চ্যালেঞ্জিং কোটি টাকার পশুর হাটে সাড়ে ১৪লাখ লোকসান ফাতেমা মনিরের

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:৫৯ পিএম, ২০ আগস্ট ২০১৯ মঙ্গলবার

চ্যালেঞ্জিং কোটি টাকার পশুর হাটে সাড়ে ১৪লাখ লোকসান ফাতেমা মনিরের

নারায়ণগঞ্জে সিন্ডিকেটহীন থাকায় আলোচনায় ছিল কোরবানীর একটি পশুর হাট। আলীগঞ্জে গণপূর্তের সেই পশুর হাটটি ইজারা নেন সদর উপজেলার নারী ভাইস চেয়ারম্যান ফাতেমা মনির। নানা সমীকরণের কারণে হাটটি ছিল সকলের নজরে। কারণ সদরে ১৭টি হাটের মধ্যে ১৬টিতেই ছিল সিন্ডিকেট। সে কারণে সরকার নির্ধারিত মূল্যের খুব একটা বেশী দর উঠেনি। মাত্র ২০ হাজার থেকে শুরু করে ৫০ হাজার টাকা বেশীতেই নেওয়া হয় হাটের ইজারা। কিন্তু আলীগঞ্জের হাটের ইজারা হয় প্রায় তিনগুন বেশীতে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সদর উপজেলার নারী ভাইস চেয়ারম্যান ফাতেমা মনির ফতুল্লার আলীগঞ্জের গণপূর্তের খেলার মাঠের অস্থায়ী ওই হাটটি ইজারা নেন ১ কোটি ১৫ লাখ ৫শ টাকায়। এবার এ হাটের ইজারা নিয়ে ফাতেমা মনিরের অনুগামীদের সঙ্গে আলীগঞ্জ পাগলা এলাকার আলোচিত শ্রমিক লীগ নেতা কাউসার আহমেদ পলাশ গ্রুপের মধ্যে দফায় দফায় হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছিল। গত বছর এটা ৮০ লাখ টাকায় ইজারা নেয় পলাশের লোকজন। এবার পলাশের অনুগামী হাজী হালিম খান ৯০ লাখ টাকা দর তুলেছিলেন।

স্থানীয়রা শুরুতেই বলেন, ইজারার সঙ্গে সরকারী ভ্যাট, হাটের প্যান্ডেল, ডেকোরেশন সহ আনুসাঙ্গিক আরো ২০ লাখ টাকার মত খরচ যাবে। তার পরে উঠবে লাভের টাকা। ফলে এবার ১ কোটি ১৫ লাখ ইজারার কারণে এর মূলধন উঠানো একটি বড় চ্যালেঞ্জ।

তবে পশুর হাটের কার্যক্রম শেষ হওয়ার পর ফাতেমা মনির জানান, এবার হাটে তার প্রায় সাড়ে ১৪ লাখ টাকা লোকসান হয়েছে। মূল আয় ব্যয় শেষে ওই সাড়ে ১৪ লাখ টাকা লোকসান হয়। আর এর পুরো ভর্তুকি দিতে হয়েছে তাকেই।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও