এমপির কার্যালয়ের সামনে ককটেল বিস্ফোরণ, ৭ ককটেল সহ গ্রেফতার ৩

সোনারগাঁ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৫:২৬ পিএম, ১০ অক্টোবর ২০১৮ বুধবার



এমপির কার্যালয়ের সামনে ককটেল বিস্ফোরণ, ৭ ককটেল সহ গ্রেফতার ৩

২১ আগস্ট আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে গ্রেনেড হামলার মামলায় ১০ অক্টোবর বুধবার রায় ঘোার পর নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকার মোগরাপাড়া চৌরাস্তাস্থিত কার্যালয়ের সামনে বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মীরা ৪টি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ ৩ জনকে গ্রেফতার করে তাদের কাছ থেকে ৭টি ককটেল উদ্ধার করেছে।

সোনারগাঁ থানার ওসি মোরশেদ আলম জানান, দুপুর ১টায় উপজেলার মোগরাপাড়া চৌরাস্তাস্থিত স্থানীয় সাংসদ লিয়াকত হোসেন খোকার কার্যালয় আইউব প্লাজার সামনে বিএনপি জামায়াতের নেতাকর্মীরা ৪টি ককটেল বিস্ফোরণ করে পালিয়ে যাওয়ার সময় পুলিশ মোগরাপাড়া ইউনিয়ন যুবদলের সভাপতি এনামুল হক রবিন (৫০) ও পিরোজপুর ইউনিয়ন বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নূর নবী মাস্টারকে (৫০) গ্রেফতার করেছে। এসময় তাদের কাছ থেকে ৪টি ককটেল উদ্ধার করা হয়।

অন্যদিকে কাঁচপুর এসএস পাম্পের সামনে নাশকতার চেষ্টাকালে থানা তাঁতীদলের সভাপতি ইসমাঈলকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এসময় তার কাছ থেকে ৩টি ককটেল উদ্ধার করা হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জ জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি আবু জাহের ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মজিদ খন্দকার এই হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, সোনারগাঁয়ের সংসদ সদস্য ও জাতীয় পার্টির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব লিয়াকত হোসেন খোকার কার্যালয়ের সামনে বিএনপি জামায়াতের সন্ত্রাসীরা যে ন্যাক্কারজনক হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাই এবং দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাই।

এদিকে নারায়ণগঞ্জ মহানগর জাতীয় পার্টির সভাপতি সানাউল্লাহ সানু ও সাধারণ সম্পাদক আকরাম আলী শাহীন এই ন্যাক্কারজনক হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

সোনারগাঁ উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক হাজী সুলতান খাঁন ও পৌরসভা জাতীয় পার্টির সভাপতি হাজী পিয়ার আলী বলেন, সোনারগাঁয়ের সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা সবসময় তার বক্তব্যে বিএনপি জামায়াতের সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের চিত্র তুলেন। এই কারণে ওই সন্ত্রাসীরা সাংসদের কার্যালয়ের সামনে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে আমরা এর তীব্র নিন্দা ও দোষীদের ফাঁসি চাই।

এদিকে সোনারগাঁও পৌরসভার মেয়র সাদেকুর রহমান সহ উপজেলা জনপ্রতিনিধি ঐক্য ফোরামের সাধারণ সম্পাদক ও বারদী ইউপি চেয়ারম্যান জহিরুল হক, নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ও পিরোজপুর ইউপি চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান মাসুম, কাঁচপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোশারফ ওমর, শম্ভুপুরা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রউফ, বৈদ্যেরবাজার ইউপি চেয়ারম্যান ডা. আব্দুর রউফ, নোয়াগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান ইউসুফ দেওয়ান, জামপুর ইউপি চেয়ারম্যান হামীম শিকদার শীপলু, সনমান্দী ইউপি চেয়ারম্যান জাহিদ হাসান জিন্নাহ সহ উপজেলা জনপ্রতিনিধি ঐক্য ফোরামের সকল নেতৃবৃন্দ এমপি লিয়াকত হোসেন খোকার কার্যালয়ের সামনে ন্যাক্কারজনক বোমা হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে এতে জড়িত বিএনপি জামায়াতের সন্ত্রাসীদের সর্বোচ্চ শাস্তি কামনা করেছেন।

সোনারগাঁয়ের সংসদ সদস্য ও জাতীয় পার্টির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব লিয়াকত হোসেন খোকা বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় আজ যে রায় হয়েছে তা দেশের আইন অনুযায়ীই হয়েছে। এই রায় ঘোষনার পর স্বাধীনতা বিরোধী সন্ত্রাসী দল ‘বিএনপি ও জামায়াত শিবির’ আমার মোগরাপাড়া চৌরাস্তার কার্যালয়ের সামনে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে নিজেদের সন্ত্রাসী মানসিকতার প্রমাণ দিয়েছে।

তাই আগামী সংসদ নির্বাচনে জনগণকে ভোটের মাধ্যমে এই সন্ত্রাসীদের প্রত্যাখান করার আহ্বান জানিয়েছেন এমপি লিয়াকত হোসেন খোকা।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও