গুলি করার হুমকি ছাত্রলীগ নেতার, ৫ জনকে কুপিয়ে জখম (ভিডিও)

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:১৩ পিএম, ২৪ ডিসেম্বর ২০১৯ মঙ্গলবার

গুলি করার হুমকি ছাত্রলীগ নেতার, ৫ জনকে কুপিয়ে জখম (ভিডিও)

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লায় রাস্তায় বালু রেখে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির প্রতিবাদ করায় বাবা ছেলে সহ অন্তত ৫জনকে কুপিয়ে আহত করা হয়েছে। তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে যাদের মধ্যে একজনের অবস্থ আশঙ্কাজনক।

২৪ ডিসেম্বর মঙ্গলবার সকলে সদর উপজেলার সস্তাপুর এলাকার লাল চান মেম্বারের বাড়ির সামনে ওই ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশ একজনকে আটক করেছে।

আহতরা হলেন সস্তাপুর এলাকার শফি প্রধান, তাঁর ছেলে বাদল প্রধান, মাহবুব প্রধান, স্থানীয় বাসিন্দা সজল সহ আরো একজন। তাৎক্ষনিক অজ্ঞাত ব্যক্তির বিস্তারিত পরিচয় পাওয়া যায়নি। তাদের মধ্যে সজলের অবস্থা অশঙ্কাজনক।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকাল অনুমানিক ১১টায় লাল চান মেম্বারের বাড়িতে একটি মারধরের ঘটনায় সমাধানের জন্য বৈঠকে বসার কথা ছিল। যার জন্য আহতরা ওই বাড়ির কাছে আসে। কিন্তু বেঠক শুরু হওয়ার আগেই প্রতিপক্ষের লোকজন ধারালো অস্ত্র, লাঠিসোটা নিয়ে তাদের উপর হামলা চালায়। তাদের কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে প্রথমে শহরের খানপুরে ৩০০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানকার ডাক্তার তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।

আহতরা জানান, সস্তাপুর এলাকায় উপজেলা পরিষদের পাশে জনগনের চলাচলের রাস্তায় বালু রেখে দীর্ঘদিন ধরে ব্যবসা করে আসছে লাল চান মেম্বারের ছেলে জুয়েল মিয়া। এতে করে যানবাহন ও মানুষের চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হওয়ায় বাদল প্রধান প্রতিবাদ জানায়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৭টায় জুয়েল ও তার সহযোগিরা বাদলকে মারধর করে।

এ ঘটনায় বাদল বাদী হয়ে থানায় জুয়েল ও তার সহযোগিদের বিরুদ্ধে থানায় জিডি করেন। জিডির প্রেক্ষিতে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন ফতুল্লা থানা পুলিশ। পরে জুয়েলের লোকজনই বৈঠকে বসে সমস্যা সমধানের আশ্বাস দিলে পুলিশ চলে যায়। যার প্রেক্ষিতে সকাল ১১টায় লাল চান মেম্বারের বাড়ির সামনে যায় বাদল, তাঁর বাবা শফি প্রধান, ভাই মাহবুব, প্রতিবেশী জুয়েল সহ ৮ থেকে ১০জন। ওইসময় বৈঠক শুরুর আগেই জুয়েলের নেতৃত্বে তাঁর সহযোগি জাকির ও ১৫ থেকে ২০জন বাদলদের উপর হামলা চালায়। জুয়েল ও জাকির মিলে তাদের কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে।

আহত বাদল বলেন, প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে এতে বলায় হত্যার উদ্দেশ্যে আমাদের উপর হামলা করে। এদের দ্রুত আইনের আওতায় আনা হোক। এরা এলাকার সন্ত্রাস। মানুষকে জিম্মী করে একের পর এক অপরাধ করে চলছে। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দেওয়া হয়েছে।

হামলাকারীরা সস্তাপুর এলাকার মজিবর ও ছাত্রলীগ নেতা শাহরিয়ার রেজা হিমেলের অনুগামী জানা গেছে। ঘটনার পর হিমেল সেখানে উপস্থিত হয়ে জাকির নামের একজনকে গুলি করে দেওয়ার প্রকাশ্য হুমকি দেন। সেই সঙ্গে জাকির ও তার লোকজনদের ধরে আনার জন্য অনুগামীদের নির্দেশ দেন।

ফতুল্লা মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মিজানুর রহমান বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বাদল নামে একজনকে আটক করা হয়েছে। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও