ফাঁকা মাঠেও ‘গলি’ ছাড়তে পারেনি নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৬:২২ পিএম, ২৬ মার্চ ২০১৯ মঙ্গলবার

ফাঁকা মাঠেও ‘গলি’ ছাড়তে পারেনি নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি

মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে সকাল থেকেই নগরী ছিল ফাঁকা। পুলিশের তৎপরতাও দেখা যায়নি কোথাও। সকলেই স্বাধীনতা দিবসে ব্যাপক জাকজমক করে র‌্যালী করে ফুল দিয়ে শহীদদের শ্রদ্ধা জানিয়েছেন। কিন্তু এমন দিনেও গলির ভেতরে ছিল নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি। গলির ভেতর জড়ো হওয়া, সেখানে কয়েক মিনিটের সমাবেশ, আবার সেখান থেকেই নিরব র‌্যালী নিয়ে গিয়েছেন নেতাকর্মীরা।

২৬ মার্চ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় সরেজমিনে চাষাঢ়া বালুর মাঠ এলাকার গলিতে গিয়ে দেখা গেছে, একেক করে নেতাকর্মীরা সেখানে এসে জড়ো হচ্ছেন। ছাত্রভঙ্গ হয়ে হয়ে দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় ব্যানার হাতে নিয়ে দাঁড়িয়ে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য শুরু করেন নেতারা। ৫ থেকে ১০ মিনিটের মধ্যে নেতাকর্মীদের বক্তব্য শেষ হয়ে যায়। তারপর বের হয় র‌্যালী।

‘স্বাধীনতা এবং জাতীয় দিবসে মুক্তিযুদ্ধের ঘোষক শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান এবং সকল শহীদ যোদ্ধাদের শ্রদ্ধাঞ্জলি ও স্বাধীনতা দিবসের র‌্যালী’ লেখা ব্যানারে আয়োজন করেন নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠন। তবে এতে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির চেয়ে জেলা মহিলা দল ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানা যুবদলের নেতাকর্মীরাই ছিল সব থেকে বেশি। জেলা বিএনপির তেমন কোন উল্লেখ যোগ্য নেতাকর্মী ছিল না। যেখানে গত ২৫ মার্চ ২০৪ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি কাজী মনিরুজ্জামান, সেক্রেটারী মামুন মাহমুদ, সহ সভাপতি আবুল কালাম আজাদ বিশ্বাস, আব্দুল হাই রাজু, খন্দকার আবু জাফর, মনিরুল ইসলাম রবি, মোশারফ হোসেন, আশরাফুল হক রিপন, হুমায়ন কবির রফিক, জেলা মহিলা দলের সভাপতি নুরনাহার, সাজেদা খাতুন মিতা, আয়েশা সাখাওয়াত দিনা, মহানগর মহিলা দলের সভাপতি রহিমা শরিফ মায়া, স্বেচ্ছাসেবক দলের আনোয়ার সাদাত সায়েম, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা যুবদলের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, ৩নং ওয়ার্ড যুবদলের সভাপতি মো. সোহেল, ৫নং ওয়ার্ড যুবদলের সভাপতি শাহজালাল কালু, যুবদল নেতা ওসমান, রাসেল, ইমরান, মাসুদ, রাকিবুল দেওয়ান, সোহেল, মোজ্জামেল, মামুন, জাহাঙ্গীর প্রমুখ।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক র‌্যালীতে অংশগ্রহণকারী বিএনপির কর্মীরা জানান, স্বাধীনতা দিবসেও গলির ভেতরে জমায়েত হতে হয়। আবার এখানে দাঁড়িয়ে সভা করে সেটাও সংক্ষিপ্ত। আবার গলির ভেতর থেকে র‌্যালী নিয়ে গিয়ে বিজয় স্তম্ভে ফুল দেয়। সবাই ফুল দেয় সকাল সকাল। কিন্তু এরা এসেছে বেলা ১১টায় রোদের মধ্যে। এর আগে এতো সংগঠনের র‌্যালী গেল কি সুন্দর জাতীয় পতাকা, জিয়াউর রহমান ও খালেদা জিয়ার পোস্টার সহ কিন্তু জেলা বিএনপির মতো এতো বড় একটা সংগঠনের তেমন কোন আয়োজনই নেই। নেতারা আসছে গাড়িতে কোন রকম ফুল দিয়ে যেতে পারলেই বাঁচে।

নেতাকর্মীরা আরো বলেন, আজকে কোন পুলিশ নেই। কিংবা পুলিশের কোন বাধাও নেই। আজতো প্রেস ক্লাবের সামনে বঙ্গবন্ধু সড়কে সবাই জমায়েত হতে পারতো। কিন্তু তারা সেটাও করে নাই পুলিশের ভয়ে গলির ভেতরে ঢুকছে। আর পুলিশ যাতে কিছু না বলে সেজন্য তড়িগড়িকরে সভাপতি সেক্রেটারী বক্তব্য দিয়ে র‌্যালী নিয়ে বের হয়ে গেছে। এ হলো জেলা বিএনপি।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও