দলের সিদ্ধান্তকে সম্মান দেওয়া উচিত : রনজিৎ মোদক

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:০১ পিএম, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৮ মঙ্গলবার

দলের সিদ্ধান্তকে সম্মান দেওয়া উচিত : রনজিৎ মোদক

ফতুল্লা রিপোর্টাস ক্লাবের সভাপতি রণজিৎ মোদক বলেছেন, নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনে মনির কাশেমীকে রাজপথে ইতোপূর্বে ফতুল্লাবাসী দেখতে পায়নি। তাই হঠাৎ করে তিনি সামনে চলে আসায় যারা রাজনীতিবিদ হিসেবে সকলের নিকট পরিচিত তাদের অনুপস্থিতিতে নেতাকর্মীদের স্রোতে ভাটা পড়েছে।

সোমবার (১৭ ডিসেম্বর) নারায়ণগঞ্জের আলোচিত সংবাদ নিয়ে নিউজ নারায়ণগঞ্জের সংবাদ বিশ্লেষণধর্মী অনুষ্ঠান টক অব দ্যা নারায়ণগঞ্জ এ আলোচনায় এসব মন্তব্য উঠে আসে আলোচকের কাছ থেকে। অনুষ্ঠানের সঞ্চালনায় ছিলেন নিউজ নারায়ণগঞ্জের স্টাফ করেসপনডেন্ট সাবিত আল হাসান।

বিদ্রোহী প্রার্থী প্রসঙ্গে তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জে আইভি ব্যতিত দলের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়ে ভালো কিছু করতে পারেনি। সুতরাং কোন সিদ্ধান্ত নেয়ার আগে দলের কথা চিন্তা করা উচিত। দলের সিদ্ধান্ত সম্মান ও মূল্যায়ন না করলে সেখানে দীর্ঘমেয়াদী কুফল ভোগ করতে হতে পারে। আমরা দেখেছি একই আসনে বিএনপির দুই প্রার্থী থাকায় জয় পায়নি কেউই। তাই দলের সিদ্ধান্তকে সম্মান করা উচিত।

নির্বাচনে ইসলামী দলগুলোর ভেতর জামায়াত ফ্যাক্টর হলেও চরমোনাই ফ্যাক্টর হবেনা বলেও মনে করেন তিনি। কারণ হিসেবে বলেন জামায়াতের কার্যক্রম চোখে না দেখা গেলেও ভেতরে যথেষ্ট শক্তিশালী। অপর দিকে চরমোনাইর মাহফিলে জনসমাগম ও মাঠে দেখা গেলেও ভোট তেমনটা নেই।

নির্বাচনের সময় দেশের বিভিন্ন স্থানে সংখ্যালঘুদের উপর অত্যাচার নির্যাতন দেখা গেলেও নারায়ণগঞ্জে তার সম্ভাবনা নেই বলেও মনে করেন রণজিৎ মোদক। কারন হিসেবে বলেন এদেশের মানুষ শান্তিপ্রিয়। যার প্রকৃষ্ট উদাহরণ মাসদাইর গোরস্থান ও শশ্মান। তাছাড়া ইতোপূর্বেও এখানে তেমন কিছু ঘটেনি তাই এবার তেমন কিছু হওয়ার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে।

নির্বাচনে আচরণবিধি সম্পর্কে জানতে চাইলে বলেন, নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনে দেখা না গেলেও অন্যান্য আসনে তা লক্ষ্য করা গেছে। আমরা চাই সবাই তাদের দলীয় ভাবে সেসব আচরণ বিধি মেনে চলুক। অন্যথায় ভোটাররা ভীত হবে ভোটকেন্দ্রে যেঁতে। তাই সকল প্রার্থী ও দলের সমর্থকরা নিজ থেকে আচরণবিধি যাতে মেনে চলে সেদিকে কঠোর দৃষ্টি রাখা উচিৎ ইসির।


বিভাগ : টক শো


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও

আরো খবর