রাজপথে নেমে আলোচনায় মহানগর বিএনপি

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:৩৯ পিএম, ৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ শনিবার

রাজপথে নেমে আলোচনায় মহানগর বিএনপি

দীর্ঘদিন ধরে রাজপথে বাইরে রয়েছে নারায়নগঞ্জ জেলা ও মহানগর বিএনপি। পুলিশি হামলা মামলার ভয়ে তারা সকল কর্মসূচি থেকেই দূরে ছিলেন। এমনকি বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবীতেও নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর বিএনপি তেমন কোন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারেনি। আর এই নিস্ক্রিয়তার মাঝেও একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন পরবর্তী কর্মসূচিতে রাজপথে নেমে আলোচনায় চলে এলো নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপি। তবে এক্ষেত্রে রাজপথ থেকে দূরে থেকে পিছিয়ে গেছে নারায়নগঞ্জ জেলা বিএনপি। এদিন তাদেরকে নারায়ণগঞ্জের কোথাও দেখা মিলেনি।

সূত্র বলছে, টানা তিন মেয়াদ ধরে ক্ষমতার বাইরে রয়েছে বিএনপি। ২০০৮ সালের নির্বাচনের পরাজয়ের মধ্য দিয়ে প্রথম দফা এরপর ২০১৪ সালের দশম জতীয় সংসদ নির্বাচন বর্জনের মধ্য দিয়ে দ্বিতীয় দফা এবং সর্বশেষ ২০১৮ সালের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মধ্য দিয়ে তৃতীয়বার ক্ষমতার বাইরে থেকে যায় বিএনপি। আর এই দীর্ঘ সময় ক্ষমতার বাইরে থাকায় নারায়ণগঞ্জ বিএনপির নেতাকর্মীরা দলীয় আন্দোলন সংগ্রামে অনেকটাই পিছিয়ে পড়েন। দলীয় কর্মসূচিতে জেলা ও মহানগর বিএনপির নেতাকর্মীদের তেমন একটা অংশগ্রহণ চোখে পড়ে না।

জানা যায়, গত বছরের ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদন্ড দেন আদালত। এই রায়কে ঘিরেও নারায়ণগঞ্জ বিএনপির নেতাকর্মীরা তেমন কোন জোরালো আন্দোলন গড়ে তুলতে পারেননি। পরবর্তীতে গত ৩০ অক্টোবর সেই সাঁজা বেড়ে ১০ বছর হওয়াতে নারায়ণগঞ্জ বিএনপির আন্দোলন জমেনি। শুধুমাত্র নামকাওয়াস্তেই কর্মসূচি পালন করে গেছেন। তাদের দলীয় প্রধান মাসের পর মাস কারাভোগ করলেও আন্দোলন সংগ্রামে নিস্ক্রীয়ই থেকে যান নারায়ণগঞ্জ বিএনপির নেতাকর্মীরা।

এরকম পরিস্থিতি চলাকালিন অবস্থায়ই অনুষ্ঠিত হয় একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন বর্জন করলেও এবারের নির্বাচনকে বিএনপি আন্দোলনের অংশ হিসেবেই অংশগ্রহণ করে। তবে এই নির্বাচনকে ঘিরেও নারায়ণগঞ্জ বিএনপির তৃণমূলের নেতাকর্মীরা জেগে উঠতে পারেননি। শুধুমাত্র প্রার্থীদেরকেই সংসদীয় এলাকায় মাঝে মধ্যে দেখা গেছে। তাদের সাথে জেলা ও মহানগর বিএনপির শীর্ষ পর্যায়ের নেতাকর্মীদের তেমন একটা দেখা যায়নি। ফলে নারায়নগঞ্জের ৫টি আসনেই বিএনপির মনোনীত প্রার্থীদের শোচনীয় পরাজয় ঘটে। যদিও বিএনপির নেতাকর্মীদের অভিযোগ নির্বাচনে কারচুপি করে বর্তমান ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থীরা জয়ী হয়েছেন।

সেই আলোচিত সমালোচিত নির্বাচনের পর বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াসহ ও সারাদেশে বিএনপির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবিতে ৯ ফেব্রুয়ারি দেশব্যাপী প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করার ঘোষণা দিয়েছিল। কিন্তু সেই কর্মসূচিতে নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির কয়েকজনের দেখা মিললেও জেলা বিএনপির কাউকেই দেখা পায়নি। ফলে নির্বাচন পরবর্তী সময়ে রাজপথে নেমে নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপি একচেটিয়াভাবে আলোচনা চলে এলো। কিন্তু এক্ষেত্রে পিছিয়ে গেল নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি।

যদিও নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির নেতাকর্মীরা কোন কর্মসূচি পালন করতে পারেননি। তবে অনেকদিন পর রাজপথে নেমে আসাটাই নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির জন্য প্লাস পয়েন্ট গেল। এদিন পুলিশি বাধার মুখে পড়ে নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির নেতাকর্মীদের কর্মসূচি পালন না করেই রাজপথ ত্যাগ করতে হয়েছে।

মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামাল বলেন, রাজনৈতিক কর্মসূচি পালন করাটা সাংবিধানিক অধিকার। কিন্তু পুলিশ আমাদের প্রেসক্লাবের সামনে কর্মসূচি পালন করতে দেয়নি। তাই আমারা পুলিশের সাথে হিটিংয়ে না গিয়ে কর্মসূচি পালন না করেই চলে আসছি। আমরা আর গলিতে কর্মসূচি পালন করবো না। ফটোশেসনের প্রোগ্রাম নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপি আর করবে না।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও