৬ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫, মঙ্গলবার ২০ নভেম্বর ২০১৮ , ৬:২৪ অপরাহ্ণ

rabbhaban

সোনারগাঁয়ে মনোনয়ন প্রত্যাশী ১৫ জন


স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ১০:৫৩ পিএম, ১৬ অক্টোবর ২০১৮ মঙ্গলবার


সোনারগাঁয়ে মনোনয়ন প্রত্যাশী ১৫ জন

আসন্ন একাদশ সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে নারায়ণগঞ্জ-৩ (সোনারগাঁ) আসনে বিভিন্ন দলের মনোনয়ন প্রত্যাশীরা দলীয় হাইকমান্ডের সাথে যোগাযোগ রক্ষার পাশাপাশি এলাকায় ব্যাপক গণসংযোগ করছেন। তাছাড়া প্রচার-প্রচারণার জন্য অনেকেই সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুক ব্যবহার করছেন। এ আসনে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন ৯ জন। এছাড়া বিএনপির ৪ জন ও জাতীয় পার্টির ২ জন মনোনয়ন প্রত্যাশী রয়েছেন।

জানা যায়, দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এ আসনে মহাজোটের প্রার্থী হিসেবে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বীতায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন জাতীয় পার্টির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব লিয়াকত হোসেন খোকা। ওই নির্বাচনে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের পালিত কন্যা ও বর্তমানে কেন্দ্রীয় মহিলা পার্টির সাধারণ সম্পাদিকা অনন্যা হুসেইন মৌসুমীও এ আসনে মনোনয়ন চেয়েছিলেন। কিন্তু দল লিয়াকত হোসেন খোকাকে মনোনয়ন দেয়। একাদশ সংসদ নির্বাচনেও এ আসনে লিয়াকত হোসেন খোকা ও অনন্যা হুসেইন মৌসুমী মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন। তবে লিয়াকত হোসেন খোকা গত প্রায় ৫ বছর ক্লিন ইমেজ বজায় রেখে সোনারগাঁয়ের ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন।

এদিকে এ আসনে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন ৯ জন। এরা হলেন, সাবেক সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য আব্দুল্লাহ আল কায়সার, উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান কালাম, আওয়ামীলীগের উপ কমিটির সাবেক সহ সম্পাদক এএইচএম মাসুদ দুলাল, জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক ও স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিব) এর কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. আবু জাফর চৌধুরী বিরু, উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য মোশারফ হোসেন, কেন্দ্রীয় মহিলা লীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট সেলিনা আক্তার, অর্থনীতিবিদ আনোয়ারুল কবির ভূঁইয়া, এফবিসিসিআই’র পরিচালক বজলুর রহমান ও ইঞ্জিনিয়ার শফিকুল ইসলাম। আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীরা দলীয় হাইকমান্ডের সাথে যোগাযোগ রক্ষার পাশাপাশি এলাকায় নিজ নিজ কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে গণসংযোগ ও প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। তবে গত নির্বাচনের ন্যায় এবারো এ আসনটি মহাজোটের পক্ষ থেকে জাতীয় পার্টিকে ছেড়ে দেয়া হলে তাদের আশাহত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

অপরদিকে এ আসনে বিএনপির মনোনয়নের প্রত্যাশা করছেন সাবেক মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী অধ্যাপক রেজাউল করিম, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আজহারুল ইসলাম মান্নান, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালক এসএম ওয়ালিউর রহমান আপেল ও কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা ওয়াহিদ ইমতিয়াজ বকুল। তবে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীদের কাউকেই নির্বাচনী মাঠে দেখা যাচ্ছে না।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

রাজনীতি -এর সর্বশেষ