আমরা ভয়ংকর রাজনীতির বাস্তবতায় আছি : জোনায়েদ সাকি

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ১০:৩৪ পিএম, ২৪ মে ২০১৯ শুক্রবার

আমরা ভয়ংকর রাজনীতির বাস্তবতায় আছি : জোনায়েদ সাকি

গণসংহতি আন্দোলনের কেন্দ্রীয় কমিটির প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি বলেন, ‘আমরা যে বাস্তবতায় আছি তা খুব ভয়াবহ এক বাস্তবতা। রাজনীতি করি কিংবা না করি। রাজনীতি বা সাংস্কৃতির সাথে যে দৃশ্যমান প্রক্রিয়াগুলো আছে তার সাথে আমরা যুক্ত নই। আমি একজন সাধারণ নাগরিক যেমন কোটা আন্দোলনকারী। যাদেরকে কোটা আন্দোলনকারী বলা হয় তাকেও আজকে এই অবস্থা অনুভব করতে হচ্ছে যে আমরা ভয়ংকর রাজনীতির বাস্তবতায় আছি। যার প্রভাব কোন না কোন ভাবে সামাজিক, অর্থনৈতিক সর্বস্তরে প্রতিফলিত হতে শুরু করেছে।’

২৪ মে শুক্রবার বিকেলে গণসংহতি আন্দোলনের জেলা শাখার উদ্যোগে সংগঠনের কার্যালয়ে আয়োজিত এক সম্মিলনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, দেশে একটা বিদ্বেষ ও ঘৃণার রাজনীতি ক্রমাগত দানা বাধছে এবং শক্তিশালী হচ্ছে। বৈষম্য এবং বিভক্তির রাজনীতি ক্রমাগত দাঙ্গাবাজদের শক্তিশালী করছে। এর ফলে সমাজের মধ্যেও বিভক্তি দেখা দিচ্ছে। রাজনৈতিক বিভাজনের মধ্য দিয়ে এমনকি মুদি দোকানদাররাও আলাদা হয়ে যাচ্ছে। এই বিভক্তি কিন্তু বিপজ্জনক ভাবে অন্যরকম প্রেক্ষাপট তৈরী করছে যা নেতিবাচক রাজনীতিতে কাজে লাগে।

জোনায়েদ সাকি বলেন, এর একটা বৈশ্বিক প্রবণতা আছে। আমরা দেখতে পাচ্ছি যে বর্তমান সরকার পুরো রাষ্ট্রতন্ত্রকে নিজেদের আয়োত্বে নিয়ে আসতে পেরেছে। এবং রাষ্ট্রের সবগুলো অঙ্গ প্রতঙ্গ প্রশাসন, পুলিশ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এমনকি সেনাবাহিনী, আইন আদালত, মিডিয়া, বুদ্ধিজীবী সমাজ, শিক্ষা ব্যবস্থা সব কিছুকেই তাঁরা এমনভাবে একচেটিয়া মনোভাব কায়েম করেছে যে এই সমস্ত ক্ষেত্রের মানুষগুলোকে সুবিধাভোগী হিসাবে গড়ে তুলেছে। যাদের একটা অংশ এখন মনে করছে এই সরকার না থাকলে আমরা নিজেরাই বিপদে পরবো। কাজেই এখন সরকারকে ক্ষমতায় রাখা তাদের দায়বদ্ধতা হয়ে পরেছে। তাঁরা এক চেটিয়া ভাবে ক্ষমতায় থাকার জন্য পুরো ব্যবস্থার উপর একটা দলীয় কর্তৃত্ব কায়েম করেছে। এতে সমাজ থেকে রাষ্ট্র বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ছে।

এসময় সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রফিউর রাব্বি বলেন, আমরা খুব সংকটপূর্ণ সময় পার করছি। আমরা সত্তরেও বলেছি এখনো বলছি। কিন্তু বর্তমান প্রেক্ষাপট একটু ভিন্ন। কারণ বর্তমান সময়ের কৃষকরা যাদের দিকে তাকিয়ে থাকেন সেই সাংবাদিক, বুদ্ধিজীবীরা একেবারে নিশ্চুপ যা আগে ছিলো না। বর্তমান সময়ে তাদের মাঝে কোনো কিছু পাওয়ার প্রবণতা রয়েছে।

গণসংহতি আন্দোলন নারায়ণগঞ্জ জেলার সমন্বয়ক তরিকুল সুজনের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক ধীমান সাহা জুয়েল, নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের সাবেক সভাপতি ভবানী শংকর রায়, গণসংহতি আন্দোলনের নির্বাহী সমন্বয়কারী অঞ্জন দাস, ছাত্র ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক জাহিদ সুজনসহ গণসংহতি আন্দোলনের নেতৃবৃন্দ।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও