রায় প্রত্যাখ্যান বিএনপির, ফাঁসি প্রত্যাশা ছিল আওয়ামী লীগের

সিটি করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:৪৬ পিএম, ১০ অক্টোবর ২০১৮ বুধবার



রায় প্রত্যাখ্যান বিএনপির, ফাঁসি প্রত্যাশা ছিল আওয়ামী লীগের

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায়ের বিপরীতমুখী প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ আওয়ামীলীগ ও বিএনপি।

বুধবার (১০ অক্টোবর) এ মামলার রায়ে ১৯ জনের মৃত্যুদন্ড, ১৯ জনের যাবজ্জীবন এবং বাকী ১১ জনের বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেওয়া হয়। রায়ের পরে নিজ নিজ প্রতিক্রিয়ায় নিজেদের ও দলের অবস্থান তুলে ধরেছেন দুটি দলের নেতারা।

নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল হাই নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘আমাদের দলের সাধারণ সম্পাদক যে বক্তব্য দিয়েছেন তাতেই আমাদের প্রতিক্রিয়া হয়েছে। রায়কে কেন্দ্র করে অনেক জল ঘোলা হয়েছে, আমরা এ রায়ে এখুশিও নই আবার একেবারে যে সন্তুষ্ট তাও নই।’

নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘আসলে যে ষড়যন্ত্রকারী ও এসবের মদদদাতা তারই আমরা ফাঁসি চেয়েছিলাম। আদালতের রায় আমরা সম্মানের সাথে মানি। যারাও অপকর্ম করে বা করতে চায় তাদেরকে যে এ সরকার আইনের আওতায় এনে শাস্তির মুখোমুখি করতে পারে সেজন্য এ সরকারকে ধন্যবাদ।’

নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জিএম আরাফাত নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘এ ঘটনায় আমাদের প্রধানমন্ত্রী সহ আমাদের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দকে হত্যা করে দলকে নেতৃত্ব শূন্য করতে চেয়েছিল মাস্টারমাইন্ডরা। আমরা হাওয়া ভবনের নিয়ন্ত্রণকর্তাদের ফাঁসি চেয়েছিলাম, যেহেতু সেখানে বসেই এ হত্যার চক্রান্ত হয়েছিল। তবুও আদালতের রায়ের প্রতি আমরা সব সময় শ্রদ্ধাশীল।’

নারায়ণগঞ্জ শহর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন ভূইয়া সাজনু নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘২০০৪ সালে ওই সমাবেশে আমিও ছিলাম। এ বিচার আমরা পেয়েছি তবে বিচারটি আরেকটু কঠিন প্রয়োজন ছিল। উচ্চ আদালতে যদি আপিল হয় তাহলে আমরা সেখানে অধিকতর ন্যায়বিচার প্রত্যাশা করি। এ রায়ে প্রমাণিত হলো পাপ বাপকেও ছাড়েনা।’

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, আগামীতে এক তরফা নির্বাচনের জন্য এই রায়। এ রায় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশক্রমে রায়। আমরা শুধু নারায়ণগঞ্জবাসী নয়, পুরো দেশের মানুষ এই রায়কে দৃঢ়ভাবে প্রত্যাখ্যান করেছে।

নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি ও মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহ সভাপতি অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খান নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘এটি একটি ফরমায়েশি রায়। এ রায় প্রতিহিংসার রায়, কারণ আমি মামলার কাগজপত্র দেখেছি সেখানে কোনভাবেই তারেক রহমানের সাজা দেয়া যায়না। সরকার তার নির্দেশে তারেক রহমানসহ বিএনপি নেতাকর্মীদের সাজা দিয়ে রাজনৈতিক ফয়দা হাসিলের চেষ্টা করছে। এ রায় দেশবাসী ও জনগণ প্রত্যাখ্যান করেছে।’

নারায়ণগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি আনোয়ার সাদাত সায়েম নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘এ রায়ের মধ্য দিয়ে আইন ও বিচারালয় আরেকটি কালো দিন ও কালো অধ্যায় ইতিহাসে নথিভুক্ত করলো। এ রায় সাজানো। গণতান্ত্রিক শান্তিপূর্ণ আন্দোলনকে উস্কে দিতে ও বাধাগ্রস্ত করতে বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙতেই এ মুহূর্তে এমন রায়।’


বিভাগ : সাক্ষাৎকার


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও