ইবলিশও বলছে আমার চেয়ে বড় শয়তান দুনিয়াতে : শামীম ওসমান

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ১১:১৫ পিএম, ২৬ জুলাই ২০২০ রবিবার

ইবলিশও বলছে আমার চেয়ে বড় শয়তান দুনিয়াতে : শামীম ওসমান

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি শামীম ওসমান বলেছেন, একটা জিনিস মাথায় রাখতে হবে খেলা চলতেছে প্রচন্ড ষড়যন্ত্র চলছে। এই ষড়যন্ত্র কিন্তু দেশের মাটিতে হচ্ছেনা দেশের বাইরে থেকে হচ্ছে।

২৬ জুলাই রোববার দুপুরে জেলা ক্রীড়া সংস্থার উদ্যোগে নিজস্ব কার্যালয়ে খেলোয়াড়দের মাঝে অনুদান প্রদানের পূর্বে আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

গণমাধ্যমকর্মীদের উদ্দেশ্যে শামীম ওসমান বলেন, আমি জেলা প্রশাসক ও এসপি সাহেবকে বলেছি বাদ দেন অন্য জায়গা আমরা আমাদের এলাকা ধরবো। উই নিড ইউর সাপোর্ট। ঈদের পরে আমরা নারায়ণগঞ্জকে ঠিক করবো। যেখানে অন্যায় দুর্নীতি দেখবেন সেখানে লেখবেন। আমাকে সাপোর্ট কইরেননা। আমার বিপক্ষে লেখেন আমার কোন আপত্তি নাই। আমার বিরুদ্ধে দেখলে আমার বিরুদ্ধে লিখবেন। কাউকে ছাড় দিবেন না। প্রটেকশন দেয়া লাগবে আমি দিব। বাট লিখলে লিখতে হবে, হলুদ সাংবাদিকতা করা যাবেনা। পয়সা খাওয়া সাংবাদিক হওয়া যাবেনা ধান্দাবাজ সাংবাদিক হওয়া যাবেনা।

তিনি বলেন, আমি আশা করছি আগামী মাসে আপনাদেরকে বেশ কয়েটি খুশির খবর একসাথে দিতে পারবো। স্বপ্নের নারায়ণগঞ্জ হবে। এবং ঢাকার চেয়ে সুন্দর একটি নারায়ণগঞ্জের স্বপ্ন দেখছি আমি। আমরা বোধহয় সেই স্বপ্নের দরজার সামনে চলে এসেছি। কাজগুলো হয়ে গেলে নারায়ণগঞ্জ আবারো প্রাচ্যের ডান্ডি হবে। নারায়ণগঞ্জে কাজ হতে যাচ্ছে আমি এখন বলবো না কারণ প্রজেক্টে অনেকে ভাঙানি দেয়। আগামী কয়েকদিনের মধ্যে দেখবেন আল্লাহ যদি হায়াৎ রাখে এক থেকে দেড় বছরের মধ্যে দেখবেন নারায়ণগঞ্জ কোন জায়গায় এসে দাঁড়ায়। কত সুন্দর একটা এলাকা নারায়ণগঞ্জ হয়। ঈদের পর থেকে শুরু করে টেন্ডার তারপর আমার দুটো কাজ বাকি থাকবে। আমি আশা করি এই দুটো কাজও করতে পারবো। পরিপূর্ণ নারায়ণগঞ্জ হবে, নারায়ণগঞ্জের বাচ্চারা ফেসালিটিস পাবে।

তিনি বলেন, আমরা দেখছি শিক্ষিত শিক্ষিত লোকগুলো চুরি করছে। বাংলাদেশ সহ বিভিন্ন দেশে ইবলিশ শয়তানও বলতেছে আমাদের এখানে দরকার নাই। ইবলিশও বলতেছে, ‘আমার এখানে দরকার নাই। আমার চেয়ে অনেক বড় বড় শয়তান দুনিয়াতে চলে এসেছে।’ অনিয়ম এখন নিয়ম হয়ে যাচ্ছে। আমাদের একটা জায়গায় আসতে হবে। রাজনীতি করার জন্য আসছি। সত্য কথা বলতে আসছি কিছু পাওয়ার জন্য না। আমি যখন দেখি রাস্তার পাড়ে ময়লা উপচে পড়ে। আমি যখন দেখি চাষাঢ়ার মোড়ে গাড়িতে আটকে থাকি এবং যে কটা গাড়ি চলতেছে একটারও এখানকার রুট পারমিট নাই। তো যে টাকা দিয়ে রুট পারমিট নিয়েছে সেও গাড়ি চালাচ্ছে আর যার রুট পারমিট নাই সেও গাড়ি চালাচ্ছে।

জেলা প্রশাসককে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, রুপায়নের পরে সরকারি জায়গা খাস জায়গা। আমি আসার সময় দেখলাম সেখানে ভরাট হচ্ছে এবং ঘর তুলছে। প্রথমে ঘর তুলবে তারপর আপনার গিয়ে ভাঙবেন। ঘর তোলার আগে ভাঙলেননা কেন।

শামীম ওসমান বলেন, আমি এবার সিদ্ধান্ত নিয়েই নিয়ে ঘরে, বাইরে, নেতৃত্বের সামনে পার্লামেন্টে ন্যায় কথা বলবো। চোরকে চোর বলবো এবং ওকে ছাড়বোনা।

ইয়াং জেনারেশনের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আমরা অভাগা জাতি। আমরা যারা অভাগা হয়েছিলাম বঙ্গবন্ধুকে হারিয়ে। কারণ ইউরোপ আমেরিকার বাচ্চাদের মত সুখের জীবন শান্তির জীবন কাটানোর কথা ছিল যেটা আমরা পাই নাই। কেন একটা জাতিকে লিড করতে হলে একটা নেতা লাগে। আজকে তার মেয়ে (প্রধানমন্ত্রী) শেখ হাসিনাকে জাতির পিতার পর তাকে সেই স্বপ্নটা পূরণ করতে হচ্ছে। ডোন্ট সাপোর্ট আওয়ামী লীগ ডোন্ট সাপোর্ট শামীম ওসমান। বাট সাপোর্ট হার। কারণ তিনি আপনার স্বপ্ন বাস্তবায়নের জন্য চেষ্টা করছেন।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মো. জসিম উদ্দিন, ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক তানভীন আহমেদ টিটু, সহ সভাপতি ইব্রাহিম চেঙ্গিস প্রমুখ। অনুষ্ঠানে মোট ৭০ জন খেলোয়াড়কে ৭ হাজার টাকা করে অনুদান দেয়া হয়।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও