৬ কার্তিক ১৪২৫, রবিবার ২১ অক্টোবর ২০১৮ , ৯:৪৪ অপরাহ্ণ

UMo

গিয়াসউদ্দিনের নেতৃত্বে নাশকতার প্রস্তুতি, ছেলে সহ আসামী ২৫৭


স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৫:১৭ পিএম, ১১ অক্টোবর ২০১৮ বৃহস্পতিবার


গিয়াসউদ্দিনের নেতৃত্বে নাশকতার প্রস্তুতি, ছেলে সহ আসামী ২৫৭

সিদ্ধিরগঞ্জে নাশকতার প্রস্তুতির অভিযোগ এনে বিএনপির সাবেক এমপি গিয়াসউদ্দিন সহ ৫৭ জন নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরও ২০০ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ। পুলিশের দাবি ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার রায়ের প্রতিবাদে নাশকতা করার লক্ষ্যে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ঢাকামুখী সড়কের উপর সাবেক এমপি গিয়াসউদ্দীনের নেতৃত্বে তারা উপস্থিত হয়েছিলেন।

১১ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সিদ্ধিরগঞ্জ থানার এসআই ফয়সাল আলমের দায়েরকৃত উক্ত মামলার এজহারে বলা হয়েছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় কর্তব্যরত পুলিশের মোবাইল টিম রাত পৌনে ২ টায় সাহেবপাড়া সকিনস্থ পিডিবি পাম্প এলাকায় উপস্থিত হয়। সেখানে গিয়াসউদ্দিনের নেতৃত্বে বিভিন্ন অস্ত্র-শস্ত্র ও বিষ্ফোরক দ্রব্যে সজ্জিত হয়ে বিএনপি ও তার অঙ্গ সংগঠনের আনুমানিক ২৫০ জন নেতাকর্মী জড়ো হয়েছেন। এবং সেখানে তারা ককটের বিষ্ফোরণ ঘটিয়ে এবং গাড়ি ভাঙচুর করে যান চলাচল ব্যহত করছিলেন। এ সময় সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশের আরও কয়েকটি মোবাইল টিম উক্ত স্থানে উপস্থিত হয়ে বিশৃঙ্খলাকারীদের ধাওয়া করেন। পরবর্তীতে তারা ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়।

ধাওয়া দেয়ার সময় সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন মাদানীনগর এলাকার বাসিন্দা জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে শাহাদাৎ হোসেন, সোনামিয়া মার্কেট এলাকার ইদ্রিস আলীর ছেলে মমিন ও সানারপাড় এলাকার আব্দুল লতিফ মিয়ার ছেলে রুবেল নামের ৩ আসামীকে আটক করে পুলিশ। আটককৃতদের কাছ থেকে অবিষ্ফোরিত ৫ টি ককটেল, ৫ টি কাঠের লাঠি, ভাঙা কাঁচের টুকরা ও পোড়া টায়ার জব্দ করা হয়েছে বলে মমলার এজহারে উল্লেখ্য করেছে পুলিশ।

এ সময় বাকিরা পালিয়ে গেলেও আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করে পলাতক আসামী গিয়াসউদ্দীনসহ অন্যান্য ৫৪ জন আসামীর নাম জানতে পারে পুলিশ। পলাতক অন্যান্য আসামীরা হলেন, ইকবাল হোসেন, ফজলুল হক, গোলজার খান, জসিম, কানা আনার ওরফে বোমা আনোয়ার, ইমাম হোসেন বাদল, আকরাম, পান্না, সালাহউদ্দিন, পল্টু কর্মকার, মুসা, আহমেদ লালা, দেলোয়ার হোসেন খোকন, সাগর, আসলাম মন্ডল, মামুন ওরফে বিদ্যুৎ মামুন, নাজিম পারভেজ অন্তু, শাকিল, মোশারফ, পিন্টু মিয়া, আকবর আলী, রওশন চেয়ারম্যান, তাজুল ইসলাম, আইয়ুব আলী, হাসান পারভেজ, অব্দুল আল মামুন, হাজী জসিমউদ্দিন, আল মামুন ওরফে বাঘ মামুন, আহসানউল্লাহ, মোস্তফা মুন্সী, আনোয়ার হোসেন, জালালউদ্দিন, সালাহউদ্দিন ওরফে রবিনহুড, নূরে আলম, নূর হোসেন, খাইরুল, দেলোয়ার, আহমেদ মান্নান, মোজাম্মেল, নুরুদ্দিন মেম্বার, আবুল কালাম, সাহাবুদ্দিন, রুবেল, আক্তার, মশিউর রহমান মশু, স্বপন মন্ডল, হাজী নজরুল ইসলাম পান্না, হুমায়ূন, বায়েজীদ হাসান, খালেক টিপু, গাজী নূরে আলম, মনির, জিএম সাদরিল।

এছাড়াও এজহারে আরও ২০০ জন আসামীকে অজ্ঞাত দেখানো হয়েছে। এছাড়াও পলাতক আসামী সাদরিল ও আকরাম জেলার গুরুত্বপূর্ণ সরকারি স্থাপনা, পাওয়ার হাউজ ও রাষ্ট্রয়াত্ব প্রতিষ্ঠানের ক্ষতিসাধনের লক্ষ্যে অর্থের যোগান ও পরামর্শ প্রদাণ করে বলে উল্লেখ করা হয়েছে এজহারে।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি আব্দুস সাত্তার টিটু জানান, আসামিদের বিরুদ্ধে নাশকতার অভিযোগ রয়েছে। তাদেরকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

rabbhaban

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

রাজনীতি -এর সর্বশেষ