১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫, বৃহস্পতিবার ১৫ নভেম্বর ২০১৮ , ৩:০৬ অপরাহ্ণ

UMo

কলংক লেপন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের ললাটে


স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৯:০১ পিএম, ১৫ অক্টোবর ২০১৮ সোমবার


কলংক লেপন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের ললাটে

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে নারায়ণগঞ্জে প্রায় বছর দুয়েক আগে থেকেই মনোনয়ন প্রত্যাশীরা নির্বাচনী মাঠে রয়েছেন। আর এতে সরকারি দল হিসেবে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীরাই এগিয়ে ছিলেন। কিন্তু এসকল মনোনয়ন প্রত্যাশীদের তিলকে একের পর এক কলঙ্ক লেপন হচ্ছে। ফলে তারা সংসদীয় এলাকার ভোটারদের মাঝে আস্থাভজন হিসেবে নিজেদেরকে প্রতিষ্ঠিত করতে পারছেন না।

সূত্র বলছে, আগামী ডিসেম্বরের শেষ দিকেই অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। ইতোমধ্যে নির্বাচন কমিশন চলতি মাসের শেষের দিকে নির্বাচনী তফসিল ঘোষণারও আভাস দিয়েছেন। সেই হিসেবে দিন যতই যাচ্ছে ততই মনোনয়ন প্রত্যাশীদের যোগ্যতা প্রমাণের সময় কমে যাচ্ছে। কিন্তু এই অল্প সময়ের মধ্যেই মনোনয়ন প্রত্যাশীদের পূর্বের কলঙ্ক আর সাম্প্রতিক সময়ের কলঙ্কে সংসদীয় এলাকায় নেতিবাচক পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে।

জানা যায়, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে নারায়ণগঞ্জ-২, নারায়ণগঞ্জ-৪ ও নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনে বর্তমান সংসদ সদস্যদের পাশাপাাশি আলোচনায় ছিলেন যথাক্রমে জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইকবাল পারভেজ, শ্রমিক নেতা কাউসার আহমেদ পলাশ ও জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি আরজু রহমান ভূইয়া।

এদের মধ্যে পূর্ব থেকেই কলঙ্ক ছিল ইকবাল পারভেজ ও কাউসার আহমেদ পলাশের তিলকে। তবে তারা নারায়ণগঞ্জের শক্তিশালী দুই সংসদ সদস্যদের আসনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করার মতো সাহস করে প্রথম থেকেই আলোচনায় ছিলেন। এই দুইজনেই নির্বাচনী এলাকায় প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে ভোটারদের মাঝে সাড়াও ফেলেছিলেন। কিন্তু তাদের তিলকে লেগে থাকা পূর্বের কলঙ্কের কারণে বার বার হোঁচট খাচ্ছেন।

নারায়ণগঞ্জ-২ আসনে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন মনোনয়ন প্রত্যাশী ইকবাল পারভেজ। দুদক সূত্রে জানা যায়, অনিয়ম ও দুর্নীতি করে প্রায় শত কোটি টাকার মালিক হয়েছেন রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) সাবেক সহকারী পরিচালক ইকবাল পারভেজ। তিনি ২ কোটি ৬২ লাখ ৫০ হাজার ৬০২ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে ইকবাল পারভেজ চৌধুরীকে গ্রেফতার করেছিলেন দুদক উপ-পরিচালক নাসির উদ্দিন। তার বিরুদ্ধে রাজধানীর ওয়ারী থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। এছাড়াও রাজধানীর বিভিন্ন থানায় প্রায় ডজন খানেক মামলা রয়েছে তার নামে। গুলশান, বনানী ও মতিঝিলে রাজউকের সরকারি পরিত্যক্ত সম্পত্তির ফাইল গায়েব করার অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

এদিকে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের মনোনয়ন প্রত্যাশী কেন্দ্রীয় শ্রমিকলীগের শ্রমিক উন্নয়ন ও মানব কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক কাউসার আহমেদ পলাশের বিরুদ্ধেও রয়েছে কলঙ্কের তিলক। শ্রমিক রাজনীতির কারছে এক শ্রেণির শ্রমিকদের নিয়ন্ত্রক তিনি। কিন্তু আপামর জনতার লোক হয়ে উঠতে পারেনি। তার বিরুদ্ধে রয়েছে অসংখ্য চাঁদাবাজীর অভিযোগ। বিশেষ করে আলীগঞ্জ ও পাগলা ছাড়া নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের নির্বাচনী এলাকাগুলোতে এমপি হওয়ার যথার্থ অবস্থান গড়তে পারেনি তিনি।

সর্বশেষ নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের মনোনয়ন প্রত্যশী জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি আরজু রহমান ভূইয়ার তিলকেও কলঙ্ক লেপন হয়েছে। নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণায় ও নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে ভোটারদের আলাপ আলোচনায় থাকলেও সাম্প্রতিক সময়ের একটি ঘটনায় নেতিবাচক প্রভাব সৃষ্টি হয়েছে ভোটারদের মাঝে।

গত ১১ অক্টোবর শহরের আফাজনগরের এক ঘটনায় আলোচিত বিথী আরজু ভূইয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে তার কুনজরের। তার সাবেক পুত্রবধূ বিথী আঞ্জুমা দাবি করেন তার সাথে রেজওয়ান রাফির সাথে ডিভোর্সের মূলে ছিলেন শ্বশুর আরজু রহমান ভূইয়া। মূলত শ্বশুর তার প্রতি কুনজর আর কুপ্রস্তাব দেয়ার কারণেই ডিভোর্সে যেতে তিনি বাধ্য হয়েছিলেন। সে ডিভোর্সে তিনি ও তার সাবেক স্বামী রেজওয়ান রাফি কেউই রাজি ছিলেন না। বিথী বলেন, ‘আমার সাবেক শ^শুর আরজু ভূইয়া ছিলেন একজন লম্পট, চরিত্রহীন। যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন আরজু ভূইয়া।

তবে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের এসকল ঘটনায় সংশ্লিষ্ট সংসদীয় এলাকার ভোটারদের মাঝে বার বার আলোচনা সৃষ্টি করে। প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে আলোচনায় আসতে চাইলেও তাদের পিছনে ও বর্তমানে ঘটে যাওয়া এসকল ঘটনায় তাদেরকে বার বার পিছনের দিকে টেলে দিচ্ছে। যা আগামী দিনে মনোনয়নের পথে সবচেয়ে বড় বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারে। আর এসকল মনোনয়ন প্রত্যাশী নেতাদের তথ্য কেন্দ্রে সবসময় সরবরাহ করে থাকেন বিভিন্ন সংস্থাগুলো।

rabbhaban

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

রাজনীতি -এর সর্বশেষ