শংকিত না নারায়ণগঞ্জের খ্রিস্টান সম্প্রদায়, নিরাপত্তায় র‌্যাব

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:২১ পিএম, ১৭ মার্চ ২০১৯ রবিবার

শংকিত না নারায়ণগঞ্জের খ্রিস্টান সম্প্রদায়, নিরাপত্তায় র‌্যাব

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে জুম্মার নামাজের সময় মসজিদে সন্ত্রাসী হামলার পর সারাদেশের মত নারায়ণগঞ্জেও সকল মসজিদে নিহত ব্যাক্তিদের শহীদি মর্যাদায় অভিহিত করে তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া ও মোনাজাত করা হয়েছে। শোক ও ঘৃণায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যাক্ত করেছেন অনেকেই।

বাংলাদেশ খ্রিস্টান অ্যাসোসিয়েশনের কেন্দ্রীয় সাংস্কৃতিক সম্পাদক পিন্টু পলিপাস পিউরিফিকেশন বলেন, আমরা খ্রিস্টান অ্যাসোসিয়েশন থেকে এই ন্যাক্কারজনক হামলার তীব্র নিন্দা জানাই। ধর্মের নামে এমন হত্যাযজ্ঞ কোন ভাবেই সমর্থনযোগ্য না। এটি কোন মানুষের কাজ বলে গৃহীত হতে পারে না। আমরা নিহত পরিবারগুলোর প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করছি।

নিরাপত্তার ব্যাপারে জানতে চাইলে বলেন, আমি মনে করি না নারায়ণগঞ্জের গীর্জাগুলোতে নিরাপত্তার প্রয়োজন রয়েছে। আমার ভাই বন্ধু সকলেই মুসলিম, তাদের মাধ্যমে কোন ক্ষতির আশংকা নেই আমাদের। আমরা সকল ধর্মের মানুষকে আমাদের উৎসব অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানাই এবং ভ্রাতৃত্বপূর্ন সম্পর্ক তৈরী করতে চাই।

নারায়ণগঞ্জ পুলিশের বিশেষ শাখার পরিদর্শক সাজ্জাদ রুমন বলেন, নিউজিল্যান্ডের ঘটনায় আমরা নারায়ণগঞ্জে অপ্রীতিকর ঘটনা ঠেকাতে সতর্ক অবস্থানে রয়েছি। ইতোমধ্যে গোয়েন্দা সংস্থা ও কর্মকর্তারা সতর্ক অবস্থানে রয়েছেন। যে কোন প্রয়োজনে উপাসনালয়গুলোতে নিরাপত্তা বৃদ্ধি সহ সার্বিক নিরাপত্তার বিষয়টি আমরা নজরে রেখেছি।

এদিকে হামলার পর র‌্যাব-১১ এর আওাতাধীন এলাকায় সংখ্যালঘু এলাকা ও খ্রিষ্টান স¤প্রদায়ের উপাসনালয় ও গির্জাসমূহে এবং সংখ্যালঘু ও খ্রিষ্টান অধ্যুষিত এলাকায় প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা তথা টহল কার্যক্রম ও গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করা হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জের আদমজীতে অবস্থিত র‌্যাব-১১ এর এএসপি মো. নাজমুল হাসান ১৭ মার্চ রোববার বিকেলে গণমাধ্যমে পাঠানো প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

র‌্যাব জানায়, নিউজিল্যান্ডের হামলাকে কেন্দ্রকরে বাংলাদেশের সংখ্যালঘু সস্প্রদায় বিশেষ করে খ্রিস্টান স¤প্রদায়ের উপাসনালয় ও গির্জাসমূহে আইন শৃংখলা পরিস্থিতির অবনতি করণ এর কোন চেষ্টা কিংবা তাদের উপর কোন ধরনের হামলার প্রয়াস প্রতিহত করা এবং সর্বোপরি দেশের ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন করতে কোন মহল চেষ্টা করতে পারে। সে কারণেই র‌্যাব-১১ এর আওতাধীন নারায়ণগঞ্জ, নরসিংদী, লক্ষ্মীপুর সহ আরো কয়েকটি জেলায় সংখ্যালঘু এলাকা ও খ্রিস্টান স¤প্রদায়ের উপাসনালয় ও গির্জাসমূহে এবং সংখ্যালঘু ও খ্রিস্টান অধ্যুষিত এলাকায় প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা তথা টহল কার্যক্রম ও গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করা হয়েছে।

বাংলাদেশ খ্রিস্টান অ্যাসোসিয়েশনের কেন্দ্রীয় সাংস্কৃতিক সম্পাদক পিন্টু পলিপাস পিউরিফিকেশন বলেন, ধর্মের নামে এমন হত্যাযজ্ঞ কোন ভাবেই সমর্থনযোগ্য না। এটি কোন মানুষের কাজ বলে গৃহীত হতে পারে না। আমরা নিহত পরিবারগুলোর প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করছি।


বিভাগ : ধর্ম


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও