ক্রমশ পিছিয়ে যাচ্ছে বিএনপি

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:১৭ পিএম, ৮ জুলাই ২০১৯ সোমবার

ক্রমশ পিছিয়ে যাচ্ছে বিএনপি

দীর্ঘদিন ধরে ক্ষমতার বাইরে থাকায় নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর বিএনপি দিন দিন রাজপথ ভুলে যায়। দলীয় কোন আন্দোলন সংগ্রামেই তারা সরব হতে পারছে না। সেই সাথে সাথে এবার জনদাবীতেও নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর বিএনপির নেতাকর্মীরা চমক দেখাতে পারছে না। তবে তাদের চেয়েও অনেক দুর্বল হিসেবে পরিচিত বাম ঘরনার রাজনৈতিক দলগুলো জনদাবীতে আধাবেলা হরতাল পালন করে ঠিকই দেখিয়ে দিয়েছেন। পুলিশের রক্তচক্ষুকে উপেক্ষা করেও তারা কিছুক্ষণের জন্য নারায়ণগঞ্জের রাজপথ দখল করে রেখেছিলেন। যদিও শেষ পর্যন্ত তাদেরকে সড়ে যেতে হয়েছে। কিন্তু বিএনপির মতো তাদেরকে লেজ গুটিয়ে পালাতে হয়নি। বলা চলে বাম দলগুলো আধাবেলা হরতাল পালন করে নারায়ণগঞ্জ বিএনপিকে লজ্জা দিয়েছেন।

সূত্র বলছে, ২০০৮ সালের নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর থেকেই টানা তিন মেয়াদ ধরে ক্ষমতার বাইরে রয়েছে বিএনপি। আর এই দীর্ঘদিন ধরে ক্ষমতায় বাইরে থাকায় নারায়ণগঞ্জ বিএনপি দিন দিন একটি নিস্ক্রীয় সংগঠনে পরিণত হয়। দলীয় কোন আন্দোলন সংগ্রামে রাজপথে কর্মসূচি পালন করা তো দূরের কথা এমনকি রাজপথের ধারে কাছেও ঘেঁষতে পারেননি তারা। একই সাথে একের পর এক রাজনৈতিক হয়রানীমূলক মামলায় বিএনপির নেতাকর্মীরা হয়ে পড়েন ঘরছাড়া। বিভিন্ন মামলায় ফেরারী আসামী হয়ে নারায়ণগঞ্জ বিএনপির নেতাকর্মীদের দিনের পর দিন পরিবার পরিজন ছেড়ে দিন যাপন করতে হয়েছে।

তবে গত ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হয়ে যাওয়া একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন পরবর্তী সময়ে নারায়ণগঞ্জ বিএনপি নেতাদের তেমন একটা মামলা হামলার মুখোমুখি হতে হচ্ছে না। সেই সাথে ক্ষমতাসীনদের চোখ রাঙানিও আগের চেয়ে অনেক কমে গেছে। ফলে নারায়ণগঞ্জ বিএনপির নেতাকর্মীরা নির্বাচন পরবর্তী সময়ে খোশ মেজাজেই রয়েছেন। তবে এই খোশ মেজাজে থাকাবস্থায়ও দলীয় কর্মসূচিতে নারায়ণগঞ্জ বিএনপির নেতাকর্মীদের সক্রিয় অংশগ্রহণের দেখা মিলছে না। এখনও সেই মামলার আতঙ্ক কাটিয়ে উঠতে পারছেন না তারা। ফলে পূর্বের মতো নামমাত্র কর্মসূচিই পালন করে যাচ্ছেন নারায়ণগঞ্জ বিএনপি। দলীয় কর্মসূচিতে নেতাকর্মী সমর্থকদের অংশগ্রহণ খুবই কম। সেই সাথে জনদাবীতেও তাদের পিছুটান দেখা যাচ্ছে।

জানা যায়, গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় বিএনপি ২ জুলাই ঢাকা বাদে সারা দেশে প্রতিবাদ কর্মসূচি এবং ঢাকা মহানগরীর থানায় থানায় মিছিল কর্মসূচির ঘোষণা দেয়। যার ধারাবাহিকতায় এদিন বিকেলে শহরের বালুরমাঠ এলাকার তিতাস গ্যাস অফিসের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করে নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর বিএনপি।

সেই সূত্র ধরে প্রথমে নারায়ণগঞ্জ মহানগর এবং পরে নারায়ণগঞ্জ বিএনপির উদ্যোগে বিক্ষোভ সমাবেশ কর্মসূচি পালিত হয়। কিন্তু উভয় কর্মসূচিতেই নেতাকর্মী সমর্থকদের তেমন একটা উপস্থিতি মিলেনি। অথচ এদিন পুলিশের কোন বাধা কিংবা কোন হয়রানীর ভয় ছিল না।

এর আগে এক বিক্ষোভে মহানগর বিএনপিতে সভাপতি আবুল কালাম ও সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামাল উপস্থিত থাকলেও তাদের কর্মী সমর্থকের উপস্থিত ছিল খুবই কম। আর জেলা বিএনপির সভাপতি কাজী মনিরুজ্জামান এবং সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মামুন মাহমুদ এই দুইজনের কেউই উপস্থিত ছিলেন না। সেই সাথে কর্মী সমর্থকের সংখ্যাও একেবারে নগন্য। ফলে জেলা ও মহানগর বিএনপি কারও পক্ষেই জোড়ালোভাবে কর্মসূচি পালন করা সম্ভব হয়নি। শুধুমাত্র তারা কেন্দ্রীয় নির্দেশ পালন করেছেন।

অথচ তাদের চেয়ে কম শক্তিশালী হয়েও গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির ও সিলিন্ডার গ্যাসের দাম কমানোর প্রতিবাদে বাম গণতান্ত্রিক জোট ঠিকই আধাবেলা হরতাল পালন করে দেখিয়ে দিয়েছেন। এই হরতালকে ঘিরে গত কয়েকদিন ধরেই নারায়ণঞ্জের বিভিন্ন জায়গায় মিছিল মিটিং ও সভা সমাবেশ করে বেড়িয়েছে নারায়ণগঞ্জের বাম ঘরনার রাজনৈতিক দলগুলো। অনেক চ্যালেঞ্জের মোকাবেলায়ও তারা দমে যায়নি।

হরতালের দিন ৭ জুলাই সকাল থেকেই নারায়ণগঞ্জের রাজপথে ছিল বাম গণতান্ত্রিক জোটের আওতাভুক্ত বিভিন্ন বাম রাজনৈতিক দলগুলো। এদিন সকালে কিছুক্ষণের জন্য হলেও বাম জোটের নেতাদের দখলে ছিল নারায়ণগঞ্জের রাজপথ। পিকেটিংকারীরা শহরের ২নং রেলগেইট এলাকায় কয়েকটি অটোরিক্সা ভাঙচুর করেন। এসময় তারা কয়েকটি গাড়িও ভাঙচুর করেছেন সেই চলাচলে বাধা দেয়ার চেষ্টা করেন। পরবর্তীতে বেলা বাড়ার সাথে সাথে পুলিশের বাধায় তাদেরকে সড়ে যেতে হয়েছে। তবে তারা একেবারে ছেড়ে দেননি নারায়ণগঞ্জের রাজপথ। তারা শহরের দুই নং রেলগেইট এলাকায় ঠিকই দুপুর পর্যন্ত হরতালের সমর্থনে পথসভা চালিয়ে গেছেন।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও