মন্দিরের সংস্কার কাজে ক্ষুব্ধ হয়ে চলে আসলেন আনোয়ার হোসেন

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:০৯ পিএম, ১৬ মে ২০১৯ বৃহস্পতিবার

মন্দিরের সংস্কার কাজে ক্ষুব্ধ হয়ে চলে আসলেন আনোয়ার হোসেন

নারায়ণগঞ্জ শহরের দেওভোগ এলাকায় অবস্থিত শ্রী শ্রী রাজা লক্ষ্মী নারায়ণ জিউর বিগ্রহ মন্দিরের সংস্কার কাজ পরিদর্শন করতে গিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন। সেই সাথে এদিন সংস্কার কাজের উদ্বোধন করার কথা থাকলেও কাজ দেখে সন্তুষ্ট হতে না পারায় সংস্কার কাজের উদ্বোধন না করেই তিনি চলে আসেন।

১৬ মে বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১ টায় নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন শ্রী শ্রী রাজা লক্ষ্মী নারায়ণ জিউর বিগ্রহ মন্দিরে গেলে এই ঘটনা ঘটে।

এসময় আনোয়ার হোসেন বলেন, দেওভোগ আমার এলাকা। এই এলাকার উন্নয়ন মানে আমার উন্নয়ন। এই এলাকার উন্নয়ন কাজে অবহেলা মেনে নেয়া হবে না। মন্দির একটি ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান। ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন কাজে অবহেলা মেনে নেয়ার মতো নয়। এই মন্দির সংস্কার কাজ দেখে আমি সন্তুষ্ট হতে পারি নাই। আমার কাছে পছন্দ হয়নি। আর তাই উদ্বোধন না করেই আমি চলে যাচ্ছি। পরবর্তীতে নতুন করে আবার সংস্কার কাজ করা হবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন শ্রী শ্রী রাজা লক্ষ্মী নারায়ণ জিউর বিগ্রহ মন্দিরের উপদেষ্টা বাবু সমীর কর, কীর্তন কমিটির সাধারণ সম্পাদক সংকর ঘোষ, কোষাধ্যক্ষ বাদল সাহা, চক্রধারী রায়, কৃষ্ণ সাহা, অশোক কর্মকার, পুরোহিত দীপংকর চক্রবর্তী, রামসিতা মন্দিরের পুরোহিত শ্যামল মহারাজ ও গোপাল সাহা সহ গণ্যমান্য ব্যক্তিরা।

জানা যায়, নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের অনুদানের টাকায় শ্রী শ্রী রাজা লক্ষ্মী নারায়ণ জিউর বিগ্রহ মন্দিরের সংস্কার কাজ চলে আসছিল। আর এই সংস্কার কাজের ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছিলেন নাদিম এন্টারপ্রাইজ। কিন্তু তাদের কাজ দেখে মন্দিরের দায়িত্ব পালনরত লোকজন সন্তুষ্ট হতে পারেনি। যার ধারাবাহিকতায় জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন নিজেও সন্তুষ্ট হতে পারেন নি।

মন্দিরের দায়িত্ব পালনরত লোকজন বলেন, নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে মন্দিরের সংস্কার কাজ করা হচ্ছিল। ফলে যে কোন এটি ধ্বসে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।


বিভাগ : ধর্ম


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও