হজ প্রশিক্ষণের নামে প্রতীকী কাবাঘর তৈরি নিয়ে ক্ষোভ

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:৫৯ পিএম, ২৪ জুন ২০১৯ সোমবার

ফাইল ফটো
ফাইল ফটো

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে পবিত্র মক্কার আদলে তৈরি প্রতীকী কাবাঘর ও মাকামে ইব্রাহিম তৈরী করে ৫ শতাধিক হজ যাত্রীকে প্রশিক্ষণ দেয়ায় আলেম সমাজে নিন্দা ও ক্ষোভ তৈরী হয়েছে। প্রতীকী কাবা তৈরীর মাধ্যমে পবিত্র কাবা শরীফকে অবমাননা এবং হজকে অবজ্ঞা করা হয়েছে অভিমত তাদের।

গত ২২ জুন শনিবার মারুফ শারমিন স্মৃতি সংস্থার উদ্যোগে মোজাম্মেল হক ভূইয়া কারিগরি স্কুল এন্ড কলেজ মাঠে এ হজ প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনটির পক্ষ থেকে দাবী করা হয় তারা ৫ শতাধিক হজ যাত্রীকে বিনামূল্যে প্রশিক্ষণ দিয়েছেন। তবে বিভিন্ন গণমাধ্যমে এই নিউজ প্রকাশিত হলে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যাক্ত করেন পাঠক ও ধর্মপ্রান মুসলমানরা

এই প্রশিক্ষণকে বেদাত এবং ইসলামকে অবমাননা করা হয়েছে বলে অভিহিত করেন পাঠকরা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পাঠকরা বলেন, কাবা ঘর মুসলমানদের অত্যান্ত পবিত্র একটি স্থান। প্রতীকী ভাবে প্রদর্শন ও তাওয়াফ করালে কাবা শরীফের প্রতি প্রশিক্ষনার্থীদের সন্মান কমে যেতে পারে।

একই ভাবে আরেকজন পাঠক সোলাইমান জানান, প্রতীকী কাবা নিয়ে মুসলমানদের মাঝে দাঙ্গা বিবাদ তৈরী হবার শঙ্কা রয়েছে। ইসলামের নামে এমন কিছু করা উচিৎ নয় যা মুসলমানদের মাঝে ভুল বোঝাবুঝি ও ফেতনার সৃষ্টি হয়। সেদিক থেকে এটি অবশ্যই বর্জনীয় একটি কাজ। আর এমন ভাবে প্রশিক্ষন দেয়াটাও নাজায়েজ।

নারায়ণগঞ্জ শহরের অন্যতম বৃহৎ ডিআইটি জামে মসজিদের খতিব ও জেলা হেফাজতে ইসলামের আমীর মাওলানা আবদুল আউয়াল নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, এটি তাদের ধর্মের নামে বাড়াবাড়ি ও অতিরঞ্জিত কাজ। এভাবে কাবা নির্মাণ করে প্রশিক্ষণ দেয়া ঠিক নয়। কোন হজ যাত্রী ইতিপূর্বে এভাবে প্রশিক্ষণ নেয় নি বা অনুমতি দেয়া হয়নি। সুতরাং এমন কার্যকলাপ বর্জন করা উচিত।


বিভাগ : ধর্ম


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও