রশিদের কারণে সরলেন মুকুল, প্রার্থী দিবে না জাতীয় পার্টিও

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:৪৯ পিএম, ২০ মে ২০১৯ সোমবার

রশিদের কারণে সরলেন মুকুল, প্রার্থী দিবে না জাতীয় পার্টিও

গত কয়েক মাস ধরেই বন্দর উপজেলার চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মুকুল বলে আসছিলেন প্রার্থী হবেন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে। কিন্তু থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এ রশিদ নৌকার মনোনয়ন পাওয়ার পরেই পাল্টে যায় চিত্র। নির্বাচন থেকে সরে আসলেন মুকুল। কারণ রশিদ হলেন প্রভাবশালী ওসমান ভ্রাতৃদ্বয়ের বলয়ের নেতা। ১৯ মে রশিদের নাম চূড়ান্ত হওয়ার পরেই জাতীয় পার্টির এমপি সেলিম ওসমান বিবৃতিতে রশিদকে অভিনন্দন জানান। তখনই পরিস্কার হয়ে যায় চিত্র।

বিএনপির একটি সূত্র জানান, আওয়ামী লীগ বন্দর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এ রশিদকে মনোনয়ন দেওয়ার পরেই পাল্টে যায় চিত্র। কারণ এখানে বিদ্রোহী কিংবা প্রতিদ্বন্দ্বি হয়ে তেমন সুবিধে মিলবে না। যদি আবার আওয়ামী লীগে রশিদের বিদ্রোহী প্রার্থী কেউ থাকতেন তাহলে মুকুল সুযোগ নিতেন। তাছাড়া নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ, সোনারগাঁও, আড়াইহাজার উপজেলায় বিদ্রোহী প্রার্থীদের ভালে কোন খবর ছিল না বিগত ভোটে। ফলে এবার কোন ধরনের ঝুঁকি নিচ্ছেন না মুকুল।

এ ব্যাপারে মুকুল অবশ্য জানান ভিন্ন কথা। তিনি জাতীয় রাজনীতির ইস্যু টেনে বলেন, ‘আমাকে বন্দরের লোকজন নির্বাচন করতে বলেছেন। কিন্তু এখন নির্বাচনের পরিবেশ নাই। তাছাড়া আমি একটা দল করি। সেই দল বিএনপি উপজেলা নির্বাচনে যাচ্ছে না। সে কারণেই আমি নির্বাচনে থাকছি না।’

অপরদিকে জাতীয় পার্টির জেলার আহবায়ক আবুল জাহের জানান, গত সংসদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনটি জাতীয় পার্টিকে ছাড় দেওয়া হয়েছে। সে কারণেই এবার বন্দর উপজেলাতে নৌকাকে ছাড় দিয়েছে জাতীয় পার্টি।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও