মন্ত্রী মেয়র এমপির সমর্থনে সন্ত্রাসী চাঁদাবাজী দূর হচ্ছে : এসপি

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:০৬ পিএম, ২২ আগস্ট ২০১৯ বৃহস্পতিবার

মন্ত্রী মেয়র এমপির সমর্থনে সন্ত্রাসী চাঁদাবাজী দূর হচ্ছে : এসপি

নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ বলেছেন, নারায়ণগঞ্জের সকল মানুষের দাবী হচ্ছে ভাড়া কমানো। কিন্তু অনেক জায়গায় চাঁদাবাজী হয়ে থাকে কেউ কিছু বলতে পারে না। ফলে বাসের ভাড়া কমাতে পারছেন না। আমি বলবো যারা বাসের মালিক আছে, তারা যেন কাউকে চাঁদা না দেয়। রোডে বাস চলবে। কাউকে চাঁদা দিতে হবে না। যেহেতু চাঁদা দিতে হবে না, তাহলে বাস ভাড়া অবশ্যই কমাবেন। আপনাদের কাছে যদি কেউ কোন বাহিনীর নামে চাঁদা চায় সেটা আমাকে জানাবেন।

২২ আগস্ট বৃহস্পতিবার দুপুরে নবীগঞ্জ ফেরিঘাট এলাকায় বেকার মিনিবাস লিমিটেডের উদ্বোধন উপলক্ষ্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘গতকাল আমি অভিযোগ পেয়েছি, সিদ্ধিরগঞ্জ এলাকায় পুলিশের নাম দিয়ে চাঁদা উঠানো হয়। সেখানে সিটিএসবির দারোগা বা ইন্সপেক্টরের নামে টাকাটা উঠে। আমি জানি না দারোগা বা ইন্সপেক্টর আদৌ টাকা নেয় কিনা নাকি লাইনে কিছু চাঁদাবাজ সন্ত্রাসী পুলিশের নাম ধারণ করে টাকা নিচ্ছে কিনা। আমি দায়িত্ব দিয়েছি। আমি মনে করি নারায়ণগঞ্জের প্রতিটি ক্ষেত্রে প্রতিটি জায়গায় যে অবস্থা চালু আছে সেটাকে অব্যাহত রাখতে হবে। আমরা চাই নারায়ণগঞ্জের মানুষ শান্তিতে বসবাস করবে। কোন সন্ত্রাসীর কাছে জিম্মি থাকবে না।’

সকলের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে পুলিশ সুপার বলেন, আপনাদের কাজে আমার অনুরোধ থাকবে, কেউ যদি অন্যায়ভাবে আপনাদের বাধাগ্রস্ত করে, অন্যায়ভাবে বাস আটকে রাকে, অন্যায়ভাবে চাঁদাবাজী করে, অন্যায়ভাবে জায়গা দখল করে থাকে তাহলে জানাবেন। আমরা সুরাহা করার চেষ্টা করছি। আমি মনে করি, আমাদের কাজে মন্ত্রী, মেয়র ও এমপি সহ সকল জনপ্রতিনিধিদের সমর্থন রয়েছে। সমর্থন রয়েছে বিধায় আমরা ধীরে ধীরে সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজী দূর করতে পারছি।

বেকার পরিবহনকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, সুন্দর সময়ে যাত্রীদের কল্যাণে বাস চালু করেছেন তাদের ধন্যবাদ জানাই। যাত্রীদের সাথে ভাল ব্যবহার করবেন। আপনাদের বিরুদ্ধে যেন কোন অভিযোগ না পাই। বাস মালিক, শ্রমিক ও ড্রাইভার যেন সাধারণ মানুষের বিরুদ্ধে না যায়। আমাদের পক্ষ থেকে যতটুকু সহযোগিতা করার দরকার আমরা করবো। আশা করি জনগণের সেবা করার লক্ষ্যেই আপনারা বাস পরিচালনা করবেন। এর মাধমে অনেকের কর্মসংস্থান হবে। যাত্রীরা সেবা পাবে এবং যাত্রীদের সেবার মানসিকতা নিয়েই কাজ করতে হবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মামুন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিবি) মোহাম্মদ নুরে আলম, নারায়ণগঞ্জ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুবাস চন্দ্র সাহা, বেকার মিনিবাস সার্ভিসের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ রাসেল হাওলাদার ও কর্মকর্তা মো: ওমর ফারুক।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও