরদিকে চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশের পরেই নাখোশ দেখা গেছে অন্যান্য প্রার্থীদের। বার বার প্রতীক যাকেই প্রদান করা হোক তার পক্ষ হয়ে কাজ করার ঘোষণা দিলেও তা কার্যত দেখা যাচ্ছে না।

২৫ সেপ্টেম্বর প্রভাবশালী জাতীয় দৈনিক যুগান্তরে প্রকাশিত হওয়া “আওয়ামী লীগের ১৭৪ প্রার্থী চূড়ান্ত” প্রতিবেদনে এমনটি দাবি করা হয়। প্রার্থীদের ভেতর নারায়ণগঞ্জ-১ আসনে গোলাম দস্তগীর গাজী, নারায়ণগঞ্জ -২ আসনে নজরুল ইসলাম বাবু ও নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনে শামীম ওসমানের মনোনায়ন প্রায় নিশ্চিত করা হয়েছে। তবে নারায়ণগঞ্জ-৩ ও ৫ আসনে জোটগত প্রার্থী দেয়ায় তা এখনো দোদুল্যমান অবস্থায় রয়েছে।

এর আগে গত ১২ সেপ্টেম্বর জাতীয় দৈনিক কালের কণ্ঠ পত্রিকায় আওয়ামীলীগের ৬৭ জন এমপির ছবি সহ তালিকা প্রকাশ পায়। ওই তালিকায় নারায়ণগঞ্জে দুটি আসনের জন্য দুইজনের ছবি সহ নাম প্রকাশ করা হয়। এর মধ্যে একজন হলে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান ও নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু। তবে এ তালিকায় ছিলেন না নারায়ণগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য গোলাম দস্তগীর গাজী।

ওই প্রতিবেদন প্রকাশিত হবার পর মনোনায়ন প্রত্যাশীদের অনেকেই এর বিরোধীতা করে নিউজটিকে ভিত্তিহীন বলে আখ্যায়িত করে। তবে পর পর ২টি জাতীয় পত্রিকায় একই প্রার্থীর নাম প্রকাশিত হওয়ায় এসকল আসনে ৩ প্রার্থীর মনোনায়ন যে প্রায় চূড়ান্ত তা নিশ্চিত করেই বলা যায়। তাদের পাশেই ধীরে ধীরে সংগঠিত হতে শুরু করেছেন নেতাকর্মীরা। একই সাথে এমপিরা ইতোমধ্যে নিজ নিজ এলাকায় নেমেছেন প্রচার প্রচারণায়।

তবে জোটগত ভাবে নির্বাচন হলে পুরো ৫টি আসনেই আবারো প্রার্থী হতে যাচ্ছেন গত ইলেকশনে নির্বাচিত এমপিরা। জাতীয় পার্টি থেকেও সাংসদ লিয়াকত হোসেন খোকা এবং সেলিম ওসমানের মনোনায়ন পাবার সম্ভাবনা ব্যাপক। উভয়েই জাতীয় পার্টিতে বেশ পরিচিত মুখ এবং নেতাকর্মীদের কাছে জনপ্রিয়। ফলে নারায়ণগঞ্জে মহাজোটের মনোনায়নে নতুন চমক দেখার খুব একটা সম্ভাবনা নেই বললেই চলে।

এদিকে সংবাদ প্রকাশিত হবার পরেই দেখা গেছে প্রকাশ্য বিরোধ। রূপগঞ্জ আসনের সংসদ সদস্য গোলাম দস্তগীর গাজীর বিরুদ্ধে একাট্টা হয়ে গণসংযোগ করেন রূপগঞ্জ আওয়ামীলীগের শীর্ষ নেতারা। এসময় একই কাতারে ছিলেন আরেক মনোনায়ন প্রত্যাশী জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ আব্দুল হাই, সাবেক এমপি এম সফিউল¬াহ বীর উত্তম, জেলা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক এম এ রাসেল, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান শাহজাহান ভূইয়া, সিনিয়র সহ সভাপতি আবুল বাশার টুকু সহ আরো অনেকে।

তবে নারায়ণগঞ্জ -২ ও ৪ আসনের অপর প্রার্থীদের ভেতরে চাপা ক্ষোভ থাকলেও তা প্রকাশ করতে দেখা যায় নি। প্রকাশ্য বিরোধে না গেলেও কিছুটা প্রভাব নির্বাচনী মাঠে পরবে এবং কোথাও কোথাও প্রকাশ্য দ্বন্দেও জড়িয়ে যেঁতে পারে।

rabbhaban

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

রাজনীতি -এর সর্বশেষ