শামীম বাবুর দলীয় মনোনয়ন নিশ্চিত!

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:১৭ পিএম, ১৯ নভেম্বর ২০১৮ সোমবার



শামীম বাবুর দলীয় মনোনয়ন নিশ্চিত!

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে দলীয় প্রার্থী নির্ধারণ করা নিয়ে চলছে বিচার বিশ্লেষণ। কার মাধ্যমে দলের সফলতা আসতে পারে সে নিয়ে চলছে আলাপ আলোচনা। তারই ধারাবাহিকতায় নারায়ণগঞ্জের ৫টি আসনেও মনোনয়ন প্রত্যাশীদের নিয়ে চলছে হিসেব নিকেশ। ইতিমধ্যে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রচারিত হচ্ছে নারায়ণগঞ্জের ৫টি আসনের মধ্যে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনে শামীম ওসমান এবং নারায়ণগঞ্জ-২ আসনে নজরুল ইসলাম বাবুর আওয়ামীলীগ দলীয় মনোনয়ন নিশ্চত হয়ে গেছে। যদিও বিষয়টি নিয়ে রাজনৈতিক অঙ্গনে নানা গুঞ্জন রয়েছে।

সূত্র বলছে, নারায়ণগঞ্জের ৫টি আসনের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ভোটার সংখ্যা হচ্ছে নারায়ণগঞ্জ-৪ (সদর ও বন্দর) আসনে। স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে এ আসনে ১৯৯১ থেকে ২০০৮ পর্যন্ত ৪ বারের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি সমান আধিপত্য বিস্তার করে। ৯৬ এ আসনটি দখলে নেয় আওয়ামী লীগের হেভিওয়েট প্রার্থী শামীম ওসমান। এরপর ২০১৪ সালের দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মধ্যে দিয়ে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন শামীম ওসমান। যার ধারাবাহিকতায় এবারের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও তিনি নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের মনোনয়ন প্রত্যাশী।

একই সাথে নারায়ণগঞ্জের ৫টি আসনের মধ্যে সবচেয়ে কম ভোটার সংখ্যা হচ্ছে নারায়ণগঞ্জ-২ (আড়াইহাজার) আসনে। ছাত্রলীগের রাজনীতি থেকে উঠে এসে ২০০৮ ও ২০১৪ সালে পরপর দু`বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু। এবারের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও তিনি এই আসনের মনোনয়ন প্রত্যাশী।

এরই মধ্যে গত ৮ নভেম্বর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টায় জাতির উদ্দেশ্যে দেওয়া ভাষণে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদা একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছেন। সেই তফসিল অনুযায়ী আগামী ২৩ ডিসেম্বর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা বললেও পরবর্তীতে নির্বাচন কমিশন সেই সময় পিছিয়ে আগামী ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ করেছেন। একই সাথে মনোনয়পত্র দাখিলের শেষ সময় নির্ধারণ করেছেন ২৮ নভেম্বর।

এদিকে তফসিল ঘোষণার পরদিন থেকেই আওয়ামীলীগ মনোনয়ন ফরম বিক্রয় করা শুরু করে। যার ধারাবাহিকতায় সারাদেশের মতো নারায়ণগঞ্জের এই দুটি আসনের মনোনয়ন প্রত্যাশীরাও মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন। নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য শামীম ওসমান ছাড়াও এ আসনে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন শ্রমিক লীগের কেন্দ্রীয় নেতা কাউসার আহমেদ পলাশ, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় অর্থ ও পরিকল্পনা বিষয়ক উপ কমিটির সদস্য কামাল মৃধা, মহানগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি হালিম শিকদার, সরকারী মহিলা কলেজের সাবেক ভিপি নাহিদা হাসনাত।

অন্যদিকে নারায়ণগঞ্জ-২ আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু ছাড়াও এ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন সাবেক রাষ্ট্রদূত মমতাজ হোসেন, জেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি মিজানুর রহমান বাচ্চু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইকবাল পারভেজ ও মোজাহিদুল ইসলাম হেলো সরকার।

এসকল মনোনয়ন প্রত্যাশীরা নির্বাচনী প্রচার প্রচারণার শুরু থেকেই সংসদীয় এলাকায় সরব রয়েছেন। নিজেদের পক্ষে সমর্থন আদায়ে বিভিন্ন সভা সমাবেশ করে বেড়িয়েছেন। তবে দলীয় প্রার্থী নির্ধারণ করার ক্ষেত্রে নারায়ণগঞ্জের এই দুইটি আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য শামীম ওসমান ও নজরুল ইসলাম বাবুকেই প্রাধান্য দেয়া হচ্ছে বলে খবর রয়েছে। ইতিমধ্যে বিভিন্ন গণমাধ্যমেও তাদেরকে নিয়ে আলাপ আলোচনা চলছে।

সর্বশেষ দেশের একটি প্রভাবশালী জাতীয় দৈনিকে বিভিন্ন আসনের সম্ভাব্য প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ করেছে, যেখানে নারায়ণগঞ্জ-৪ (সদর-বন্দর) আসনে শামীম ওসমানে নাম এবং নারায়ণগঞ্জ-২ (আড়াইহাজার) আসনে নজরুল ইসলাম বাবুর নাম রয়েছে। আর এই খবরে শামীম ওসমান ও নজরুল ইসলাম বাবুর শিবিরে বইছে উচ্ছ্বাস। তবে সম্ভাব্য এই তালিকাটি পরিবর্তন ও সংযোজনের সুযোগ রয়েছে। সংসদীয় বোর্ডের সদস্যরা প্রধানমন্ত্রী ও দলের সভাপতি শেখ হাসিনাকে এই ক্ষমতা দিয়েছেন।

এদিকে বিষয়টিকে মেনে নিতে পারছে না শামীম ওসমান ও নজরুল ইসলাম বাবু বিরোধী শিবিরের নেতাকর্মীরা। তারা এই খবরটিকে গুঞ্জন হিসেবেই বিবেচনা করছেন। যদিও দিন যতই যাচ্ছে ততই দলীয় প্রার্থী নির্ধারণ করার সময় কমে আসছে। সে হিসেবে শামীম ওসমান ও বাবুর নিশ্চিতের ব্যাপারে এই খবরটিকে একেবারে উড়িয়ে দিচ্ছেন না রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। দলের সার্বিক বিবেচনায় তারা দলীয় মনোনয়ন পেয়েও যেতে পারেন।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও