৫ কার্তিক ১৪২৫, রবিবার ২১ অক্টোবর ২০১৮ , ৮:৪৯ পূর্বাহ্ণ

UMo

ফেসবুক স্ট্যাটাসে যা লিখলেন এটিএম কামাল


স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৮:২৭ পিএম, ৩০ এপ্রিল ২০১৮ সোমবার


ফেসবুক স্ট্যাটাসে যা লিখলেন এটিএম কামাল

আমেরিকাতে অবস্থানকারী নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির সেক্রেটারী এটিএম কামাল বাংলাদেশী সময় ৩০ এপ্রিল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন। এতে তিনি লিখেছেন, ‘রাজনৈতিক পরিচয়ে আমি এখানে আসিনি। এসেছি শারীরিক, পারিবারিক ও সম্পূর্ন ব্যক্তিগত কারণে। দুবাইয়ের প্রতিষ্ঠিত ব্যবসা, স্বপরিবারে বিলাশী জীবন ছেড়ে দেশে এসেছিলাম রাজনীতির নেশায়। ইচ্ছে করলে সেখান থেকেই ইউরোপ, এমরিকায় চলে যেতে পারতাম সবাইকে নিয়ে, দেশে আসার সময় যে অর্থ নিয়ে এসেছিলাম রাজনীতি না করে তা ব্যবসায় লগ্নি করলেও শিল্পপতি না হলেও ছোটখাটো ব্যবসায়ী হওয়ার সুযোগ ছিল। কিন্তু তা না করে রাজপথে আন্দোলন করতে গিয়ে বারবার পুলিশের হাতে বেধড়ক লাঠিপেটার শিকার হয়েছি। যার কারণে এখন আমি শারীরিক নানা জটিলতায় ভুগছি। রাজনৈতিক কারণে ডজন ডজন মামলা খেয়ে, অসংখ্যবার জেল খেটেও দেশ ছাড়িনি। আজ আমার শারীরিক অক্ষমতা ও মানসিক বিপর্যস্ততাকে যারা স্বার্থপরতার রূপ দিতে চায় তাদের জন্য আমার দোয়া রইলো আল্লাহ যেন তাদের সুখে রাখেন। আমিন।

নারায়ণগঞ্জ বিএনপির আন্দোলনের পুরোধা হিসেবে পরিচিত এটিএম কামাল ২১ দিন ধরে আমেরিকাতে বসবাস করছেন। সেখানে তার মেয়ের স্পন্সরে তিনি স্থায়ী ভিসা পেয়েছেন।

এর আগে নিউজ নারায়ণগঞ্জকে কামাল বলেন, ‘আমি রাজনৈতিক আশ্রয় নেই নাই, নিবোও না। আমার মেয়ের স্পন্সরে আমেরিকাতে আমার স্থায়ী ভিসা অনেক আগেই হয়েছিল। কিন্তু পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সহ নানা কারণে আমার দেশ ত্যাগে বিলম্ব হয়। মূলত কিছু জটিল চিকিৎসার কারণে আমাকে আমেরিকাতে আসতে হয়েছে। আর স্পন্সর ভিসারও কিছু নিয়ম আছে। সে কারণেই ভিসাটিকে টিকিয়ে রাখতেই আমেরিকাতে এসেছি। যেহেতু আমার স্থায়ী ভিসা আছে সেহেতু আমার রাজনৈতিক ভিসা নেওয়ার তো কোন প্রয়োজন হয় না।’

৮ এপ্রিল রোববার দিনগত রাত ১টায় তিনি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর ত্যাগ করেন। কামালের পারিবারিক সূত্র মতে, আমেরিকাতে কামালের এক মেয়ে বসবাস করেন। মূলত কামাল সেখানে মেয়ের কাছেই অবস্থান করছেন। পাশাপাশি তিনি শারীরিক চিকিৎসা করাবেন। গত কয়েকদিন ধরেই কামাল বেশ অসুস্থবোধ করছিলেন। এরই মধ্যে তিনি শহরের ইসলাম হার্ট সেন্টারে ভর্তি ছিলেন। এর পরে অনেকটা দৃষ্টির অগোচরে চলে যান রাজপথে সর্বদা আন্দোলনের নেতৃত্ব দেওয়া বার বার কারাভোগী এ নেতা।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

স্যোশাল মিডিয়া -এর সর্বশেষ