বুড়োদের নেতৃত্বে ঝিমুচ্ছে ফতুল্লা থানা ছাত্রলীগ

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:৪৫ পিএম, ১২ জানুয়ারি ২০১৯ শনিবার

বুড়োদের নেতৃত্বে ঝিমুচ্ছে ফতুল্লা থানা ছাত্রলীগ

দীর্ঘদিন এক যুগ ধরে নতুন করে কমিটি গঠিত না হওয়ার ফলে ফতুল্লা থানা ছাত্রলীগের কার্যক্রম অনেকটাই ঝিমিয়ে পড়েছে। প্রকৃত ছাত্রলীগের ছেলে ফতুল্লা থানা থেকে সরে গিয়ে শহরমুখী রাজনীতিতে ঝুঁকে পড়ছে। তার কারণ হলো ফতুল্লা থানা ছাত্রলীগের দায়িত্বরত নেতৃবৃন্দরা বুড়ো হয়ে গেছে। আর বুড়োদের হাতে থানা ছাত্রলীগের দায়িত্ব থাকায় ছাত্রলীগের কার্যক্রম চোখে পড়ছে না। তাই ফতুল্লা থানা ছাত্রলীগকে সু-সংগঠিত করতে খুব শিগ্রই বুড়োদের হাত থেকে ছাত্রলীগের দায়িত্ব সরিয়ে নিয়ে প্রকৃত ছাত্রলীগের লোকদের দিয়ে একটি কমিটি গঠন করার দাবি করা হচ্ছে।

এদিকে ২০১১ সালের জুনে সাফায়েত আলম সানিকে সভাপতি ও মিজানুর রহমান সুজনকে সাধারন সম্পাদক করে জেলা ছাত্রলীগের কমিটি গঠন করা হয়েছিল। কিন্তু তারা দীর্ঘ কয়েক বছর কমিটির দায়িত্ব থাকার পর তাদের ব্যর্থতার কারণে ফতুল্লা থানা সহ কোন উপজেলার ছাত্রলীগের নতুন কমিটি গঠন করে দিয়ে যেতে পারেনি।

২০১৮ সালের ১০ মে পূর্বের কমিটিকে বাদ দিয়ে জেলা ছাত্রলীগের নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়। কমিটিতে সভাপতি করা হয় আজিজুর রহমান আজিজ ও সাধারণ সম্পাদক করা হয় আশরাফুল ইসলাম রাফেলকে। তারা কমিটি পাওয়ার পর এখনো পূর্নাঙ্গ কমিটি গঠনসহ থানা উপজেলা কমিটি গঠনের পরিকল্পনাই করতে দেখা যাচ্ছে না। যার কারনে থানা ও উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটিগুলো এখনো বুড়োদের হাতে দায়িত্ব রয়েছে বহালে। তবে বুড়োরা ছাত্রলীগের পরিচয় দিতে লজ্জা পেলেও ক্ষমতার প্রভাব খাটাতে নিজের পদ ব্যবহার করছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

জানা যায়, ফতুল্লা থানা ছাত্রলীগের কমিটি কত বছর আগে গঠন করা হয়েছিল তা ছাত্রলীগের অনেক নেতৃবৃন্দরা বলতে পারবে না। কিন্তু তারা এখনো ছাত্রলীগের পদ ব্যবহার করে চলছে। ফতুল্লা থানা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু মোহাম্মদ শরীফুল হক ও সাধারন সম্পাদক এমএ মান্নান পদ বহন করলেও ছাত্রলীগের ব্যানারে তারা কোন কার্যক্রম করতে দেখা যায় না। তারা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দদের ব্যানারে দলীয় কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করেন। কিন্তু তারা কেউ ছাত্রলীগের ব্যানারে কার্যক্রম চালায় না। এতে করে ফতুল্লা থানা ছাত্রলীগের কার্যক্রম ঝিমিয়ে পড়েছে। তবে উদীয়মান ছাত্রলীগের ছেলেরা বুড়োদের নেতৃত্বে ছাত্রলীগের কার্যক্রম চালাতে অপরাগত প্রকাশ করায় ফতুল্লায় ছাত্রলীগের কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে নারায়ণগঞ্জ সরকারী তোলারাম কলেজের এক ছাত্র জানান, তার বাড়ি ফতুল্লা এলাকায় হওয়া সত্বে ফতুল্লা থানা ছাত্রলীগের উদীয়মান নেতা না থাকায় শহরে ছাত্রলীগের রাজনীতি করতে হচ্ছে। ফতুল্লা থানা ছাত্রলীগের সভাপতি শরীফ ও সাধারণ সম্পাদক মান্নান কখনো উদীয়মান ছাত্রলীগের লোকদের খোজখবর নেয় না। তারা নিজেরা নিজেদের মত দলীয় কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। তারা ফতুল্লায় ছাত্রলীগের ব্যানারে কোন কার্যক্রম করছে না। এতে করে ছাত্রলীগের কার্যক্রম ঝিমিয়ে পড়েছে।

নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম রাফেল জানান, খুব শিগ্রই থানা উপজেলা কমিটি গুলো নতুন করে গঠন করা হবে। তার আগে জেলা ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের প্রক্রিয়া চলছে। এছাড়া ভাল ছেলেদের দিয়ে থানা ও উপজেলার ছাত্রলীগের কমিটি গঠনের পরিকল্পনা রয়েছে।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও

আরো খবর