৪ কার্তিক ১৪২৫, শনিবার ২০ অক্টোবর ২০১৮ , ২:৫০ পূর্বাহ্ণ

UMo

দুর্গাপূজার রোড লাইটিং শুরু


সিটি করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৮:২৯ পিএম, ১১ অক্টোবর ২০১৮ বৃহস্পতিবার


দুর্গাপূজার রোড লাইটিং শুরু

শারদীয় দুর্গাপূজার উপলক্ষে উৎসবের আমেজে এখন থেকেই নগরীতে আলোকসজ্জা শুরু হয়েছে। নগরীর ডিআইটি এলাকার বঙ্গবন্ধু সড়কের উপর বৈদ্যুতিক ফটক ও বাহারি আলোকসজ্জা শুরু হয়ে গেছে।

১১ অক্টোবর বুধবার রাতে শহরের ডিআইটি এলাকায় সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে এ দৃশ্য। রাস্তার দুই পাশের পূজার বাদ্যবাজানার ও দেবীর মুখোশ লাইটিংয়ে সাজানো হয়েছে। আর ডিআইটি থেকে নিতাইগঞ্জগামী বঙ্গবন্ধু সড়কের করিম মার্কেটের সামনে ১৫০ ফুট উচু অস্থায়ী বৈদ্যুতিক গেট নির্মাণ করা হয়েছে। যা নজর কারছে সকল পথচারীদের।

জানা গেছে, প্রতিবছরই ভক্ত দর্শনার্থীদের জন্য নতুন কিছু আয়োজন করে নয়ামাটি নতুন পূজা উদযাপন কমিটি। এর ধারাবাহিকতায় এবছর এ আয়োজন করা হয়েছে। তাছাড়াও ষষ্ঠী থেকে পূজায় যাওয়ার সম্পূর্ন রাস্তা আরো বাহারি লাইটিং করা হবে। এর সঙ্গে থাকবে মৃদু ধর্মীয় সঙ্গীতও। এছাড়াও পূজা মন্ডপে থাকবে থিমও। তবে ভক্ত দর্শনার্থীদের জন্য আগে থেকে প্রচার করতে নারাজ আয়োজকেরা।

আয়োজকদের মধ্যে থেকে জনি জানান, অন্ধকার থাকলে রাস্তায় ছিনতাই সহ বিভিন্ন দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা থাকে। তাই ভক্ত দর্শনার্থীদের সুবিধার্থে রোড লাইটিং করা হয়েছে। এছাড়াও জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকেও বলা আছে রোড লাইটিংয়ের ব্যবস্থা করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, পূজার বাকি আছে আর মাত্র কয়েকদিন। এর মধ্যে রাস্তায় লাগানো বাতিগুলোর সমস্যা আছে কিনা যাচাই বাছাই করা সহ বিভিন্ন কাজের জন্য কয়েকদিন আগে থেকে জ্বালানো হচ্ছে। তবে সেটা রাত ১১টা পর্যন্ত থাকে তার আগেই নিভিয়ে ফেলা হয়। তবে ষষ্ঠী পূজার রাত থেকে দশমী পূজার সকাল পর্যন্ত লাইটিং থাকবে।

তিনি আরো বলেন, ভক্ত দর্শনার্থীদের জন্য অন্যান্য বারের মতো বিশেষ চমক রয়েছে। তবে আকর্ষন ধরে রাখতে এখনই বলা সম্ভব হচ্ছে না। তবে পূজার সকল আয়োজন চলছে জোরে সোরে। এরই মধ্যে মন্ডপের বাশ ও ত্রিপালের কাজ শেষ। চলছে মন্ডপের কারুকাজ সহ প্রতিমা ও ভিতরের লাইটিংয়ের কাজ। এছাড়াও পূজার অন্য সকল আয়োজন প্রায় শেষ।

জনি বলেন, সপ্তমী থেকে নবমী পর্যন্ত তিনদিন মায়ের ভক্তদের জন্য পুষ্পাঞ্জলীর ব্যবস্থা করা হয়েছে। যারা পুষ্পাঞ্জলী দিতে চাইবেন তারা নির্দিষ্ট সময়ে এসে মায়ের চরণে পুষ্প অর্পণ করতে পারবেন। এছাড়াও পূজার পরে প্রসাদ বিতরণ করা হবে। আর সন্ধ্যার পর থেকে থিম ও সঙ্গিত পরিবেশ করা হবে।

নিরাপত্তার বিষয়ে জনি জানান, নিরাপত্তার জন্য স্বেচ্ছাসেবক সহ আনসার ও পুলিশ থাকবে। তাছাড়া আশা করছি মায়ের পূজা শান্তিপূর্ন ও আনন্দঘন পরিবেশ অনুষ্ঠিত হবে। আমরা নিরাপত্তা নিয়ে কোন প্রকার শঙ্কিত না।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

ধর্ম -এর সর্বশেষ