নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াবো : শামীম ওসমান

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:০৬ পিএম, ৬ ডিসেম্বর ২০১৮ বৃহস্পতিবার



নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াবো : শামীম ওসমান

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি শামীম ওসমান বলেছেন, মানুষ উন্নয়নের জন্য আর একটু শান্তিতে বসবাসের জন্য ভোট দিয়ে থাকেন। আর আমি শামীম ওসমান এমপি হয়ে যে পরিমাণ উন্নয়ন করেছি মানুষ চোখ বুঝে আমাকে ভোট দিবে এটাই আমার বিশ্বাস। আমি গত ৫ বছরে যে পরিমান উন্নয়ন করেছে বিগত আমলে যারা এমপি ছিলেন তারা আমার ৫০ ভাগের এক ভাগ কাজ করার প্রমাণ দিতে পারলে আমি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াবো।

বৃহস্পতিবার (৬ ডিসেম্বর) বেলা ১২ টা হতে বিকেল পর্যন্ত ফতুল্লার কাশিপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় উঠান বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

শামীম ওসমান এলাকার নারীদের উদ্দেশে বলেন, আপনার সংসারে দুটি সন্তানের মধ্যে যে সন্তানটি একটু ভাল তাকে তো আপনারা একটু বেশি ভালোবাসেন। তাই অন্য জনপ্রতিনিধিদের চেয়ে আমি আপনাদের এলাকায় ব্যাপক উন্নয়ন করেছি। আপনাদের ভালো ছেলের মত যদি আমি হয়ে থাকি তাহলে আপনারা আমার জন্য দোয়া করবেন এবং আমাকে ভোট দিবেন। আমি সব সময় আপনাদের ভাল সন্তান হয়ে থাকতে চাই। আপনারা যদি মনে করেন আমার কথা ছহি তাহলে আমার কথা বিবেচনা করে আপনাদের মূল্যবান ভোটটি সঠিক কাজে ব্যবহার করবেন।

তিনি যুব সমাজের উদ্দেশে বলেন, শামীম ভাই জিন্দাবাদ বললে তোমাদের ভাগ্যের পরিবর্তন হবে না। তোমরা তোমাদের মাকে সম্মান করতে শিখো। মায়ের সাথে খারাপ ব্যবহার না করে তাদের সম্মান করে তাদের দোয়া নিয়ে ভাল কিছু করো। আর তোমরা রাজনীতি করতো চাও তাহলে ভাল কাজ করার চিন্তা থাকলে রাজনীতি করো। নতুবা রাজনীতি করার কোন দরকার নাই। তুমি তোমার মাকে সম্মান করবে না, মাকে সেবা করবে না তোমার মত ব্যক্তির রাজনীতি করা ঠিক না। আগে মাকে সম্মান করতে শিখো তার পর ভিন্ন চিন্তা করো।

শামীম ওসমান বেলা ১২ টায় ফতুল্লার ভোলাইল এলাকায় উঠান বৈঠক করেন, সেখান থেকে বের হয়ে পায়ে হেটে সাধারন মানুষের সাথে কুশল বিনিময় করে দোয়া চেয়ে নৌকা প্রতীকে ভোট প্রার্থনা করেন। পরে কাশিপুরের বাংলাবাজার প্রেসিডেন্ট রোড এলাকায় উঠান বৈঠক করেন এবং সেখান থেকে শেষ করে ফের পায়ে হেটে নির্বাচনী প্রচারনা চালায়। এরপর পশ্চিম দেওভোগ আমবাগান এলাকায় উঠান বৈঠক করেন। সেখান থেকে শেষ করে বিকেলে দেওভোগ নাগবাড়ি এলাকায় উঠান বৈঠক করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি এম সাইফউল্লাহ বাদল, সাধারন সম্পাদক শওকত আলী, দপ্তর সম্পাদক জাহিদুল হক খোকন, প্রচার সম্পাদক মোমেন শিকদার, জেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি হাবিবুর রহমান হাবিব, কাশিপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আইয়ুব আলী, সাধারন সম্পাদক এমএ সাত্তার, শহর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাত হোসেন ভূইয়া সাজনু, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এহসানুল হক নিপু, নারায়ণগঞ্জ কলেজের সাবেক ভিপি আলমগীর হোসেন, আওয়ামীলীগ নেতা হারুন অর রশিদ, কাশিপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য শামীম আহম্মেদ, ইউনিয়ন কৃষকলীগের সাধারন সম্পাদক আবুল কালাম, আতাউর রহমান আতা, ইউনিয়ন সেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি মোক্তার হোসেন, ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক এমদাদুল হক খোকা, তসলিম মিয়া, জুয়েল প্রধান, আহম্মেদ হোসেন রাজু সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

এই বিভাগের আরও