২৯ কার্তিক ১৪২৫, মঙ্গলবার ১৩ নভেম্বর ২০১৮ , ১:৪৩ অপরাহ্ণ

UMo

স্বরূপে বিএনপি নেতা


স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৯:১৬ পিএম, ৮ নভেম্বর ২০১৮ বৃহস্পতিবার


স্বরূপে বিএনপি নেতা

নারায়ণগঞ্জে বিএনপি নেতাকর্মীরা আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে স্বরুপে ফিরতে শুরু করেছে। এদিকে দলের নেতাকর্মীদের একাংশ ক্ষমতাসীনদের সাথে আতাঁত করে দলের আদর্শ থেকে দূরে সরে যাচ্ছে এরুপ সমলোচনার ঝড় চারদিকে বইতে শুরু করে। তবে সম্প্রতি মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামাল দলের সেসব নেতাদের পক্ষ অবলম্বন করে ঐক্যের নজির স্থাপন করে দলকে ফের স্বরুপে ফেরানোর চেষ্টা করেন। তাছাড়া ওই সময় সমালোচিত সেসব নেতারা উপস্থিত হয়ে নির্বাচনের আগে দলকে সুসংগঠিত করে স্বরুপে ফেরার ইঙ্গিত দিচ্ছেন।

৫ নভেম্বর বিকেলে শহরের মিশনপাড়ায় নিজ বাসায় এটিএম কামাল রাজধানীতে ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশ উপলক্ষ্যে প্রস্তুতি সভায় দলকে সুসংগঠিত করার আহবান করেন। এছাড়া অনেকটা কৌশলে দলের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ করার প্রয়াস চালায়। আর তাতে দলের সেসব সমালোচিত নেতাকর্মীরা যোগদান করেন। সেখানে মহানগর বিএনপির সহ সভাপতি ও বন্দরের উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মুকুল, ১২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও মহানগর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক শওকত হাশেম শকু, ২১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও মহানগর বিএনপির দপ্তর সম্পাদক হান্নান সরকার, ২২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও বিএনপি নেতা সুলতান আহমেদ উপস্থিত ছিলেন যারা আবার গত ২ নভেম্বর বন্দরে সেলিম ওসমানের সমাবেশে ছিলেন। ওই সমাবেশ থেকে সেলিম ওসমান নির্বাচনে অংশ নেওয়ার ঘোষণা দেন।

ওই সভায় এটিএম কামাল বলেন, ‘জনপ্রতিনিধি হয়ে এমপি অনুষ্ঠানে যেতে পারে, কিন্তু তারা ভোট চান নি। ভিডিও ক্লিপ বা ছবি নাই। তাই অভিযোগ গ্রহণ করা যায় না।’

এই নেতার কৌশলী বক্তব্যের মধ্য দিয়ে দল থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়া বিএনপির এই নেতারা ফের দলে ভিড়তে শুরু করেছে। এদিকে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সময় প্রায় ঘনিয়ে এসেছে। আগামী ২৩ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে ভোট। সে হিসেবে রাজনীতিক দলগুলোর মধ্যে নানা ধরণের প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। তবে বিএনপি দলটি দীর্ঘদিন ক্ষমতার বাইরে থাকার কারণে অনেকটা বেকায়দায় রয়েছে। আর পুলিশি হামলা, মামলার ফলে বিএনপির অনেক নেতাকর্মীদের ক্ষমতাসীনদের সাথে আতাঁত করে চলতে দেখা যাচ্ছে।’

এই আতাঁতের বিষয়টি যখন অনেকটা ওপেন সিক্রেটে পরিণত হয়েছে ঠিক তখনই নারাণগঞ্জ-৫ আসনের সাংসদ সেলিম ওসমানের বিভিন্ন সভা-সমাবেশে বিএনপি দলীয় একটি অংশ প্রকাশ্যে তার বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করার চিত্র দেখা যাচ্ছে। এমনকি তাকে ফের এই আসনের এমপি হেসেবেও দেখতে চায় উল্লেখ করে বিভিন্ন সভা-সমাবেশে এই বিএনপি নেতারা বক্তব্য দিচ্ছেন। এতে করে চারদিকে সমালোচনার ঝড় উঠে।

এই সময় দলের মধ্যে দ্বন্দ্ব কোন্দল আরো প্রকট হতে থাকে। দলের মধ্যে বিভক্তি ও ছন্দপতনের নানা শঙ্কা তৈরি হতে থাকে। এদিকে নির্বাচনের সময় একেবারে দোরগোড়ায় এসে পৌছেছে। যেকারণে এই দলটির মধ্যকার নেতাদের মধ্যে নানা সংশয়ের মধ্য দিয়ে দলটি আরো দুর্বল হয়ে পড়ে। বেকায়দায় থাকা বিএনপি দলটি এভাবে যখন একের পর এক দফায় দফায় নানা কারণে দুর্বল থেকে দুর্বলতর হয়ে পড়ছে। ঠিক তখনই দলের কৌশলী ও ত্যাগী নেতারা এই সংকট মোকাবেলায় নানা পদক্ষেপ নেয়। এবারো ঠিক সেই রকমই একটি চিত্র দেখা গেছে।

সম্প্রতি মহানগর বিএনপির সেক্রেটারী এটিএম কামাল অনেকটা কৌশলে দলের নেতাকর্মীদের মধ্যে ঐক্য গড়ে তুলে তাদেরকে একত্রিত করার চেষ্টা করে যাচ্ছেন। এর ধারাবাহিকতায় তিনি গত ৫ নভেম্বর তার বাসভবনে এক প্রস্তুতি সভায় দলের কর্মসূচীবিমুখ সেসব সমালোচিত নেতাদের একত্রিত করতে পেরেছেন। দলের সেসব সমালোচিত নেতারা অনেকটা স্বরুপে ফিরতে শুরু করেছে। নির্বাচনের আগে দলের এসব নেতাদের নিজ দলের হয়ে কাজ করতে যাচ্ছে।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ‘নির্বাচনের এই শেষ সময়ে এসে দলকে সুসংগঠিত করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে পরিণত হয়েছে। আর দলের ত্যাগী ও যোগ্য-অভিজ্ঞ নেতারা সেই কাজগুলো করছে। দলের মধ্যে এটিএম কামাল সেই কৌশলী কাজের মধ্য দিয়ে দলের নেতাদের স্বরুপে ফেরানোর চেষ্টা করছেন। আর দলের নেতাকর্মীরা নির্বাচনের আগে অনেকটা নাটকীয়তার মধ্য দিয়ে স্বরুপে ফিরছেন। এতে করে বিএনপি দলটি ফের ঘুরে দাঁড়ানোর স্বপ্ন দেখছে।’

rabbhaban

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

রাজনীতি -এর সর্বশেষ