সরকারী নির্দেশনা মানা হচ্ছে না মসজিদগুলোতে, কমে গেছে স্প্রে

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ১১:০৪ পিএম, ৩ এপ্রিল ২০২০ শুক্রবার

সরকারী নির্দেশনা মানা হচ্ছে না মসজিদগুলোতে, কমে গেছে স্প্রে

সাম্প্রতিক সময়ের সবচেয়ে আলোচিত বিষয় হলো প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাস। আর এই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ইতোমধ্যে নারায়ণগঞ্জে একজন মারা গেছেন। সেই সূত্র ধরে দেশের অন্যান্য জেলার তুলনায় নারায়ণগঞ্জে স্বাভাবিকভাবেই বেশি সতর্ক হওয়ার কথা। কিন্তু এই নারায়ণগঞ্জেই করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে মানা হচ্ছে না কোন দিক নির্দেশনা। দিক নির্দেশনা মানার ক্ষেত্রে নারায়ণগঞ্জের মসজিদগুলোতে আগের চেয়ে অনেক শিথিলতা চলে এসেছে। বাড়ি থেকে সুন্নাত নামাজ পড়ে আসার কথা বলা হলেও মুসল্লিরা সেই নির্দেশনা না মেনে মসজিদে এসেই সুন্নত আদায় করছেন। সেই সাথে প্রথমদিকে মসজিদে প্রবেশের সময় জীবানুনাশক স্পে করা হলেও এখন আর সেই স্প্রে করা হচ্ছে না।

সূত্র বলছে, প্রাণঘাতি এক ভাইরাসের নাম হচ্ছে করোনা ভাইরাস। এই ভাইরাসে আক্রান্ত হলে রয়েছে মৃত্যুঝুঁকি। আর এই ভাইরাসটি খুব কম সময়ের মধ্যে এক জায়গা থেকে অন্য জায়াগায় স্থানান্তর করতে পারে। ইতোমধ্যে বিশে^র বিভিন্ন দেশে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন। এতদিন এই ভাইরাস বাংলাদেশের বাইরে থাকলেও এবার বাংলাদেশেও ছড়িয়ে পড়েছে এই করোনা ভাইরাস। এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে যে কয়জন মারা গেছেন তার মধ্যে নারায়ণগঞ্জেও একজন রয়েছেন।

এদিকে প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসকে কেন্দ্র করে সরকারের পক্ষ থেকে ওয়াজ মাহফিল এবং তীর্থযাত্রাসহ সব ধরণের ধর্মীয়, রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক জমায়েত বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। একই সাথে মসজিদে জামাতে নামাজ পড়া স্থগিত রাখার ব্যাপারে সরকার চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে পৌছতে না পারলেও বলা হয়েছে যথা সম্ভব দূরে থাকার জন্য। পাশাপাশি ফরজ নামাজ ছাড়া সকল সুন্নাত নামাজ বাড়ি থেকে আদায় করার জন্য বলা হয়েছিল।

এ বিষয়ে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো: আব্দুল্লাহ বলছিলেন, যারা বয়স্ক, যাদের নিয়ে শংকা আছে, বা বিদেশ থেকে যারা এসেছেন, তারা সীমিতভাবে মানে নামাজে ভিড় করাটা আমরা নিষেধ করেছি। আমরা মসজিদের ইমাম এবং খতিবদের মাধ্যমে এ ব্যাপারে সচেতনতা তৈরির চেষ্টা করছি। তবে এ বিষয়টিকে প্রাধান্য দিচ্ছেন না নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন মসজিদের মুসল্লিরা। তবে গত এক সপ্তাহ আগেও নারায়ণগঞ্জ শহরের মসজিদগুলোতে অনেক নির্দেশনাই অনুসরণ করে আসছিলেন। কিন্ত বর্তমানে সে সকল নির্দেশনা অনেকটাই এড়িয়ে চলছেন মুসল্লিরা।

সবশেষ ৩ এপ্রিল শুক্রবার জুমআর নামাজের সময় করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সরকারি নির্দেশনা মানার ক্ষেত্রে গুরত্বহীনতা লক্ষ্য করা গেছে। গত জুমআর নামাজে মুসল্লিদেরকে মাস্ক ব্যবহারে বাধ্য করা হলেও এবারের জুমআর নামাজে সেটা পরিলক্ষিত হয়নি। সেই সাথে গত জুমআর নামাজে মসজিদে প্রবেশের সময় মুসল্লিদেরকে জীবানুনাশক স্প্রে করা হলেও এবার কোন স্প্রে করা হয়নি। একই সাথে মসজিদ থেকে সুন্নাত নামাজ বাসায় পড়ে আসার কথা বলা হলেও মুসল্লিরা সেই নির্দেশনার অনুসরণ করে নি।


বিভাগ : ধর্ম


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও