গার্মেন্টকর্মীর শরীরে আগুন দিল আওয়ামী লীগ নেতার গাড়ি চালক

স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ১১:০১ পিএম, ২২ মার্চ ২০২০ রবিবার

গার্মেন্টকর্মীর শরীরে আগুন দিল আওয়ামী লীগ নেতার গাড়ি চালক

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় প্রভাবশালী আওয়ামীলীগ নেতা মীর সোহেলের গাড়ির চালক নূরুল ইসলামের কু-প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় মাহিনুর বেগম (৩৮) নামের এক গার্মেন্টকর্মীর শরীরে পেট্রোল ঢেলে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে। এ ঘটনা নিয়ে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যকর সৃষ্টি হয়েছে।

রোববার (২২ মার্চ) রাত সাড়ে ৭ টার দিকে ফতুল্লার দাপা ইদ্রাকপুরস্থ পাইলট স্কুল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আগুনে পুড়িয়ে দেয়া স্বামী পরিত্যক্তা মাহিনুর বেগমের বাড়ি বরিশালে। সে পাইলট স্কুল এলাকার আলী আহম্মদের বাড়িতে ভাড়াটিয়া হিসাবে বসবাস করে স্থানীয় মেরিনা গার্মেন্টে চাকরী করে জীবিকা নির্বাহ করে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মাহিনুর বেগম স্বামী পরিত্যক্তা হয়েও জীবিকা নির্বাহের জন্য সংগ্রাম করছে। কারো কাছ হাত না পেতে জীবন যুদ্ধে মেরিনা গার্মেন্টে চাকরি নিয়েছে। তার সংসারে একটি কন্যা সন্তান ছিলো তাকে বিয়ে দিয়ে ভাড়াটিয়া বাসায় একা বসবাস করে। এই নারীর দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে জেলা আওয়ামীলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক ও ফতুল্লা থানা যুবলীগের সভাপতি মীর সোহেলের গাড়ির চালক নূরুল ইসলাম সেই নারীর প্রতি কু-নজর দেয়। তার মালিকের ক্ষমতার প্রভাবে নুরুল ইসলাম মাহিনুর বেগমকে অনেকদিন ধরে উত্ত্যক্ত করে আসছিল। নুরুল ইসলাম প্রায় সময় মাহিনুরকে কু-প্রস্তাব দিতো। এতে মাহিনুর রাজি হয়নি। নুরুল ইসলামের কু-প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় রোববার রাত সাড়ে ৭ টার দিকে গার্মেন্ট ছুটি শেষে মাহিনুর বাসায় যাওয়ার সময় বাড়ির সামনে রাস্তা গতিরোধ করে নুরুল ইসলাম। তখনি নুরুল ইসলাম মাহিনুরের শরীরে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। পরে মাহিনুর চিৎকার করে মাটিতে গড়াগড়ি করে নিজে বাচার চেষ্টা করে। এসময় স্থানীয় লোকজন মাহিনুরকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করে। আর নুরুল ইসলাম পালিয়ে যায়।

ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে এলাকাবাসীর বরাত দিয়ে জানান, নুরুল ইসলাম প্রায় সময় মাহিনুরকে উত্ত্যক্ত করতো এবং কু-প্রস্তাব দিতো। মাহিনুর হলো স্বামী পরিত্যক্তা আর নুরুল ইসলামের স্ত্রী সন্তান রয়েছে। তার পরও মাহিনুরকে উত্ত্যক্ত করতো এমন অভিযোগ রয়েছে। রোববার রাতে মাহিনুরের শরীরে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দিয়ে পালিয়ে যায়। আর এ ঘটনায় প্রত্যক্ষদর্শীরা নুরুল ইসলামের কথা বলছে। আমরা ঘটনার খবর পাওয়ার পর পর ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। আর অভিযুক্তকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও