আদালতপাড়ায় বিএনপির দুই গ্রুপের মারামারি

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৪:৩৪ পিএম, ৪ নভেম্বর ২০১৯ সোমবার

আদালতপাড়ায় বিএনপির দুই গ্রুপের মারামারি

নারায়ণগঞ্জ আদালতপাড়ায় বহিরাগতদের নিয়ে মাস্তানি করতে গিয়ে বিপক্ষের আইনজীবীদের হাতে পাল্টা মার খেয়েছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খান ও আইনজীবী নেতা অ্যাডভোকেট এম এইচ আনোয়ার প্রধান। ৪ নভেম্বর সোমবার সকালে আদালতের কার্যক্রমের শুরুতেই এই ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী আইনজীবীরা জানান, এদিন সকালে নারায়ণগঞ্জ আদালতপাড়ার প্রধান ফটক কয়েক গজ দূরে দাঁড়িয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট আনিসুর রহমান দিপুর সাথে সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট আব্দুল বারী ভূইয়া অনেকক্ষণ ধরে কথা বলছিলেন। আর এই কথা বলায় এক পর্যায়ে হঠাৎ করেই জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি ও মহানগর বিএনপির সহ সভাপতি অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খান ও মৎস্যজীবী দলের সভাপতি অ্যাডভোকেট আনোয়ার প্রধানের নেতৃত্বে কয়েকজন জুনিয়র আইনজীবী সহ বহিরাগত কয়েকজনকে নিয়ে অ্যাডভোকেট আব্দুল বারী ভূইয়া ও তার ছেলের উপর হামলা করেন।

অ্যাডভোকেট আব্দুল বারী ভূইয়াকে মুহূর্তের মধ্যেই একের পর এক কিল ঘুষি মারতে থাকেন ও তার কোর্ট ছিড়ে ফেলেন। এসময় তার সাথে দাঁড়ানো থাকা অ্যাডভোকেট আনিসুর দিপু এগিয়ে এসে পরস্পরকে শান্ত করে ঘটনাস্থল থেকে সড়িয়ে দেন।

এই ঘটনার পরপরই অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন ও অ্যাডভোকেট আনোয়ার প্রধান জেলা আইনজীবী ফোরামের সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুল হামিদ ভাষাণীর টেবিলে যান। এসময় ভাষানী নাস্তা করছিলেন। তার টেবিলে গিয়ে সাখাওয়াত হোসেন ও আনোয়ার প্রধান ভাষানীকে উদ্দেশ্য করে অশ্রাব্য গালিগালাজ করতে থাকেন এবং ভাষাণীও পাল্টা গালিগালাজ করতে থাকেন।

এক পর্যায়ে সাখাওয়াত হোসেন ও আনোয়ার প্রধান মিলে ভাষাণী ভূইয়ার শাটের কলার ধরে কিল-ঘুষি মারতে থাকেন। এসময় ভাষানী টেবিলে থাকা চা সাখাওয়াত হোসেনের দিকে ছুড়ে মারেন। একই সাথে আনোয়ার প্রধানের শাটের কলার ধরে পাল্টা কিল-ঘুষি মারতে থাকেন। পরবর্তীতে অন্যান্য আইনজীবীদের সহযোগীয় পরিস্থিতি শান্ত হয়। ভাষাণীর কিল ঘুষিতে আনোয়ার হোসেন ও সাখাওয়াত উভয়েই আহত হন এবং ভাষাণীর পরনে থাকা শার্ট ও কোর্ট ছিড়ে যায়।

এ বিষয়ে অ্যাডভোকেট আব্দুল হামিদ ভাষাণী নিউজ নারায়ণগঞ্জকে জানান, প্রথমে নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট আব্দুর বারী ভূইয়ার উপর হামলা করে অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খান ও অ্যাডভোকেট আনোয়ার প্রধান। তারপর তারা আমার টেবিলে এসে গালিগালাজ করে আমার উপর হামলা করে। আমি নিজেকে রক্ষা করতে গিয়ে আমিও তাদের পাল্টা আঘাত করি। মূলত আইনজীবী ফোরামের সদস্য ফরম বিতরণ নিয়ে অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খান নানা টালাবাহানা শুরু করেছে। আমরা এই বিষয়টির প্রতিবাদ করছি বলেই এসকল ঘটনা ঘটছে। আর তাই আমরা এ বিষয়টি কেন্দ্রীয় নেতাদের জানিয়েছি।

এদিকে এই ঘটনার পর নারায়ণগঞ্জ আদালতপাড়ায় থমথমে পরিবেশ সৃষ্টি হয়। উভয় পক্ষের আইনজীবীদের মাঝে পাল্টাপাল্টি শোডাউন চলে। পরবর্তীতে নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট হাসান ফেরদৌস জুয়েল ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোহসীন মিয়া উভয় পক্ষকে বুঝিয়ে আদালতপাড়ার পরিস্থিতি স্বাভাবিক পর্যায়ে নিয়ে আসেন। একই সাথে নারায়ণগঞ্জ আদালতপাড়া সম্মান নষ্ট হলে উভয়পক্ষের আইনজীবীদেরকে ভবিষ্যতের জন্য সতর্ক করে দেন।

প্রসঙ্গত, এর আগে গত ৩ নভেম্বর নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী ফোরামের সদস্য ফরম নিয়ে টালবাহানার অভিযোগ অ্যাডভোকেট আব্দুল বারী ভূইয়া অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খানের শার্টের কলার ধরে তার চড় মেরেছিলেন। এসময় ঘটনাস্থলে অ্যাডভোকেট আব্দুল হামিদ ভাষাণীও উপস্থিত ছিলেন।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও