সৌদির সঙ্গে মিল রেখে নারায়ণগঞ্জে একদিন আগেই জামাত অনুষ্ঠিত

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ১২:৫৬ পিএম, ৪ জুন ২০১৯ মঙ্গলবার

সৌদির সঙ্গে মিল রেখে নারায়ণগঞ্জে একদিন আগেই জামাত অনুষ্ঠিত

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার লামাপাড়া এলাকায় সৌদি আরবের সঙ্গে মিলিয়ে পবিত্র ঈদুল ফিতরের নামাজ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৪ জুন মঙ্গলবার সকাল ১০টায় হযরত শাহ্ সুফী মমতাজিয়া এতিমখানা ও হেফজখানা মাদ্রাসায় ‘জাহাগিরিয়া তরিকার’ অনুসারীরা সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে তারা ঈদ উদযাপন করে।

প্রতি বছরের মত এবারও ঈদের জামাতে অংশ নিতে গাজীপুরের টঙ্গী, ঢাকার কেরানীগঞ্জ, পুরাতন ঢাকা, ডেমরা, সাভার এবং নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ,বন্দর ও সোনারগাঁ উপজেলা থেকে মুসল্লিরা অংশ নেয়। ঈদের জামাতের ইমামের দায়িত্ব পালন করেন হযরত শাহ্ সুফী মমতাজিয়া মাদ্রাসার মুফতি মাওলানা আনোয়ার হোসেন শুভ।

মাওলানা মুফতি আনোয়ার হোসেন শুভর ঈদের বয়ানে মুসুলীদের উদ্যেশে বলেন, প্রযুক্তির সাথে সাথে আমাদেরও পরিবর্তন আনতে হবে। আজ থেকে ৭০ বছর পূর্বে ঘড়ি দেখে নামাজ পড়া যাবেনা বলে ফতোয়া উঠেছিলো। আজ সেখানে ঘড়ি দেখেই নামাজ রোজা পালন করা হচ্ছে। আমরা দূরবীনের মাধ্যমে চাঁদ দেখতে পারলে টেলিস্কোপ দিয়ে কেন চাঁদ দেখা যাবেনা?

তিনি আরও বলেন, গত ২ বছর পূর্বে বাংলাদেশের পঞ্চগড়ে শুধুমাত্র চাঁদ দেখা গিয়েছিলো। সারাদেশের অন্যকোথাও দেখা যায়নি। কিন্ত ঈদ তো দেশবাসী পালন করেছে। কোথাও কি লেখা আছে চাঁদ নিদৃষ্ট দেশের জন্য প্রযোজ্য? দেশ তো মানুষের তৈরী সীমারেখা কেবল। এ বছর সৌদি তে চাঁদ দেখা যায় নি। আমেরিকার ক্যালিফোর্নিয়াতে দেখা চাঁদকে মুসলিম স্কলাররা সৌদির জন্য প্রযোজ্য বলে নির্ধারন করেছেন। সুতরাং প্রযুক্তির সাথে সাথে আমাদেরকেও এভাবে পরিবর্তন করে নেয়া উচিৎ। তবে কেউ নিজ চোখে দেখে রোজা ঈদ পালন করতে চাইলেও সে সেটি করতে পারে। এতে আমাদের কোন আপত্তি নেই।


বিভাগ : ধর্ম


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও