সহাবস্থান পেলে তোলারাম ছাত্র সংসদ নির্বাচনে প্রস্তুত ছাত্রদল

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০২:০৪ পিএম, ৮ মার্চ ২০১৯ শুক্রবার

সহাবস্থান পেলে তোলারাম ছাত্র সংসদ নির্বাচনে প্রস্তুত ছাত্রদল

দীর্ঘ ২৮ বছর পর ডাকসু নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ায় সারাদেশের মত নারায়ণগঞ্জের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর ছাত্র সংসদ নির্বাচনের দাবী জোরদার হচ্ছে। ডাকসু নির্বাচন শুরু হওয়ায় তোলারাম কলেজ ছাত্র সংসদ নির্বাচনের দাবিও ধীরে ধীরে জাগ্রত হচ্ছে। ছাত্রলীগ, ছাত্রদল, ছাত্র ফেডারেশন, ছাত্র ফ্রন্ট, ছাত্র ইউনিয়নসহ বিভিন্ন ছাত্রসংগঠনের নেতারা ছাত্র সংসদ নির্বাচনের গুরুত্বের কথা স্বীকার করে আসছেন।

তবে রাজনৈতিক হালচালে তোলারাম কলেজে দীর্ঘদিন যাবৎ প্রতিপক্ষ বিহীন অবস্থায় ছাত্র রাজনীতি চালিয়ে আসছে ছাত্রলীগ। তোলারাম কলেজ ছাত্রলীগ মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান রিয়াদকে স্বঘোষিত ভিপি দাবী করে চালিয়ে আসছে দীর্ঘদিন ধরে। এক্ষেত্রে তোলারাম কলেজ কতৃপক্ষের নির্দেশ অনুযায়ী পরিচালনা করা হচ্ছেই বলে দাবী করে তোলারাম কলেজ ছাত্রলীগ।

সবশেষ তোলারাম কলেজ ছাত্র সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিলো ২০০৪ সালের ১৬ অক্টোবর। সেসময় এককভাবে ছাত্র সংসদের ভিপি ও জিএস হিসেবে নির্বাচিত হয় ছাত্রদল সমর্থিত রাজীব-শাহ আলম প্যানেল। সে সময় নির্বাচনে তৎকালীন এমপি গিয়াসউদ্দিনের প্রভাব থাকার অভিযোগ রয়েছে। এর পরবর্তীতে আর কোন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়নি তোলারাম কলেজে। ক্ষমতার পালাবদলে কলেজের ছাত্র সংসদের নেতৃত্বে পালাবদলও ঘটেছে নিয়ম মাফিক।

ছাত্র রাজনীতিতে ক্যাম্পাসগুলোতে সকল দলের সহবস্থান থাকার কথা থাকলেও তোলারাম কলেজে ছাত্রলীগ ব্যতিত অন্য কোন দলের অস্তিত্ব প্রায় শূন্য। দলীয় পরিচয় থাকলেও বাস্তবে তার কোন কার্যক্রম নেই কলেজে। ২০১৪ সালে তোলারাম কলেজ ছাত্রদলের কমিটি ঘোষিত হলেও সে কমিটির নেতাকর্মীদের ছাত্রত্ব ও কলেজে সক্রিয়তা নিয়ে প্রশ্ন উঠে। এছাড়া ২০১৫ সালের জুনে বাম ঘরানার ছাত্রজোটের সাথেও ছাত্রলীগের সাথে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে কয়েক দফায়। এর পর থেকেই তোলারাম কলেজে ছাত্র রাজনীতিতে সক্রিয় দেখা যায়নি অন্য কোন দলকে।

নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মশিউর রহমান রনি নিউজ নারায়ণগঞ্জকে জানান, ডাকসু নির্বাচনের মত সহাবস্থান তৈরী করতে পারলে তোলারাম কলেজ ছাত্র সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে আমরা প্রস্তুত। সে ক্ষেত্রে ভোটের মাঠ সমান ও সুষ্ঠ হতে হবে। আমরা জানতে পেরেছি নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ নিজেও এই ছাত্র সংসদ নির্বাচন চান। আশা করি খুব দ্রুতই তোলারাম কলেজ ছাত্র সংসদ নির্বাচন শুরু হবে। 

মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি শাহেদ আহমেদ নিউজ নারায়ণগঞ্জকে জানান, ইতোমধ্যে তোলারাম কলেজে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। নির্বাচনের আভাস পাওয়া গেলে কলেজের ছাত্ররা সক্রিয়ভাবে অংশ গ্রহণ করবে। তবে কলেজে এই মুহুর্তে কারা ছাত্রদলের রাজনীতিতে সক্রিয় রয়েছে তা জানতে চাইলে নিরাপত্তার স্বার্থে তাদের নাম গোপন রাখেন তিনি। 

তবে, কলেজ ছাত্র সংসদ সচল রাখার পক্ষে সাবেক ছাত্রনেতারাও। তাঁরা বলছেন, পড়াশোনার সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখা ছাড়াও খেলাধুলা ও বিতর্ক প্রতিযোগিতা, সংস্কৃতিচর্চা, নিয়মিত সাময়িকী প্রকাশের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের সৃজনশীল জ্ঞানের চর্চা, তরুণ নেতৃত্বের বিকাশ, শিক্ষার্থীদের ন্যায়সংগত দাবি আদায়, ক্যাম্পাসে বহিরাগত ঠেকানো, গণতান্ত্রিক চর্চা এবং ছাত্ররাজনীতির মাধ্যমে জাতীয় রাজনীতির নেতৃত্ব নিতে মেধাবী, ত্যাগী ও যোগ্যদের তৈরি করতে ছাত্র সংসদের বিকল্প নেই। ছাত্র সংসদের নির্বাচন না হওয়ায় সাধারণ শিক্ষার্থীদের মাঝ থেকে তরুণ নেতৃত্ব হারাচ্ছে দেশ।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও