রিজভির চিঠিতেই বিতর্কিত কমিটি করে নারায়ণগঞ্জ বিএনপি

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:০৭ পিএম, ৩০ নভেম্বর ২০১৯ শনিবার

রিজভির চিঠিতেই বিতর্কিত কমিটি করে নারায়ণগঞ্জ বিএনপি

‘‘বিএনপির গঠনতন্ত্র মোতাবেক ৪ এর ক অনুচ্ছেদে বলা আছে সরকার নির্ধারিত ও নির্বাচন কমিশন নির্ধারিত এলাকা নিয়েই কমিটি গঠিত হবে। কিন্তু নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির কমিটি গঠনের ক্ষেত্রে মহানগরের আওতাধীন ১ হতে ১০ নং ওয়ার্ডকে মহানগরে অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি। মামলার বাদীপক্ষ উল্লেখ করেন ১-১০ নং ওয়ার্ড এর নেতাকর্মীদের পদায়ন করা হতে বঞ্চিত করার জন্যই সম্পূর্ন অসৎ উদ্দেশ্যে আবুল কালাম, এটিএম কামাল, কাজী মনিরুজ্জামান ও মামুন মাহমুদ বেআইনীভাবে কথিত কমিটি তৈরী করে মির্জা ফখরুলের অনুমোদন দিয়েছেন।’’

ফলে নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির কমিটি ও কার্যক্রমে স্থগিতাদেশ দিয়েছে আদালত। ২৮ নভেম্বর এই আদেশ দেয়া হয়। এর আগে গত ১১ নভেম্বর নারায়ণগঞ্জ সিনিয়র সহকারি জজ শিউলী রানী দাসের আদালতে মহনগরের ১০নং ওয়ার্ড বিএনপির সাবেক সভাপতি গোলজার খান ও একই ওয়ার্ডের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক বিএনপি নেতা নূর আলম শিকদার বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। এ দুইজনই মহানগর বিএনপির সহ সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন খানের অনুগামী হিসেবে পরিচিত।

এরই মধ্যে ২৯ নভেম্বর নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির নেতারা মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সাথে দেখা করেছেন। তাঁরা ২৮ নভেম্বর আদালতের দেওয়া আদেশ সম্পর্কে অবহিত করতে গিয়েছিলেন।

জানা যায়, বিগত সংসদীয় নির্বাচনের স্বার্থে বিএনপি কেন্দ্র থেকে সিদ্ধিরগঞ্জ ও ফতুল্লা থানার সকল অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনগুলোকে নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার স্ব স্ব অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের আওতাভুক্ত করার নির্দেশ দিয়ে জেলার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের কাছে চিঠি পাঠায়। বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী স্বাক্ষরিত এই চিঠিতে অনুলিপি দেয়া হয় মহানগরের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে।

তাই নারায়ণগঞ্জ-৪ আসানটি সিদ্ধিরগঞ্জ ও ফতুল্লার যে এলাকাগুলো নিয়ে গঠিত তা সিটি কার্পোরেশনের আওতাধীন হওয়া সত্ত্বেও জেলা কমিটির অধীনে চলে যায়। এদিকে জাতীয় নির্বাচনের পূর্বেই কেন্দ্রের নির্দেশ অনুযায়ি জেলা ও মহানগর বিএনপি তাদের পূর্ণাঙ্গ কমিটির খসড়া কেন্দ্রে জমা দেয়।

মামলায় বিবাদী করা হয়েছে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, জেলা বিএনপির সভাপতি কাজী মনিরুজ্জামান, সাধারণ সম্পাদক মামুন মাহমুদ, মহানগর বিএনপির সভাপতি আবুল কালাম ও সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামালকে।

মামলায় অভিযোগ করা হয়, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর কমিটি আলাদা আলাদ ভাবে দলের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী এবং গঠনতন্ত্রের বর্ণিত বিধান অনুযায়ী উভয় সংগঠনের অধিক্ষেত্র ও পূর্ব থেকেই বিদ্যমান যা উভয় দলের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন সমূহও গঠিত ও পরিচালিত। নারায়ণগঞ্জ জেলা জাতীয়তবাদী দলের অধিক্ষেত্র সহ পাঁচটি থানা যথা ফতুল্লা, সোনারগাঁ, রূপগঞ্জ, আড়াইহাজার ও বন্দও থানার ৫টি ইউনিয়ন নিয়ে বন্দর উপজেলা এবং এই পাঁচটি উপজেলার অন্তর্গত সকল ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড কমিটির মাধ্যমে পরিচালিত হয়। যা তত্ত্বাবধায়ন করেন জেলা কমিটি।

অন্যদিকে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের আওতাধীন এলাকা নিয়ে গঠনতন্ত্র অনুসারে নারায়ণগঞ্জ মহানগর কমিটি গঠিত ও পরিচালিত। এই সিটি কর্পোরেশনের আওতাধীন নারায়ণগঞ্জ থানার ৮টি ওয়ার্ড, সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অন্তর্গত ১০ টি ওয়ার্ড এবং বন্দর থানাধীন ৯টি ওয়ার্ড অর্থাৎ সর্বমোট ২৭টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল নারায়ণগঞ্জ মহানগর কমিটি গঠিত। পৌরসভা থাকাকালীন নারায়ণগঞ্জ মহানগর কমিটি একইভাবে গঠিত হইতো এবং পূর্বে ১নং বাদী বর্ণিত মহানগর কমিটির সভাপতি ছিলেন। নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন গঠিত হওয়ার পর হতে উপরোক্তভাবেই মহানগর বিএনপি গঠিত। বাংলাদেশের অন্যান্য বৃহৎ রাজনৈতিক দলের ন্যায় নারায়ণগঞ্জ মহানগর কমিটি একই পদ্ধতিতে গঠিত ও পরিচালিত হয়।

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল নারায়ণগঞ্জ মহানগরের নির্বাহী কমিটি গত ৩০ অক্টোবর ৫ নং বিবাদী মির্জা ফখরুল ইসলাম কর্তৃক অনুমোদিত ১ বিবাদী আবুল কালাম ও ২নং বিবাদী এটিএম কামালকে যথাক্রমে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক করে ১৫১ জনের একটি বেআইনী কমিটি ঘোষণা করা হয়। যা বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমেও প্রচারিত হয়েছে। এই বেআইনী কমিটি গঠনকালে নিয়ম বহির্ভূতভাবে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের অন্তর্গত ১-১০নং ওয়ার্ডের কোন নেতাকর্মীকে এই ১৫১ বিশিষ্ট কমিটিতে বাদীপক্ষ সহ কাউকেই পদায়ন করা হয় নাই। উপরন্তু নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটি অন্তর্গত ফতুল্লা থানাধীন আলীরটেক ইউপি ও গোগনগর ইউপি এবং বন্দর থানাধীন ৫টি ইউনিয়ন যথাক্রমে মদনপুর ইউপি, ধামগড় ইউপি, মুছাপুর ইউপি, বন্দর ইউপি ও কলাগাছিয়া ইউপি এর নেতাকর্মীকে বেআইনীভাবে উক্ত কমিটিতে অন্তভুক্ত করা হয়েছে যা বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি এর গঠনতন্ত্রের চরম লংঘন।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও