সাখাওয়াতকে ইঙ্গিত করে টিপু : মামলা সরকারী দলের এজেন্ডা বাস্তবায়ন

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:৪০ পিএম, ১৪ নভেম্বর ২০১৯ বৃহস্পতিবার

সাখাওয়াতকে ইঙ্গিত করে টিপু : মামলা সরকারী দলের এজেন্ডা বাস্তবায়ন

নারায়ণগঞ্জের একটি আদালতে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ জেলা ও মহানগর বিএনপির সভাপতি সম্পাদকের বিরুদ্ধে মামলা প্রসঙ্গে কড়া মন্তব্য করেছেন মহানগর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবু আল ইউসুফ খান টিপু।

গণমাধ্যমকে দেওয়া প্রতিক্রিয়ায় টিপু জানান, মহানগর বিএনপি`র সহ-সভাপতি এক নেতার ইন্ধনে গোলজার হোসেন ও নূরে আলম বাদী হয়ে এই মিথ্যা মামলাটি দায়ের করেছেন।

তিনি দাবি করেন মামলার বাদি সরকারি দলের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করে বিএনপিকে দুর্বল করার জন্য এই মামলা করেছেন। মামলার বাদী দুইজন নিজেদেরকে ওয়ার্ড বিএনপি`র সভাপতি ও নিরক্ষরতা দূরীকরণ সম্পাদক দাবি করল তারা কখনো বিএনপি`র কোন কমিটিতে ছিল না। মহানগর বিএনপির গঠনতন্ত্র মেনেই পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়েছে।

তিনি বলেন, মহানগর বিএনপি`র ওই নেতা শুধু মহানগর বিএনপি নয় জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে সরকারি দলের হয়ে বিএনপিকে দুর্বল করার চেষ্টা করছেন। আমরা এই মামলার তীব্র নিন্দা জানাই এবং বিষয়টি আইনিভাবে মোকাবেলা করা হবে বিএনপি`র পক্ষ থেকে।

প্রসঙ্গত নারায়ণগঞ্জের একটি আদালতে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ জেলা ও মহানগর বিএনপির সভাপতি সম্পাদকের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন দায়ের করেছেন বিএনপির দুইজন নেতা। নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির কমিটি গঠনের ক্ষেত্রে সীমানা ও গঠনতন্ত্র মানা হয়নি উল্লেখ করে ওই মামলার আবেদন করা হয়। এতে বলা হয়, ৩০ অক্টোবর ঘোষিত ১৫১ সদস্যের মহানগর বিএনপির পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে সিটি করপোরেশন এলাকার ১ হতে ১০নং ওয়ার্ডের কোন নেতাকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি। বরং জেলা বিএনপির কমিটির আওতাধীন আলীরটেক, গোগনগর, ধামগড়, মুছাপুর, কলাগাছিয়া ইউনিয়নের নেতাদের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

গত ১১ নভেম্বর নারায়ণগঞ্জ সিনিয়র সহকারি জজ শিউলী রানী দাসের আদালতে মহানগরের ১০ নং ওয়ার্ড বিএনপির সাবেক সভাপতি গোলজার খান ও একই ওয়ার্ডের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক (পৌরসভাকালীন) বিএনপি নেতা নূর আলম শিকদার বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। এ দুইজনই মহানগর বিএনপির সহ সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন খানের অনুগামী হিসেবে পরিচিত।

গত ১২ সেপ্টেম্বর বিকেলে শহরের নারায়ণগঞ্জ ক্লাব সংলগ্ন বঙ্গবন্ধু সড়কে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন শেষে সাখাওয়াতের সঙ্গে সেলফি তোলা নিয়ে অন্য নেতাদের সঙ্গে মারামারি করেন গুলজার।

১২ নভেম্বর আদালতে শুনানী শেষে আদালত পরবর্তী সাত দিনের মধ্যে কেন কমিটি অবৈধ হবে না জানিয়ে বিবাদীদের কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়। ১৩ নভেম্বর বুধবার আদালত থেকে এ সংক্রান্ত নোটিশ বিবাদীদের হাতে দেওয়া হয়।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও