গাজী বাবুর পথে হাঁটবেন না শামীম ওসমান

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:০৯ পিএম, ১ ডিসেম্বর ২০১৯ রবিবার

গাজী বাবুর পথে হাঁটবেন না শামীম ওসমান

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নির্দেশনা অনুযায়ী সারাদেশের মতো নারায়ণগঞ্জেও চলছে বিভিন্ন পর্যায়ে সম্মেলন। উপজেলা থেকে শুরু করে বিভিন্ন ওয়ার্র্ড ও ইউনিয়নগুলোতে সম্মেলন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ইতোমধ্যে কয়েকটি উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়ে গেছে।

এর মধ্যে দুইটি উপজেলার শীর্ষ পদ দখল করেছেন সংশ্লিষ্ট আসনের এমপি। তবে তাদের পথে হাঁটতে হবে না নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও নারায়য়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতা শামীম ওসমানকে।

উপজেলা পর্যায়ে শীর্ষ পদ দখলের জন্য তাকে প্রার্থী হতে হবে না। এমনিতেই তার অনুসারীরা এসকল উপজেলার শীর্ষ পদে চলে আসবেন। সেই সাথে শামীম ওসমানেরও নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে এসকল উপজেলাগুলোর কমিটি। কারণ তিনি নেতাকর্মীদের উপর আস্থা রাখছেন।

বর্তমান ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগে সম্মেলনের হাওয়া লেগেছে। আগামী ২০ ও ২১ ডিসেম্বর ২০১৯ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হবে। যার সূত্র ধরে মূল দল সহ তাদের সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনগুলোতে চলছে সম্মেলনের প্রস্তুতি। ইতোমধ্যে কয়েকটি সহযোগী সংগঠনের সম্মেলন হয়ে গেছে এবং চলতি মাসে আরও কয়েকটি সহযোগী সংগঠনের সম্মেলনের তারিখ নির্ধারিত করা হয়েছে। আর এসকল সহযোগী সংগঠনের সম্মেলন শেষ করেই মূল দলের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। এই সম্মেলনকে ঘিরে কেন্দ্রীয় নির্দেশনা অনুযায়ী দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলার মেয়াদ উত্তীর্ণ কমিটিগুলো নবায়ন করার প্রক্রিয়া চলছে। যার ধারাবাহিকতায় নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগ ও তাদের সহযোগী সংগঠনগুলোতেও নতুন কমিটির ঘোষণা আসছে কিংবা কয়েকদিনের মধ্যে আসবে।

এদিকে সাম্প্রতিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে গত ১৫ নভেম্বর রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এই সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহণ সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দলের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্দেশ দিয়েছেন কোনো এমপি দলের উপজেলা পর্যায়ে পদপ্রার্থী হতে পারবেন না। এটা আমরা নিরুৎসাহিত করছি। উপজেলা পর্যায়ে সংসদ সদস্যদের আমরা অনুরোধ করছি, তারা যেন সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক পদে না এসে ত্যাগী ও দুঃসময়ের নেতাকর্মীদের সুযোগ করে দেন। কারণ তাদেরও অধিকার আছে। তারা এমপিও হতে পারেনি, দলে নেতৃত্বও পাবেন না, এটা তো হয় না।

কিন্তু এক্ষেত্রে ব্যতিক্রম পন্থা অবলম্বন করতে হয়েছে নরায়ণগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য ও বস্ত্র পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী এবং নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবুকে। দলীয় প্রধান প্রধানমন্ত্রী নির্দেশের আগেই তারা তাদের সংশ্লিষ্ট উপজেলার শীর্ষ পদ দখল করে নিয়েছেন।

স্থানীয়রা মনে করছেন তৃণমূলের নেতাকর্র্মীদের প্রতি তাদের আস্থা খুবই কম। তাদের ছাড়া অন্যদের হাতে নেতৃত্ব গেলে নিয়ন্ত্রণ করা কষ্টকর হয়ে যাবে। এজন্য আগে থেকেই তাদের শীর্ষ পদটি দখল করতে হয়েছে।

গত ১৬ জুলাই সম্মেলনের মাধ্যমে রুপগঞ্জ থানা কমিটিতে সভাপতি পদে বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী ও সাধারণ সম্পাদক পদে শাহজাহান ভূঁইয়া রয়েছেন যিনি এর আগেও থানা কমিটির সাধারণ সম্পাদক পদে ছিলেন। আর গোলাম দস্তগীর গাজী টানা তিনবারের এমপি এবং সর্বশেষ মন্ত্রীও হয়েছেন। তারপরেও তিনি রূপগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি পদে অধিষ্ঠিত হয়েছেন। কারণ তৃণমূলের অন্য কাউকে সভাপতি পদে অধিষ্ঠিত করা হয়ে তার নিয়ন্ত্রণে বাইরে চলে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

একইভাবে গত ২২ জুলাই আড়াইহাজার থানা আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেখানে সভাপতি পদে নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু নির্বাচিত হয়েছেন। রূপগঞ্জে সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণা হলেও আড়াইহাজার সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণা করা হয়নি। স্থনীয় পর্যায়ে নিজের নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য আগে থেকেই সভাপতির পদটি নজরুল ইসলাম বাবুকে দখল করতে হয়েছে।

তবে গোলাম দস্তগীর গাজী ও নজরুল ইসলাম বাবু পথ অনুসরণ করতে হবে না নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমানকে। তৃনমূলের নেতাকর্মীদের প্রতি রয়েছে তার আস্থা। আর তাই তূূণমূল  পর্যায়ে তার কর্তৃত্ব ফলাতে তেমন বেগ পোহাতে হয় না। তণমূল পর্যায়ের সবসময় তার নির্র্দেশ অনুুযায়ীই দলীয় কার্যক্রম পরিচালনা করেন। সেই সাথে শামীম ওসমানের সংশ্লিষ্ট থানাগুলোতে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনগুলোতে প্রত্যক্ষ কোনো বিরোধ পরিলক্ষিত হয়নি। কোন রকমের বেগ পোহানো ছাড়াই শামীম ওসমানের অনুুসারীরা এমনিতেই শীর্ষ পদে চলে আসেন।

যার ধারাবাহিকতায় গত ২৬ নভেম্বর বন্দর উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এই সম্মেলনে বন্দর উপজেলা আওয়ামী লীগের নতুন সভাপতি হয়েছেন এম এ রশিদ এবং সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন কাজিম উদ্দিন প্রধান। আর এই দুজনেই নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমানের অনুসারী হিসেবে পরিচিত।

একই সাথে আগামী ৭ ডিসেম্বর ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। যেখানে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক শামীম ওসমানের অনুুসারীরাই আলোচনায় রয়েছেন। পাশাপাশি সদর উপজেলাতেও তার অনুসারীরা আলোচনা রয়েছেন। ফলে শামীম ওসমানকে গোলাম দস্তগীর গাজী ও নজরুল ইসলাম বাবুর পথে হাটতে হবে না। 


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও