এবার হকারদের পাশে এসপি হারুন, মেয়রকে অনুরোধ

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:১৯ পিএম, ২৩ জুলাই ২০১৯ মঙ্গলবার

এবার হকারদের পাশে এসপি হারুন, মেয়রকে অনুরোধ

নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ বলেছেন, হকাররা আমাদের ভাই, আমাদের সমাজেরই মানুষ। আমরা চাই তারা কর্মসংস্থানে কাজ করুক। যে কারণে আমরা এসেছি হকাররা যেন নিজ নিজ জায়গায় বসতে পারে। হকার্স মার্কেটে মেয়র ৬৫০টি দোকান বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। কিন্তু হকাররা সেখানে বসছে না। ৬৫০ জন লোক যদি এখানে বসতো তাহলে ৬৫০জন হকার কমতো। সাধারণ মানুষ এই দোকানে বসতে পারবে না, এটা হকারদের জন্য বরাদ্দ।

২৩ জুলাই মঙ্গলবার দুপুরে চাষাঢ়া বাগে জান্নাত মসজিদের উল্টো পাশে হকার্স মার্কেটে নারায়ণগঞ্জের সাবির্ক আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি ও ছেলে ধরাকে কেন্দ্র করে গুজবের বিষয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আপনারা জানেন, সাইনবোর্ড থেকে চাষাঢ়া হয়ে বঙ্গবন্ধু সড়ক ১নং রেলগেইট হয়ে ২নং রেলগেইট এসকল এলাকা দিয়ে নারায়ণগঞ্জের লক্ষ লক্ষ মানুষ যাতায়াত করে। এই রাস্তায় যদি অবৈধ পার্কিং থাকে, রাস্তায় যদি হকাররা মালামাল নিয়ে বসে থাকে তাহলে রাস্তা দিয়ে কেউ চলাচল করতে পারে না। সে রাস্তায় ৫ মিনিটের জায়গায় আধা ঘণ্টা থেকে একঘণ্টা সময় লেগে যায়। সাংসদ সেলিম ওসমান আমাকে ধন্যবাদ দিয়েছেন। এই এলাকার মেয়র আইভী এবং সাংসদ শামীম ওসমানও বলেছেন, যানজটের কারণে উনার যেতে অনেক সময় লাগে। সকলেই যেহেতু সে কথাটি বলছেন, সে কারণে আমরা মনে করি মেইন রোডের ফুটপাতে হকার থাকবে না।

তিনি আরও বলেন, হকার্স মার্কেটে যে ৬৫০ টি দোকান হকারদের জন্য মেয়র বরাদ্দ দিয়েছিলেন সেখানে হকাররা না বসে রাস্তায় বসতে চায়। তাহলে দোকানের কি দরকার ছিল। আমি হকারদের অনুরোধ করবো বরাদ্দকৃত দোকানে বসার জন্য। সেই সাথে মেয়রকে বলবো যারা প্রকৃত হকার তাদেরকে যেন বসার নিয়মটি করে দেয়। বাকী হকারদের জন্য আরেকটি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করে দেন। সে লক্ষ্যেই আমরা কাজ করছি।

এসপি বলেন, আমরা মনে করি মেয়র আমাদের কথা শুনবেন। দরকার হলে হকারদের জন্য বহুতল ভবন করে বসার ব্যবস্থা করে দিবেন। হকার কাজ করবেন, ব্যবসার সুযোগ পাবেন এটা আমরাও চাই। কারা কারা ৬৫০ টি দোকান পেয়েছিল তাদেরকে যেন বসার ব্যবস্থা করা হয়। সাধারণ মানুষ এই দোকানে বসতে পারবেন না, এটা হকারদের জন্য বরাদ্দ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মামুন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিবি) মোহাম্মদ নুরে আলম, নারায়ণগঞ্জ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মেহেদী ইমরান সিদ্দিকী ও নারায়ণগঞ্জ সদর থানা ওসি কামরুল ইসলাম, হকার নেতা রহিম মুন্সী ও আসাদুজ্জামান সহ পুলিশ প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও