জাতীয় পার্টির যুগ্ম মহাসচিব পদ থেকে এমপি খোকার পদত্যাগ

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:০৬ পিএম, ৯ মে ২০১৯ বৃহস্পতিবার

জাতীয় পার্টির যুগ্ম মহাসচিব পদ থেকে এমপি খোকার পদত্যাগ

অযোগ্যদের পদোন্নতির প্রতিবাদে জাতীয় পার্টির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন জাতীয় স্বেচ্ছাসেক পার্টির সভাপতি ও নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা।

এদিকে সাংগঠনিক কার্যক্রমের স্বীকৃতি হিসেবে জাতীয় পার্টির ৮ নেতাকে প্রেসিডিয়াম সদস্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।

৯ মে বৃহস্পতিবার এরশাদ স্বাক্ষরিত এক সাংগঠনিক নির্দেশে ওই আট নেতাকে প্রেসিডিয়াম সদস্য হিসেবে নিয়োগ প্রদান করা হয়।

জাপার নতুন প্রেসিডিয়াম সদস্যরা হলেন : সাতক্ষীরার সৈয়দ দিদার বখত, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কাজী মামুনুর রশিদ, নীলফামারীর ইকবাল জাফর সিদ্দিকী, ফেনীর নাজমা আখতার, গাজীপুরের আব্দুস সাত্তার মিয়া, নারায়ণগঞ্জের আলমগীর সিকদার লোটন, চাঁদপুরের এমরান হোসেন মিয়া ও নীলফামারীর মেজর (অব.) রানা মোহাম্মদ সোহেল।

এদিকে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান সাংগঠনিক এক নির্দেশে আট নেতাকে প্রেসিডিয়াম সদস্য হিসেবে পদোন্নতি দেওয়ার পরই পদত্যাগের ঘোষণা দেন খোকা।

তিনি বলেন, শীর্ষ নেতৃত্বের অযোগ্যতার প্রতিবাদে জাতীয় পার্টির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব পদ থেকে পদত্যাগ করলাম।

লিয়াকত হোসেন খোকা বলেন, আমার পরিচয় আমি পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ও জাতীয় পার্টির একজন সাধারণ কর্মী। সাবেক সফল রাষ্ট্রপতি পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের অসুস্থতার সুযোগ নিয়ে সুযোগ সন্ধানী অযোগ্য নেতৃত্ব জাতীয় পার্টির সাধারণ কর্মীদের আবেগ নিয়ে ছিনিমিনি খেলছেন।

তবে তিনি পল্লীবন্ধু এরশাদের একজন সাধারণ কর্মী হিসেবে আজীবন জাতীয় পার্র্টির প্রাথমিক সদস্য পদে বহাল থাকবেন বলেও জানান।

তিনি বলেন, জাতীয় পার্টির জন্মলগ্ন থেকে আমি এ পার্টি করে আসছি। পার্টির বর্তমান নেতৃত্বের উপর আমার আস্থা নেই। পল্লীবন্ধু এরশাদকে অসুস্থ অবস্থায় একটি মহল পার্টির ভেতর যেভাবে প্রমোশন দিচ্ছে তা মেনে নেয়া যায় না।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও