শেখ হাসিনার সিদ্ধান্তের সমালোচনায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ সেক্রেটারী

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:৪১ পিএম, ১৮ নভেম্বর ২০১৯ সোমবার

শেখ হাসিনার সিদ্ধান্তের সমালোচনায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ সেক্রেটারী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেওয়া একটি সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেছেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সেক্রেটারী ও ২৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাইফউদ্দিন আহমেদ দুলাল প্রধান যিনি সম্প্রতি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অভিযানে ফেনসিডিল সহ গ্রেপ্তার করে কারাভোগ করেছিলেন।

সবশেষ নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের নির্বাচনে মনোনয়ন না চাওয়ার পরেও প্রধানমন্ত্রী বিগত দিনের রাজনৈতিক সংগ্রামের পুরস্কার হিসেবে মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেনকে এ পদে মনোনয়ন দেন। পরে তিনি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হলেও মূলত আনোয়ার হোসেন তখন লড়েছিলেন সিটি করপোরেশনের মেয়র পদের মনোনয়ন পেতে। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী সিটি করপোরেশনে সেলিনা হায়াৎ আইভীকে মনোনয়ন দেন। ওই অবস্থায় কিছুটা হতাশায় ভুগেন আনোয়ার হোসেন।

পরবর্তীতে আনোয়ার হোসেন হঠাৎ এক সময়ে গুরুতর অসুস্থ হয়ে রাজধানীর একটি হাসপাতালে ভর্তি হলে খোদ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজে খোঁজ খবর নেন এবং আনোয়ার হোসেনকে কোন ধরনের টেনশন না করার কথা বলেন। হাসপাতালে ভর্তি থাকাবস্থায় আনোয়ার হোসেনকে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন দেওয়া হয়। এ নিয়ে চরমভাবে কৃতজ্ঞতাও প্রকাশ করেন আনেয়ার হোসেন।

ওই সময়ে হাসপাতালের ডাক্তার সহ সকলেই এও জানিয়েছিলেন, হাইপারটেনশন সহ অনেকগুলো শারীরিক অসুস্থতায় ভুগছিলেন তিনি।

প্রায় ৩ বছর পর সেই ঘটনার সমালোচনা করলেন দুলাল প্রধান। বন্দরে ২৩ নং ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগের ফরম বিতরণ নিয়ে আনোয়ার হোসেন সম্পর্কে তির্যক মন্তব্যও করেন দুলাল প্রধান।

নিউজ নারায়ণগঞ্জকে তিনি বলেন, ‘আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগের নেতাকর্মীদের কোন প্রকার মতামত না নিয়ে মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন নিজের মনগড়া মত সদস্য ফরম বিতরণ করছেন। জাতির জনক শেখ মজিবুর রহমানের আদর্শের সংগঠন আওয়ামীলীগ। এটা কারো পৈত্রিক সম্পত্তি না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে ‘অসুস্থতার অভিনয়’  করে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হয়েছে বিনাভোটে। ভোট যুদ্ধে বিজয়ী হলে তিনি বুঝতে পারতেন আওয়ামী লীগ একটি বৃহত্তম সংগঠন পৈত্রিক না। দেশে সদস্য সংগ্রহ চলছে। আনোয়ার হোসেন দলের গঠনতন্ত্র না মেনে ফরম দিচ্ছে নিজের মত করে। মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি হয়ে তিনি যেগুলো করছে তা আর মানা হবে না। নিয়মের মধ্য থেকে সকল কিছু করতে হবে।’

মহানগর স্বেচ্ছাসেবকলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান কমল বলেন, সদস্য ফরম নিয়ে আনোয়ার হোসেন রাজনীতি করছে। এটাকে পুঁজি করে নিজের বলয় তৈরি অপচেষ্টা চালাচ্ছে। যা ন্যাক্কারজনক ঘটনা। ২৩ নং ওয়ার্ডের নেতাকর্মীদের সাথে আলোচনা ছাড়া আর কোন সদস্য ফরম বিতরণ করতে দেয়া হবে না। বর্তমান প্রেক্ষাপটে নাসিক ২৩নং ওয়ার্ডে সরকার দলীয় নেতাকর্মীদের রাজনীতির হাত-পা বেধে আনোয়ার হোসেন যে খেলা খেলতে চাচ্ছে তার জবাব হবে কঠোর।

জানা গেছে, ২০১৬ সালের ২৫ নভেম্বর দুপুরে অসুস্থ হওয়ার পর দ্রুত তাকে ঢাকার ধানমন্ডিতে ল্যাবএইড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রাত ৯টার দিকে দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে প্রথমে কথা বলেন আনোয়ার হোসেন। পরে প্রধানমন্ত্রীও ফোন করে আনোয়ার হোসেনের সঙ্গে কথা বলেন।

এখানে উল্লেখ্য পুলিশের জালে আটকা পড়েন ২৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও নারায়ণগঞ্জ মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফ উদ্দিন আহমেদ দুলাল প্রধান যিনি নারায়ণগঞ্জ আওয়ামীলীগের একজন সক্রিয় নেতা ছিলেন। যার ফলস্বরূপ তিনি মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক পদে অধিষ্ঠিত হয়েছিলেন। কিন্তু তাকেও মাদক মামলায় গ্রেফতার হতে হলো। গত ১ আগস্ট শহরের নবীগঞ্জ খেয়াঘাট এলাকা থেকে ফেনসিডিল সহ তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তিনি কারাভোগও করেন।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও