৪ কার্তিক ১৪২৫, শুক্রবার ১৯ অক্টোবর ২০১৮ , ৬:১৬ অপরাহ্ণ

UMo

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারণার ব্যাখ্যা মাহমুদুন্নবীর


সিটি করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৯:৫১ পিএম, ২৪ এপ্রিল ২০১৮ মঙ্গলবার


সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারণার ব্যাখ্যা মাহমুদুন্নবীর

আমি মাহমুদুন্নবী পিয়াল, ২০১৫ সালে সরকারি তোলারাম ও নারায়ণগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজে ছাত্রলীগের ভর্তি বাণিজ্যের প্রতিবাদ করি। তখন আমি ছাত্র ফেডারেশনের একজন কর্মী। প্রতিবাদ করায় তোলারাম কলেজ শাখার ছাত্রলীগের কর্মীরা আমাকে কয়েক দফা নির্যাতন করে। তাদের নির্যাতনের শিকার আমার সহপাঠীরাও হয়।

এছাড়াও সে সময় যখন ভয় ভীতি দেখিয়ে ছাত্রলীগের ভর্তি বাণিজ্য বিরোধী আন্দোলন দমিয়ে রাখতে ব্যর্থ হয়েছে। তখন একসময় আমার সহপাঠীদের মাধ্যমে আমাকে কলেজে ডেকে নেয়া হয়। আমি কলেজে পৌঁছার পর এলোপাথারীভাবে আমাকে মারধর করার পাশাপাশি আমার ব্যাগ কেড়ে নিয়ে তল্লাশী চালানোর নাটক সাজানো হয়। এবং আমার অগোচরে তল্লাশী করা হয় আমার ব্যাগ। তখন ব্যাগে ওরা ওদের ইচ্ছে মতো জিনিসপত্র ঢুকিয়ে দেয়। যার কোনকিছুই আমার ছিলো না। পরে পুলিশ ডেকে আমাকে ধরিয়ে দেয়।

এর পর গত ২০১৬ সালের আগস্ট মাস থেকে আমি সক্রিয় রাজনীতি থেকে সরে পড়ি। এবং ২০১৭ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি থেকে নারায়ণগঞ্জে সংবাদ কর্মী হিসেবে কাজ করে আসছি। প্রথমে কিছুদিন যুগের চিন্তা পত্রিকায় কর্মরত ছিলাম, বর্তমানে প্রেস নারায়ণগঞ্জের সাথে যুক্ত রয়েছি।

এদিকে ২৩ এপ্রিল ২০১৮ সালে কলেজের  ছাত্র এবং প্রেস নারায়ণগঞ্জের সাংবাদিক ও প্রথম আলো বন্ধু সভার সদস্য সৌরভকে একই কায়দায় কলেজে ডেকে নিয়ে কলেজের ছাত্রছাত্রী সংসদে আটকিয়ে বেড়ক মারধার করা হয়। বিষয়টি গণমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। এই ঘটনা আড়াল করার জন্য  তারা আমার বিরুদ্ধে সেই পুরানো প্রচারনা চালাচ্ছে।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

স্যোশাল মিডিয়া -এর সর্বশেষ