মহাসপ্তমী পালিত মহাঅষ্টমীর ‘ক্লাইমেক্স’ রোববার

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:২৮ পিএম, ৫ অক্টোবর ২০১৯ শনিবার

মহাসপ্তমী পালিত মহাঅষ্টমীর ‘ক্লাইমেক্স’ রোববার

বাঙালি হিন্দুদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা নবপত্রিকা প্রবেশ ও সপ্তমীবিহিত পূজায় পুষ্পাঞ্জলির মাধ্যমে মহাসপ্তমী পূজা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৬ অক্টোবর রোববার মহাষ্টমী। শারদীয় দুর্গোৎসবে পূজারী ও ভক্তরা মহাষ্টমীকে বিশেষ জাঁকজমকপূর্ণ করে পালন করেন। অষ্টমী পূজাকেই শারদীয় দুর্গোৎসবের ‘ক্লাইমেক্স’ হিসেবে গণ্য করা হয়।

৫ অক্টোবর শনিবার সকাল থেকেই নবপত্রিকা প্রবেশ, স্থাপনের মধ্যে দিয়ে পূজা শুরু হয়। এসময় একে একে সনাতন ধর্মাবলম্বী নারী ও পুরুষ ফল ফলাদি দিয়ে পূজার ভোগ সাজিয়ে মন্ডপে চলে আসেন। পরে বেলা ১টায় নতুন পোশাক পড়ে পূজায় অংশগ্রহণ করেন নারী, পুরুষ শিশু সহ সকলের বয়সের ভক্তরা। পূজার আরতী শেষে ফুল বেলপাতা, দুর্বা নিয়ে পুষ্পাঞ্জলি নিবেদন করেন দেবী দুর্গার চরণে। প্রনাম ও চরণমৃত দিয়ে উপবাস নিবারণ করেন সকল বয়সের ভক্তরা। পরে মন্দির থেকে সকল ভক্তদের মধ্যে প্রসাধ বিতরণ করা হয়।

সন্ধ্যায় আরতী ও রাত সাড়ে ১১টায় অর্ধরাত বিহিত পূজা অনুষ্ঠিত হবে।

৬ অক্টোবর মহাষ্টমী, কুমারী পূজা, পুষ্পাঞ্জলী, আরতি, প্রসাধ বিতরণ, সন্ধিপূজা। ৭ অক্টোবর মহানবমী, পুষ্পাঞ্জলী, আরতিও প্রসাধ বিতরণ। ৮ অক্টোবর বিজয়া দশমী, পূজা সমপন ও দপর্ণ বিসর্জন, সন্ধ্যা আরত্রিকে পর প্রতিমা বিসর্জন এবং পরে শান্তিজল গ্রহণ। রাত ৮টা থেকে শহরের বিভিন্ন মন্দির থেকে বের করা হবে বিজয়া শোভাযাত্রা। শোভাযাত্রাটি চাষাঢ়া গোল চত্ত্বর, গলাচিপা মোড়, নারায়ণগঞ্জ ক্লাব মার্কেটের সামনে হয়ে ২নং রেল গেট হয় শীতলক্ষ্যা নদীর তীরে গিয়ে শেষ হবে।’

এবার নারায়ণগঞ্জে ২০৫টি পূজামণ্ডপে দুর্গাপূজা হবে। এর মধ্যে নারায়ণগঞ্জ সদর থানা এলাকায় ৩৯টি, ফতুল্লায় ২৬টি, সিদ্ধিরগঞ্জে ৭টি, বন্দরে ২৬টি, সোনারগাঁয়ে ৩১টি, আড়াইহাজারে ৩১টি ও রূপগঞ্জে ৪৮টি। নেতাদের দাবি যার মধ্যে ১০ থেকে ১২ মন্ডপ ঝুঁকিপূর্ণ।

এদিকে কঠোর নিরাপত্তা লক্ষ্য করা গেছে প্রতিটি পূজামণ্ডপে। এছাড়াও রাস্তা ও পূজামণ্ডপের আশে পাশে ব্যাপক আলোকসজ্জা করা হয়েছে। এছাড়াও প্রতিটি পূজামণ্ডপে নিজেদের স্বেচ্ছাসেবকও কাজ করছে ব্যাচ ও বাশি নিয়ে। ফলে ষষ্ঠী থেকেই পূজা মণ্ডপগুলোতে দর্শনাথীদের ভীর দেখা যায়। সপ্তমী, অষ্টমী ও নবমী এ তিন রাতেই ভক্ত দর্শনার্থীদের প্রচণ্ড ভীড়।

উকিলপাড়া পূজা মণ্ডপের সাংগঠনিক সম্পাদক রাজীব চন্দ্র সরকার মনু বলেন, দশনার্থীদের উপস্থিত অনেক বেশি। বৃষ্টি না হলে ভক্তদের উপস্থিতি আরো বাড়বে। প্রতিবার সপ্তমী থেকে দর্শনার্থীদের ভীড় দেখা গেলেও এবার ষষ্ঠী থেকেই ভক্ত দর্শনার্থীদের ভিড় দেখা গেছে। এজন্য আশা করা যাচ্ছে সপ্তমী, অষ্টমী ও নবমী এবং বিজয় দশর্মীতেও দর্শনার্থীদের উপস্থিতি ভালো থাকবে।

তিনি বলেন, পুলিশের কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা রয়েছে। এছাড়াও সাদা পোশাকে গোয়েন্দা পুলিশ সর্বক্ষনিক পরিদর্শন করছেন ও আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করছেন। এছাড়াও পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ হুশিয়ারী দিয়েছেন বিশৃঙ্খলা করলে কাউছে ছাড় দেওয়া হবে না। এসব দিক থেকে আমরাও সর্তক অবস্থান আছি। আশা করছি শান্তিপূর্ণ ভাবেই পূজা শেষ হবে।


বিভাগ : ধর্ম


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও