পূজা পরিষদের দায়িত্বে খোকন সাহা

প্রেস বিজ্ঞপ্তি || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ১১:৫৮ পিএম, ১০ মে ২০১৯ শুক্রবার

পূজা পরিষদের দায়িত্বে খোকন সাহা

নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর পূজা উদযাপণ পরিষদের নতুন কমিটি গঠনের লক্ষ্যে সম্মেলন করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলেিগর সাধারণ সম্পাদক খোকন সাহাকে সমন্বয়কের দায়িত্ব দিয়ে দ্রুত নতুন কমিটি গঠনের জন্য সুপারিশ করেছেন বাংলাদেশ পূজা উদযাপণ পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক নির্মল চ্যাটার্জি।

বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ বন্দর উপজেলা শাখার দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এই ঘোষনা দেন  বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক নির্মল কুমার চ্যাটার্জী।

শুক্রবার (১০ মে) দুপুরে বন্দর উপজেলাধীন লাঙ্গলবন্দ প্রেমতলা কালী মন্দির প্রাঙ্গণে এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

তিনি আরো বলেন, গত কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ কর্মসূচিতে জেলা পূজা পরিষদের কর্মকান্ড ছিলো প্রশ্নবিদ্ধ। এমনকি আজকের সম্মেলনেও তারা আসেনি। এতে করে তারা তাদের সাংগঠনিক অদক্ষতার প্রমাণ দিলো। এখন থেকে জেলা ও মহানগর পূজা পরিষদের খোকন সাহাকে সমন্বয়কের দায়িত্ব দেয়া হলো দ্রুত সাংগঠনিক দক্ষতা সম্পন্ন লোকদের দিয়ে একটি কমিটি গঠন করার জন্য। খোকন সাহা একজন দক্ষ সংগঠক। তিনি সকলের সাথে আলোচনা করে সম্মেলনের মাধ্যমে জেলা ও মহানগরে নতুন নেতৃত্ব তৈরী করবেন এবং খোকন সাহা যে কমিটি ঘোষনা দেবেন কেন্দ্র তাই অনুমোদন দেবে।

এদিকে নারায়ণগঞ্জ জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের অন্তর্গত বিভিন্ন থানা ও উপজেলা কমিটির নেতৃবৃন্দ তাদের বক্তব্যে বর্তমান জেলা কমিটির নানা অনিয়ম আর দূর্নীতির চিত্র তুলে ধরে তাদের বাদ দিয়ে নতুন কমিটি গঠনের দাবী করে বলেন, বিগত সময়ে জেলা পূজা উদযাপণ পরিষদের সভাপতি শংকর সাহা তৃণমূল নেতাকর্মীদের কোন খোঁজ নেননি। সোনারগাঁ, রূপগঞ্জ, আড়াইহাজার, বন্দর, ফতুল্লা থানা ও উপজেলা কমিটি জেলা কমিটির অন্তর্গত হলেও জেলা কমিটির নেতারা গত কয়েক বছর কোন উৎসব পার্বণে তাদের কোন খোঁজই নেননি। এমনকি বিপদ আপদেও তাদের কাউকে পাশে পাওয়া যায়নি। বরং নারায়ণগঞ্জ মহানগর কমিটির অংশ না হয়েও সভাপতি দিপক সাহা ও সাধারণ সম্পাদক শিখন সরকার শিপনের সাহায্য সহযোগিতা সব সময় পেয়ে গেছে তৃণমূল নেতৃবৃন্দ। তাই এই অযোগ্য লোকদের আর জেলা কমিটিকে না রাখার জন্য কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদকের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তারা।

নারায়ণগঞ্জ মহানগর পূজা উদযাপণ পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শিখন সরকার শিপন বলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর পূজা পরিষদের তৃণমূল নেতৃবৃন্দের পাশে সব সময় ছিলাম, ভবিষ্যতও থাকবো। নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সাংসদ একেএম সেলিম ওসমান সব সময় আমাদের পাশে রয়েছেন। সদ্য সমাপ্ত লাঙ্গলবন্দ ¯œান উৎসবে এবং গত দূর্গোৎসবে হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রতি তার অকৃত্রিম সহযোগিতার জন্য পূজা পরিষদের পক্ষ থেকে কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপণ করছি। বিশেষ করে দূর্গা পূজার সময় প্রতিটি মন্ডপে তার ব্যক্তিগত তহবিল থেকে ২৫ হাজার টাকা করে অনুদানের ঋণ আমরা কোনদিন ভুলবো না।

বন্দর উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি শংকর কুমার দাশের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শ্যামল বিশ্বাসের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত উপজেলা সম্মেলনে প্রধা অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক নির্মল কুমার চ্যাটার্জী, নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সমন্বয়ক এবং মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক খোকন সাহা, বিশেষ অতিথি বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক সাগর হালদার, মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি দীপক কুমার সাহা, সাধারণ সম্পাদক শিখণ সরকার শিপন, জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ কুমার দাশ, মহানগর কমিটির সভাপতি লিটন চন্দ্র পাল, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের দপ্তর সম্পাদক হিমাদ্রি সাহা হিমু।

আরোও উপস্থিত ছিলেন মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সিনিয়র সহ-সভাপতি অরুন কুমার দাশ, কোষাধ্যক্ষ সুশীল দাস, সোনারগাঁও থানা পূজা উদযাপন পরিষদের লোকনাথ দত্ত, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা কমিটির সভাপতি শিশির ঘোষ অমর, রূপগঞ্জ উপজেলা কমিটির সভাপতি  রামাকান্ত সরকার, আড়াইহাজার উপজেলা কমিটির সভাপতি হারাধন দে, ফতুল্লা পূজা উদযাপন পরিষদের সহ সভাপতি প্রদীপ মন্ডল, সহ সম্পাদক অরুণ দাশ, বন্দর উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক রিপন দাস প্রমূখ ।

এ সময় শংকর দাশকে সভাপতি ও শ্যামল বিশ্বাসকে সাধারণ সম্পাদক করে আগামী দুই বছরের জন্য বন্দর উপজেলা পূজা পরিষদের নতুন কমিটি ঘোষনা করা হয় এবং আগামী ১৫ দিনের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি জমা দেওয়ার নির্দেশনা প্রদান করা হয়।


বিভাগ : ধর্ম


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও