এবার মজিবর ও ইয়াসিনকেও হুমকি!

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:৪১ পিএম, ৯ জানুয়ারি ২০১৯ বুধবার

এবার মজিবর ও ইয়াসিনকেও হুমকি!

এবার নারায়ণগঞ্জ মহানগরের সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবর রহমান ও সেক্রেটারী হাজী মোঃ ইয়াসিন মিয়াকেও দেখে নেয়ার হুমকি দিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র, ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানা যুবলীগের আহবায়ক মতিউর রহমান মতি। সিদ্ধিরগঞ্জের আদমজী ইপিজেডে অবস্থিত অনন্ত গ্রুপের ঠিকাদারী কাজ নিয়ে বিগত দিনে তারই সহযোগী মানিককে মুঠোফোনে এহেন হুমকী দেন মতি।

সহযোগী মানিকের সঙ্গে মতির মুঠোফোনের কথোপকথনের একটি অডিও টেপ ইতিমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়েছে। এর আগেও জমি নিয়ে বিরোধে আওয়ামীলীগ কর্মী ইসমাইলকে মুঠোফোনে মতির হুমকী দেয়ার অডিও টেপটিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়েছে।

জানা গেছে, সম্প্রতি সিদ্ধিরগঞ্জের আদমজী ইপিজেডে অবস্থিত অনন্ত গ্রুপের গার্মেন্টে ঠিকাদারী কাজ নিয়ে ওই গার্মেন্টে গিয়েছিলেন সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবর রহমান ও সেক্রেটারী হাজী মোঃ ইয়াসিন মিয়া। ওইসময় তাদের সঙ্গে ওই গার্মেন্টে গিয়েছিলেন বিগত দিনে মতিরই সহযোগী মানিক। সিদ্ধিরগঞ্জের আদমজী ইপিজেডের প্রায় সকল কারখানার ঠিকাদারী ব্যবসার নিয়ন্ত্রন করে থাকেন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র, ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানা যুবলীগের আহবায়ক মতিউর রহমান মতি।

এদিকে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবর রহমান ও সেক্রেটারী হাজী মোঃ ইয়াসিন মিয়া আদমজী ইপিজেডে অবস্থিত অনন্ত গ্রুপের গার্মেন্টে ঠিকাদারী কাজের বিষয়ে কথা বলার সময়ে মতির সহযোগী মানিক উপস্থিত থাকায় প্রচন্ড ক্ষুব্দ হন মতি। তিনি মুঠোফোনে মানিককে বলেন, তুমি সেক্রেটারীরে চিন আমারে চিননা। ওই বেটা আমি তোরে চিনাইয়া দিমু কইলাম। তোর বাপেগো গিয়া কইস তোর মজিবর ও ইয়াসিন বাপেগো গিয়া কইস....দিব কইসে যা।

তখন মানিক তাকে বলতে থাকে ভাই আমাকে যাওয়ার জন্য কল দিসিল কিন্তু আমরাতো যাই নাই। তখর প্যানেল মেয়র মতি তাকে অকথ্য ভাষায় গালাগাল করে বলেন, তোরে আমি কি করি দেখ। আমার ব্যবসা নিয়া যাইবো। তুই আবার গিরিঙ্গী করস।

তখন মানিক বলতে থাকে সভাপতি সেক্রেটারী ডাকে আবার আপনিও গালাগাল করছেন আমি কই যাইতাম। তাইলে এই দেশ থেকে যাইগা। আমারে ডাকসিল কিন্তু আমি নিচে বসা ছিলাম। আমি উপরে যাইনাই। হেরা উপরে গেসে। আপনি শুধু আমারে গালাগাল করতাসেন।

প্যানেল মেয়র মতি সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবর রহমান ও সেক্রেটারী হাজী মোঃ ইয়াসিন মিয়ার উদ্দেশ্যে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে বলেন যদি পারে আরেকবার ফ্যাক্টরীতে যাইবো তাইলে বেইজ্জতি হইয়া বাইরবো। পারলে আমার ব্যবসা নিয়া যাইতে বল। আমি চ্যালেঞ্জ করলাম।

উল্লেখ্য সম্প্রতি জমি নিয়ে সংঘর্ষের আগে জমির মালিক ইসমাইলের মুঠোফোনে কল করেন প্যানেল মেয়র মতিউর রহমান মতির সহযোগী মানিক। প্রথমে ইসমাইলকে কাউন্সিলর অফিসে আসতে বলেন মতির সহযোগী মানিক। তখন ইসমাইল মানিককে বলে সে এখন নামাজে যাবে মাগরিবের নামাজের পরে সন্ধ্যায় কাউন্সিলর অফিসে আসবেন। তখন মানিক প্যানেল মেয়র মতিকে ফোন দিলে ইসমাইল প্যানেল মেয়র মতিকে সালাম দেয়। কিন্তু মতি সালামের জবাব না দিয়েই তাকে বলে, এক্ষুনই আসবি নাকি লোক দিয়া ধরাইয়া আনমু। ইসমাইল তাকে নামাজের পরে কাউন্সিলর অফিসে আসবে বলে জানালে মতি ক্ষুব্দ হয়ে তাকে বলে এখনই না আসলে তাকে পেটাতে পেটাতে বাড়ি থেকে ধরে আনা হবে। মতি তখনই তার অনুগামীদের নির্দেশ দেন ইসমাইলকে পিটাতে পিটাতে বাড়ি থেকে ধরে আনার জন্য। তখন মতি ইসমাইলকে অশ্রাব্য ভাষায় গালাগালি করে তাকে জিজ্ঞেস করে তোর জন্মদাতা কয়টা। তুই আমারে চিনস? তখন ইসমাইল মতিকে বলে ভাই আপনি এভাবে গালাগালি করছেন কেন। আপনি কথা ভাল মতো বলেন। তখন মতি আরো ক্ষুব্দ হয়ে ইসমাইলকে বলে তোকে কেন এর জবাব দিতে হবে। তুই পার পেয়ে গেছিস বলে মনে করছস। আমি তোরে দেইখ্যা দিমু। তোর জায়গা...তোর...। তুই এখন আমার অফিসে হাজির হবি। তোর বাপে তোরে অর্ডার দিসে আমি তোর বাপ তোরে পিটামু তুই এখন অফিসে আয়। তোরে আমি কি করি তুই দেখবি। এই বলে প্যানেল মেয়র মতি ফোন রেখে দেন। তাদের মধ্যকার কথোপকথনের এই অডিও টেপটিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়েছিল।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও

আরো খবর