আন্দোলনকে ত্বরান্বিতে নেতাকর্মীদের শপথ করালেন তৈমূর

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৩:০৮ পিএম, ২৬ মার্চ ২০১৯ মঙ্গলবার

আন্দোলনকে ত্বরান্বিতে নেতাকর্মীদের শপথ করালেন তৈমূর

দীর্ঘদিন ধরেই বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া কারাগারে রয়েছেন। প্রথমে এক মামলায় কারাগারে পাঠালেও এরপর তার বিরুদ্ধে একের মামলা দায়ের করা হয়েছে। আর এসকল মামলায় দিনের পর দিন বেগম খালেদা জিয়া কারাভোগ করছেন। একটি মামলায় জমিন হলে অন্য মামলায় তাকে কারাগারে নেয়া হচ্ছে। তার মুক্তির দাবিতে বিএনপির নেয়া সকল কর্মসূচিতেই নারায়ণগঞ্জ বিএনপির ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে।

তবে এবার বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনকে ত্বরান্বিত করতে নেতাকর্মীদের নিয়ে শপথ করেছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি ও বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার।

মহানগর স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে ২৬ মার্চ মঙ্গলবার সকালে নারায়ণগঞ্জ শহরে বিশাল র‌্যালি চাষাঢ়ায় বিজয় স্তম্ভে শ্রদ্ধাঞ্জলী জ্ঞাপন শেষে নেতাকর্মীদের নিয়ে এই শপথ করেছেন।

শপথে বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য যে কোন আন্দোলন সংগ্রামে তারা মাঠে থাকার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেছেন। বেগম খালেদা জিয়ার ম্ুিক্তর ব্যাপারে তারা দৃঢ় প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।

শপথ শেষে অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার বলেছেন, এই দেশে মুক্তিযুদ্ধ হয়েছিল গণতন্ত্র রক্ষার জন্য। সে গণতন্ত্র আজকে বিপর্যস্ত। গণতন্ত্রের মা আজকে জেলখানায়। আজকে আমাদের শপথ হোক খালেদা জিয়াকে জেলাখানা থেকে মুক্ত না করা পর্যন্ত আমরা ঘরে ফিরবো না। আমরা চাই, আমাদের একমাত্র দাবী, একমাত্র রাজনীতি, একমাত্র শপথ হোক বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি। আমি বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতাদের উদ্দেশ্য বলছি, আমাদের একমাত্র কাজ হোক বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি।

তিনি আরও বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য আমরা আলাদাভাবে কর্মসূচি দিব। আইনি লড়াই সহ সকল প্রকার কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে। আমাদের অন্য কোন কিছুর দরকার নেই। আমাদের প্রধান দরকার এখন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি। প্রথম শর্ত আন্দোলন হোক, রাজনীতি হোক, সংগঠন হোক, সবকিছুর প্রধান শর্ত হোক খালেদা জিয়ার মুক্তি।

 

এসময় উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সাবেক সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক প্রবীণ বিএনপি নেতা আনোয়ার হোসেন খান, মহানগর যুবদলের সভাপতি মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ, জেলা ওলামাদলের সভাপতি শামসুর রহমান খান বেনু, ফতুল্লা থানা বিএনপির সাবেক সভাপতি অধ্যাপক খন্দকার মনিরুল ইসলাম, শহর বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি সুরুজ্জামান, হাজী শাহিন ও যুগ্ম সম্পাদক নুরুল হক চৌধুরী দিপু, যুবদলের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য গোলাম মোস্তফা সাগর, আইনজীবী ফোরাম নেতা অ্যাডভোকেট আব্দুল হামিদ খান ভাষানী, অ্যাডভোকেট সুলতান মাহমুদ ও মহানগর যুবদলের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক আক্তার হোসেন খোকন শাহ, মহানগর যুবদলের সহ সভাপতি মনোয়ার হোসেন শোখন, সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে মনতাজ উদ্দিন মন্তু ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাগর প্রধান সহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও